২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পাকিদের বিরুদ্ধে সমতা ফেরাল ইংল্যান্ড

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ এ্যালেক্স হেলসের দুরন্ত সেঞ্চুরির সৌজন্যে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে দারুণ এক জয় পেয়েছে ইংল্যান্ড। পাকিস্তানকে ৯৫ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়ে চার ম্যাচের সিরিজে ১-১এ সমতা ফিরিয়েছে ইয়ন মরগানের দল। আবুধাবিতে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৫ উইকেটে ২৮৩ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়ে ইংলিশরা। জবাবে ব্যাটিং ব্যর্থতায় ৪৫.৫ ওভারে ১৮৮ রানে অলআউট হয় পাকিস্তান। হারের জন্য ব্যাটসম্যানদেরই দুষছেন অধিনায়ক আজহার আলি। ১০৯ রানের চমৎকার ইনিংস খেলে ম্যাচসেরা হেলস। শারজায় তৃতীয় ওয়ানডে মঙ্গলবার।

‘আমাদের বোলাররা ভাল করেছে। তিন শতাধিক রানের স্কোর হওয়ার মতো পিচে তারা প্রতিপক্ষকে ২৮৩Ñএ থামিয়ে দিয়েছে। এটা অবশ্যই অতিক্রমযোগ্য স্কোর ছিল। কিন্তু চমৎকার ব্যাটিং উইকেটেও ব্যাটসম্যানরা দায়িত্ব নিয়ে খেলতে পারেনি। সত্যি বলতে আমরা নিজেদের সামর্থ্যরে প্রতি সুবিচার করতে পারিনি। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়েছি। টপ-অর্ডারে প্রয়োজনীয় জুটি গড়ে ওঠেনি। রান করা যে খুব কঠিন ছিল না, সরফরাজ আহমেদ আর আনোয়ার আলি সেটি চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে। এই ম্যাচ থেকে অনেক কিছু শেখার আছে। যেটি কাজে লাগিয়ে তৃতীয় ওয়ানডেতে ঘুরে দাঁড়াতে চাই। ১-১এ চলমান সিরিজে আমরা নতুন করে শুরু করব।’ বলেন পাকিস্তান ওয়ানডে অধিনায়ক আজহার। মোটেই বাড়িয়ে বলেননি তিনি।

আরব আমিরাত পাকিস্তানের দ্বিতীয় হোম ভেুন্য। এখানকার পরিবেশ, পিচ, এমনকি ঘাস পর্যন্ত তাদের চেনা। টেস্ট সিরিজের পর প্রথম ওয়ানডেতেও সেটি দেখা গেছে। প্রতিপক্ষকে স্রেফ উড়িয়ে দিয়েছে পাকিরা। কিন্তু দ্বিতীয় ওয়ানডেতে আজহারদের কেমন ছন্নছাড়া দেখিয়েছে। ৫০ রানের মধ্যে ৫ উইকেট হারিয়ে কার্যত গর্তে ঢুকে যায় পাকিস্তান। সেখান থেকে আর সোজা হয়ে দাঁড়াতে পারেনি। দলীয় ৮০ রানেই ষষ্ঠ উইকেট হারানোর পর হারের জন্য অপেক্ষা ছাড়া আর কিছুই করার ছিল না। কিন্তু এ পর্যায়ে টপ-অর্ডার ব্যাটসম্যানদের লজ্জা দিয়েছেন সরফরাজ-আনোয়ার। সপ্তম উইকেটে ১১.১ ওভারে সর্বোচ্চ ৬৫ রান তোলেন দুজনে। যা কেবল হারের ব্যবধানই কমিয়েছে। সরফরাজ ৭৬ বলে ৩ চারের সাহায্যে করেন ৬৪ রান। আনোয়ারের ২৩, ওপেনিংয়ে আজহারের ২২ ছাড়া বলার মতো ইনিংস নেই। শেষদিকে ১৩ বলে ১৬ করে অপরাজিত ইয়াসির শাহ। ইংল্যান্ডের হয়ে দারুণ বোলিং করেছেন ডেভিড উইলি (৩/২৫) ও ক্রিস ওকস (৪/৩৩)। এর আগে হেলসের সেঞ্চুরি ও জেসন রয় (৫৭ বলে ৫৪) এবং জো রুটের (৭৭ বলে ৬৩) দুটি হাফ সেঞ্চুরির সৌজন্যে চ্যালেঞ্জিং স্কোর পায় ইংলিশরা। পাকিস্তানের হয়ে সফল ওয়াহাব রিয়াজ নেন ৩ উইকেট। দারুণ জয়ে সন্তষ্ট ইংল্যান্ড অধিনায়ক মরগান সতীর্থদের প্রশংসায় ভাসিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘এটা অসাধারণ পারফর্মেন্স। প্রত্যেকে নিজ অবস্থান থেকে শতভাগ দিয়েছে। ব্যটিংয়ে হেলসের কথা আলাদা করে বলতে হয়। ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি তুলে নেয়া অবশ্যই সুন্দর ভবিষ্যতের ইঙ্গিত।