২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মুন্সীগঞ্জে অস্ত্র ফেলে রাসেল মেম্বারের পলায়ন

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ পুলিশের জিজ্ঞাসার মুখে আমেরিকার তৈরী অত্যাধুনিক রিভলবার ও ৪ রাউন্ড গুলি ফেলে দৌড়ে পালিয়েছেন মুন্সীগঞ্জের শীর্ষ সন্ত্রাসী সদর উপজেলার বজ্রযোগীনি ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য রাসেল (৩৭)। শনিবার সন্ধ্যায় রাসেল সদর উপজেলার ডেকরাপাড়া গ্রামের এক ব্যক্তিকে মেরে টঙ্গীবাড়ি থানা পুলিশে ধরিয়ে দিতে গেলে পুলিশ তাকে চিনে তুমি রাসেল না? জিজ্ঞাসা করার সাথে সাথে কোর্টের পকেট হতে ৪ রাউন্ড গুলিসহ একটি রিভলবার টঙ্গীবাড়ি থানার সামনের রাস্তায় ফেলে দৌড়ে পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ অস্ত্রটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। এর আগে শনিবার সকালে রাসেল ও তার সহযোগী বিপ্লব সদর উপজেলার ডেকরাপাড়া গ্রামের মাদক ব্যাবসায়ী তারা সেখের কাছে ১০টি ইয়াবা ট্যাবলেড কিনতে চায়। এ সময় তারা সেখ সে মাদক ব্যাবসা ছেড়ে দিয়েছে বলে রাসেলকে জানালে সে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। পরে বিকেল ৩টায় তারা সেখ উপজেলার আলদি বাজার হতে তার নিজ বাড়ি ডেকরাপাড়া গ্রামে ফেরার পথে আলদী বাজার বিদুৎ অফিসের সামনে রাসেল, বিপ্লবসহ কতিপয় সন্ত্রাসী তারার উপর হামলা চালায়। এ সময় তারার বাম পা পিটিয়ে ভেঙ্গে ফেলে রাসেল ও সার দলবলএবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম করে টঙ্গীবাড়ী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্র হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসে। কর্তব্যরত ডাক্তার তারাকে পঙ্গু হাসপাতালে নিয়ে যেতে বললে রাসেল গংরা তারাকে একটি পল্লি বাইকে উঠিয়ে টঙ্গীবাড়ী থানার সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় থানায় ডিউটিরত এক কনেষ্টোবলকে বলে ও মাদক ব্যাবসায়ী ওকে গ্রেপ্তার করেন। এ সময় টঙ্গীবাড়ী থানা এসআই হুমায়ূন কবির ঘটনাস্থলে পৌছেঁ তুমি রাসেল না? থানায় চলো বললে, সে তার কোর্টের পকেট হতে অস্ত্র ফেলে দ্রুত পালিয়ে যায়। টঙ্গীবাড়ী থানা এস আই হুমায়ূন কবির জানান, রাসেল একজন শীর্ষ সন্ত্রাসী। কিছুদিন আগে তাকে র‌্যাব আটক করেছিলো।