২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

অদ্ভুত নিয়ম তো!

  • এমএ সালেহ

কলেজে ভর্তি হতে কুমারী থাকতে হবে একথা শুনে আপনি আকাশ থেকে পড়ছেন? পড়লে পড়তে পারেন বাট নো প্রবলেম। হ্যাঁয়, চীনের উত্তর-পশ্চিম অঞ্চলের শানজি প্রদেশের একটি কলেজে এরকম আইনই চালু আছে। কুমারী থাকার অঙ্গীকারনামায় স্বাক্ষর করেই ছাত্রীদের সেই কলেজে ভর্তি হতে হবে। অবশ্য কলেজের কর্তা ব্যক্তিরা বলছেন শুধু একটি কোর্সের ক্ষেত্রেই এই নিয়মটি করা হয়েছে। সেই কোর্সটির নাম অবশ্য তারা বলেননি। ব্যক্তি স্বাধীনতা হরণকারী নিয়ম উল্লেখ করে নারী বাদীরা ইতিমধ্যে এই অঙ্গীকারনামাকে প্রত্যাখ্যান করেছে।

কলেজটির এ ধরনের নিয়ম জারির কথা জানাজানি হয়ে গেলে অনলাইনে ব্যাপক প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। শুধু চীন নয় গণমাধ্যমের মানুষজন তো বটেই এ্যাক্টিভিস্টেরাও তীব্র প্রতিবাদে ফেটে পড়ে। তবে কলেজ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, তারা ভাবতেই পারেনি তাদের এই নিয়মের কারণে এতো হৈচৈ পড়ে যাবে চারদিকে।

কী লেখা ছিল কুমারী থাকার সেই অঙ্গীকারনামায়? সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া সেই অঙ্গীকারনামায় লেখা আছে, ‘আমি আমার নিজের কাছে এবং পরিবার, বন্ধু ও আমার ভবিষ্যৎ স্বামী সন্তানদের কাছে অঙ্গীকার করছি যে, আমি একজনের সঙ্গে সারাজীবন বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার আগ পর্যন্ত সরকারের প্রাক-বৈবাহিক সম্পর্ক থেকে বিরত থাকব।’