২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ছবির গল্প

গোঁফ দিয়ে যায় চেনা...

গোঁফের আমি গোঁফের তুমি, গোঁফ দিয়ে যায় চেনা। সুকুমার রায়ের এই বিখ্যাত ছড়ার কথা মনে পড়ছে। আর এই কবিতার মতোই এখন গোঁফের মাধ্যমেই চেনা যাবে যে কাউকেই। আর এই গোঁফ ওয়ালাদের জন্য ব্যতিক্রমী এক প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হচ্ছে আমেরিকার ব্রুকলিনে। ৩৬টি রাজ্য এবং ৭টি আলাদা-আলাদা দেশ থেকে আসছেন সব প্রতিযোগীরা। সঙ্গে তাঁদের ঢাউস দাড়ি-গোঁফ। গত ছ’বছর ধরেই চলছে এ প্রতিযোগিতা। কিন্তু ব্রুকলিন শহরে এই প্রতিযোগিতার আয়োজন হচ্ছে এই প্রথমবার। তাই ছোট্ট শহরটায় টানটান উত্তেজনা। আমেরিকার ‘বেয়ার্ড টিম’ এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করে। মার্ক ম্যাকসেন বিভিন্ন জায়গায় তাঁর গোঁফ দিয়েই বাজিমাত করে এসেছেন। এবার জয় করতে চান ব্রুকলিনও। বলেছেন, ‘গোঁফ থাকতে হারব না।‘

সাত-সতেরো প্রতিবেদক

মাদক পাচারকারী ইঁদুর!

ব্রাজিলের এক কারাগারে মাদক পাচার করতে গিয়ে ধরা পড়েছে এক নেংটি ইঁদুর! ইঁদুরটির লেজের সঙ্গে মাদকের থলে বেঁধে দেয়া হয়। এরপর প্রার্ণীটি কারাগারের এক কক্ষ থেকে অন্য কক্ষে ঘুরে বেড়াত। আর এভাবেই কয়েদিদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ত নানা নেশা দ্রব্য। কারা কর্তৃপক্ষ জানায়, মাদক পাচারের কাজে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ইঁদুরটির কাছ থেকে পুলিশ ২৯ প্যাকেট গাজা এবং ২৩ প্যাকেট কোকেইন উদ্ধার করে। মাদকদ্রব্য ব্যবসায়ীরা কারাগারের মধ্যে মাদক পাচারের কাজে এই ইঁদুরকে ব্যবহার করত।

কারা মহাপরিচালক গ্রান কার্লোস গোমেজ জানান, পুলিশ সিসিটিভি ফুটেজ দেখে এর পেছনে জড়িতদের খুঁজে বের করার চেষ্টা করছে। তিনি আরও বলেন, মাদক ব্যবসায়ীরা ইঁদুরের লেজের সঙ্গে মাদক ও অন্যান্য জিনিসপত্র বেঁধে দিয়ে তাকে এক কক্ষ থেকে অন্য কক্ষে পাঠাত। পরে ইঁদুরটির লেজ থেকে সেসব মাদক খুলে নিত কয়েদিরা। এই মাদক পাচারের ঘটনা তদন্তের স্বার্থে ইঁদুরটির মাথায় একটি ভিডিও ক্লিপ আটকে দিয়েছিল ব্রাজিলের কারা কর্তৃপক্ষ। পরে ওই ভিডিও দেখেই তারা মাদকপাচারকারী ইঁদুরটিকে শনাক্ত করে। এ ঘটনায় অবশ্য কাউকে আটক করা হয়নি। তার বদলে ইঁদুর ব্যাটাকে কারাগারের বাইরে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

ডায়পার দিয়ে বিয়ের প্রস্তাব!

প্রেমিকার মন জয় করতে কত কিছুই না করে প্রেমিক। আর বিয়ের প্রস্তাব দেয়ার সময় সাধারণত আংটির সঙ্গে বেছে নেয়া হয় ফুল, চকোলেট বা হীরা। কিন্তু তাই বলে ডায়পার দিয়ে বিয়ের প্রস্তাব দেয়ার কথা শুনেছেন! সম্প্রতি চীনের এক যুবক বিয়ের প্রস্তাব দিতে হীরার আংটির সঙ্গে বেছে নিয়েছিলেন ৫০ প্যাকেট ডায়পার। এ কাণ্ড করেছেন চীনের গুয়াংডং প্রদেশের ফেং নামের একজন যুবক।

ফেং আর তার প্রেমিকা দুই বছর ধরে চুটিয়ে প্রেম করছেন। এরই মধ্যে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন তার প্রেমিকা। তখন অভিনব কায়দায় বিয়ের প্রস্তাব দেয়ার কৌশল খুঁজে বের করেন ফেং। বন্ধুদের সাহায্য নিয়ে পার্ল নদীর তীরে প্রায় সাড়ে চার হাজার ডায়পার জোড়া দিয়ে একটি প্রতীকি হৃদয় বানান ফেং। এরপর তার প্রেমিকাকে একটি ব্যাগে করে একগুচ্ছ ডায়পার উপহার দেন। কিন্তু ব্যাগটি খোলার পর ডায়পারের থলে থেকে বেরিয়ে আসে হীরার আংটি। সবশেষে ফেং তার প্রেমিকাকে বিয়ের প্রস্তাব দেন। তার ভাষায়-‘এখন থেকে তোমার এবং তোর অনাগত শিশুর সুখের সকল দায়িত্ব আমার। তুমি আমায় বিয়ে কর, প্লিজ!’ প্রেমিকা তার প্রস্তাবে রাজি হয়েছেন বলে জানা গেছে।

সাত-সতেরো প্রতিবেদক