১৪ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

টি২০তে ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যয় চিগুম্বুরার

  • ব্যাটিং আশানুরূপ হচ্ছে না জানালেন জিম্বাবুইয়ের অধিনায়ক

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ওয়ানডে সিরিজে কঠিন লড়াই করার প্রত্যয় ছিল। সফরকারী জিম্বাবুইয়ের স্বপ্ন ছিল এবার বাংলাদেশের বিপক্ষে জয় পাওয়া। কারণ সিরিজের আগে প্রস্তুতি ম্যাচে খুব সহজ একটি বড় ব্যবধানের জয় পেয়েছিল তারা। কিন্তু মূল লড়াইয়ে কোন প্রতিদ্বন্দ্বিতাই গড়তে পারেনি জিম্বাবুইয়ে। ৩-০ ব্যবধানে হোয়াইটওয়াশ হয়েছে তারা। কিন্তু এবার ভিন্ন লড়াই। আর সে কারণেই অতীত ভুলে ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যয় এখন জিম্বাবুইয়ের। টি২০ ফরমেটের খেলায় নিজেদের সেরা নৈপুণ্য নিশ্চিত করে ভালভাবে শুরু করতে আত্মবিশ্বাসী সফরকারীরা। তবে সেজন্য মূলত ব্যাটিংয়ের দিকেই বিশেষ মনোযোগ তাদের। আর বোলিংয়ে স্পিন কিংবা পেস যেটাই হোক দলগতভাবে ভাল করতে চায় তারা। দুই ম্যাচের টি২০ সিরিজ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন জিম্বাবুইয়ে অধিনায়ক এলটন চিগুম্বুরা। ২০১৩ সালের মে মাসে সর্বশেষ টি২০ ফরমেটে মুখোমুখি হয়েছে বাংলাদেশ-জিম্বাবুইয়ে। সেবার জিম্বাবুইয়ে সফরে দুই ম্যাচের টি২০ সিরিজে ১-১ সমতা ছিল। আড়াই বছর পর আবারও মোকাবেলা। এর মধ্যে উভয়দলেই অনেক পরিবর্তন এসেছে। এ বিষয়ে চিগুম্বুরা বলেন, ‘আমরা বাংলাদেশের বিপক্ষে এই ফরমেটে তেমন খেলিনি। আমার মনে হয় সর্বশেষ আমরা অনেক দিন আগে খেলেছি এবং তখনকার চেয়ে এখন তারা সম্পূর্ণই ভিন্ন একটা দল। ওয়ানডে সিরিজের পর এখন তারা অনেক আত্মবিশ^াসী। খুব ভাল একটি সিরিজ হতে যাচ্ছে। আমাদের শুধু নিশ্চিত করতে হবে যেন খেলায় মনোনিবেশ করতে পারি।’ সত্যিই অনেক বদলে গেছে টিম বাংলাদেশ। ঘরের মাটিতে হয়ে উঠেছে অপ্রতিরোধ্য। ওয়ানডে সিরিজে বিন্দুমাত্র প্রতিরোধও গড়তে পারেনি জিম্বাবুইয়ে। কিন্তু সেটা না ভেবে ভিন্ন ফরমেটের এ সিরিজে লড়াইয়ের প্রত্যয় চিগুম্বুরার। তিনি বলেন, ‘এটা এখন অতীত তাই সেটা নিয়ে কিছুই বলার নেই। এটা ঘটে গেছে। এখন মূল দৃষ্টি আজকের খেলার দিকে। ভাল ক্রিকেট খেলাটাই শুধু নিশ্চিত করতে হবে। আমরা অনেক আত্মবিশ্বাসী দল। এটা ভিন্ন ধাঁচের খেলা। শুধু নিশ্চিত করা জরুরী মাঠে নেমে স্বাধীনভাবে খেলা। সর্বশেষ যে টি২০ খেলেছি আমরা সেখানে অনেক ভাল করেছি, যদিও ম্যাচটা হেরেই গেছি। কিন্তু আমাদের কিছু ভাল নৈপুণ্য ছিল। আজ যখন খেলতে নামব আমরা একই ধরনের নৈপুণ্য দেখাতে মনোযোগী থাকব।’

ওয়ানডে সিরিজ নিয়ে আর কোনভাবেই ভাবতে চান না চিগুম্বুরা। পরাজয় হতাশার হলেও সেটা ভুলে এখন টি২০ সিরিজে আগের ভুলগুলো শুধরে নিয়ে ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যয় জিম্বাবুইয়ের। এ বিষয়ে জিম্বাবুইয়ে অধিনায়ক বলেন, ‘অবশ্যই পরাজিত হওয়াটা খুবই হতাশার। কিন্তু এখন একটা ভিন্ন ভার্সনের ক্রিকেট হবে। আমাদের শুধু ঘুরে দাঁড়ানোটা নিশ্চিত করতে হবে এবং সেরা অবস্থানে থাকতে হবে। বিশ্বকাপে যাওয়ার আগে সেরা সমন্বয় খুঁজে বের করতে হলে আমাদের দলের জন্য এটা বিশেষভাবে গুরুত্বপূর্ণ। দলের সব ছেলেরাই ভাল পারফর্ম করে বিশ্বকাপ স্কোয়াডে থাকাটা নিশ্চিত করতে চায়। আবার একই সময়ে এই সিরিজটা আমাদের জন্য জরুরী প্রচেষ্টা চালিয়ে এ সফরে ঘুরে দাঁড়ানো।’ ওয়ানডে সিরিজের তিন ম্যাচেই জিম্বাবুইয়ের ব্যাটসম্যানরা ভাল করতে পারেননি। আর সে কারণে প্রথম ম্যাচে ১২৮, দ্বিতীয় ম্যাচে ১৮৩ এবং তৃতীয় ম্যাচে মাত্র ২১৫ রানেই গুটিয়ে গেছে দলের রান। সে কারণে এবার ব্যাটিংয়ের দিকেই বেশি মনোযোগ জিম্বাবুইয়ের। টি২০ সিরিজে ব্যাটিং ব্যর্থতা ঘুচাতে চায় তারা। এ বিষয়ে চিগুম্বুরা বলেন, ‘আমি চাই যেভাবে আমরা ব্যাট করেছি সেটায় পরিবর্তন আনতে এবং কিছু ভাল নৈপুণ্য দেখাতে চাই। নিশ্চিতভাবেই ব্যাটিংটাই মূল বিষয় হবে। যখন ব্যাটিংয়ে নামব আমরা শুধু নিজেদের নৈপুণ্যটা ভাল করতে চাই। এটা ভিন্ন ধাঁচের (ভার্সন) খেলা, সুতরাং আমাদের ভালভাবে শুরুর বিষয়টা নিশ্চিত করতে হবে।’ তবে দলগতভাবে জ্বলে ওঠা জরুরী জয় পাওয়ার জন্য। এ কারণে শুধু নির্দিষ্ট কিছু নিয়েই পড়ে থাকতে চান না চিগুম্বুরা। তিনি বলেন, ‘এটা কোন স্পিনার বা সিমারের বিষয় নয়, আমাদের দলগতভাবে ভাল খেলাটাই মূল বিষয়। সেটা স্পিন হোক বা সিম বোলিংয়ে হোক।’