২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নূর হোসেন এখন নারায়ণগঞ্জে

নূর হোসেন এখন নারায়ণগঞ্জে

অনলাইন ডেস্ক॥ অবশেষে নারায়ণগঞ্জ সাত খুন মামলার প্রধান অভিযুক্ত নূর হোসেনকে ভারত থেকে বাংলাদেশে ফিরিয়ে আনা হয়েছে। তাকে বেনাপোল সীমান্ত থেকে ঢাকায় এনে নারায়ণগঞ্জে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। আজই তাকে নারায়ণগঞ্জের আদালতে হাজির করা হতে পারে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বিবিসি বাংলাকে বলেছেন,নূর হোসেনকে এখন হত্যা মামলাটিতে বিচারের মুখোমুখি করা হবে। গত মধ্যরাতের পর ভারতীয় কর্তৃপক্ষ তাকে বাংলাদেশের কাছে হস্তান্তর করে। পুলিশের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বাংলাদেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনী, র‍্যাব এবং পুলিশের প্রতিনিধিদল মধ্যরাতে আগেই বেনাপোল সীমান্তে যায়। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে নূর হোসেনকে ভারতের পেট্রাপোল সীমান্তে বাংলাদেশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। তখন নূর হোসেনকে হেলমেট পড়িয়ে একটি মাইক্রোবাসে করে কড়া পাহারায় ভোরে ঢাকায় আনা হয়। ঢাকায় এনে তাকে র‍্যাব -১ এর কার্যালয়ে নিয়ে তার স্বাস্থ্য পরিক্ষা করা হয়। এরপর ভোরেই তাকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে নারায়ণগঞ্জে। সেখানেই সাত খুনের মামলায় তাকে আদালতে হাজির করা হবে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান বলেছেন, নূর হোসেন যেহেতু ভারতে অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগে ধরা পড়েছিল। ফলে সেখানে আইনগত সব প্রক্রিয়া শেষ করেই ভারতে তাকে ফেরত দিলো।

গত বুধবার ভারতের বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন আলফা নেতা অনূপ চেটিয়াকে বাংলাদেশ ভারতের কাছে হস্তান্তর করেছে।তিনি ১৭ বছর বাংলাদেশের কারাগারে ছিলেন। অনূপ চেটিয়াকে দেয়ার একদিন পরই ভারত নূর হোসেনকে বাংলাদেশের কাছে হস্তান্তর করলো। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মি: খান বলেছেন, দু’টি বিষয়কে একসাথে মিলিয়ে দেখা যাবে না।হত্যা মামলার আসামী নূর হোসেনকে ফেররত দেয়ার ক্ষেত্রে ভারতে পক্ষ থেকে কোন শর্ত ছিল না বলে তিনি উল্লেখ করেছেন। নারায়নগঞ্জ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পরিচয়ে একজন কাউন্সিলর এবং একজন আইনজীবীসহ একসঙ্গে সাতজনকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। অপহরণের তিনদিন পর শীতলক্ষ্যা নদীতে তাদের ইট আর রশি বাধা মৃতদেহ ভেসে ওঠে। সেই ঘটনা ব্যাপক আলোচনার সৃষ্টি করেছিল।

হত্যাকাণ্ডের প্রায় দেড় বছর পর প্রধান অভিযুক্ত নূর হোসেনকে বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে ভারত থেকে বাংলাদেশে ফিরিয়ে আনা হলো।

হত্যামামলাটিতে নূর হোসেনকে এক নম্বর অভিযুক্ত করে পুলিশ ৩৫জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দেয় এ বছরের এপ্রিল মাসে।

অভিযুক্তদের মধ্যে র‍্যাবের নারায়ণগঞ্জের শীর্ষ তিন্জন কর্মকর্তাসহ ২২জন গ্রেফতার রয়েছে।

সূত্র : বিবিসি বাংলা