২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ফার্স্ট নাইট উদযাপনের মধ্য দিয়ে ঢাকায় লা মেরিডিয়ানের যাত্রা

ফার্স্ট নাইট উদযাপনের মধ্য দিয়ে ঢাকায় লা মেরিডিয়ানের যাত্রা

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ স্টারউড হোটেলস এন্ড রিসোর্টস ওয়ার্ল্ড ওয়াইড, ইনকর্পোরেশন (এনওয়াইএসই: এইচওটি) আনুষ্ঠানিক ভাবে রাজধানীর সবচেয়ে অভিজাত হোটেল লা মেরিডিয়ান ঢাকার ফার্স্ট নাইট উদযাপন করল। দেশীয় শিল্প ও সংস্কৃতি মিশ্রিত ফ্রেঞ্চ ব্র্যান্ডটির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও বাংলাদেশ পর্যটন মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন। এসময় উপস্থিত ছিলেন রাজনৈতিক, ব্যবসায়ী ও সাংস্কৃতিক বিশিষ্ট ব্যাক্তিবর্গ।

অনুষ্ঠানে স্টারউড হোটেলস এন্ড রিসোর্টস ওয়ার্ল্ড ওয়াইড এর সাউথ এশিয়ার রিজিওনাল ভাইস প্রেসিডেন্ট ও ইন্ডিয়ার ম্যানেজিং ডিরেক্টর দিলীপ পুরি বলেন, ফার্স্ট নাইট উদযাপনের মধ্য দিয়ে ঢাকায় লা মেরিডিয়ানের সর্বশেষ শাখা উদ্বোধন করতে পেরে আমরা খুবই আনন্দিত, যা এই কর্মব্যস্ত শহরে সমসাময়িক সংস্কৃতির প্রতি জীবনের মাঝে আবেগ তৈরি করবে। লা মেরিডিয়ান ঢাকার আনুষ্ঠানিক উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানটি বিভিন্ন পরিবেশনার মধ্য দিয়ে একটি সম্পূর্ণ বিপরীতধর্মী বৈশিষ্ট্য প্রদর্শন করে, যা অতিথিদের মাঝে আগ্রহ, উৎসাহ এবং উদ্দীপনামূলক আলোচনার সৃষ্টি করে ।

লা মেরিডিয়ানের প্রাণকেন্দ্র এর নতুন ও রুপায়িত ঐতিহ্যসমৃদ্ধ লবিতে অতিথিদেরকে স্বাগত জানানো হয় । এই লবিটিকে বিভিন্ন শিল্প ও সংস্কৃতি দিয়ে সাজানো হয়েছে। এখানে আছে রংহীন একটি কাঠের আর্টওয়ার্ক যা ঢাকা শহরের ক্রস সেকশনগুলোর এ্যরিয়াল ভিউ প্রদর্শন করছে। এছাড়াও এই আর্টওয়ার্কটি হোটেলটির নির্মীয়মান সময়কেও ধরে রেখেছে।

লা মেরিডিয়ান ঢাকার স্বত্বাধিকারী প্রতিষ্ঠান বেস্ট হোল্ডিংস লিমিটেড এর চেয়ারম্যান আমিন মোহাম্মদ বলেন, “দেশের প্রথম লা মেরিডিয়ান হোটেল তৈরীর মধ্য দিয়ে স্টারউড হোটেলস এন্ড রিসোর্টস এর অংশীদার হতে পেরে আমরা গর্বিত। স্টারউড মানেই হচ্ছে আকর্ষনীয় পেশাদারী আতিথেয়তা আর লা মেরিডিয়ান হচ্ছে এমন একটি ব্র্যান্ড যা দেশীয় আতিথেয়তার মাধ্যমে অতিথিদের চাহিদা অনুযায়ী একটি চমৎকার অভিজ্ঞতা দেয়। বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে এই দুয়ের চমৎকার সমন্বয়টি খুবই উপযুক্ত, বিশেষ করে যখন দেশটি দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে।”

হোটেলের জেনারেল ম্যানেজার আশওয়ানী নায়ার, যিনি বিগত দুই বছর ধরে ঢাকায় অবস্থান করছেন, আস্থার সঙ্গে বলেন,“ আমি ঢাকাকে পরিবর্তিত হতে দেখছি। সংস্কৃতি সমৃদ্ধ এই শহরটি ধীরে ধীরে আধুনিকতাকে বরণ করে নিচ্ছে। হোটেলটি শিল্প কেন্দ্রিক আধুনিক ডিজাইন, নতুন নতুন খাবার ও দেশীয় সংস্কৃতিকে প্রাধান্য দিয়ে থাকে যা ব্র্যান্ড হিসেবে লা মেরিডিয়ানের একটি অবিচ্ছেদ্য অংশ। এ সব বৈশিষ্ট্য গ্রাহকদেরকে চমৎকার ও স্মরণীয় অভিজ্ঞতা দেয় ও অতিথিদের আস্থাকে আরো দৃঢ় করে। লা মেরিডিয়ান একই সময়ে একজন গ্রাহক এই নীতিতে বিশ্বাস করে। ”

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি ১৬ তালায় অবস্থিত রুফটপ বলরুমে অনুষ্ঠিত হয়। অথিতিরা অনুষ্ঠানে জনপ্রিয় ফোক ব্যান্ড জলের গান (জলের গান বাংলাদেশী সমসাময়িক গ্রাম্য গানের রুপায়নের জন্য পরিচিত) এর পারফর্মেন্স সরাসরি উপভোগ করেন। এছাড়া ও অনুষ্ঠানের অন্যতম অংশ ছিল এর গৌরমেট বুফে যেখানে হোটেলটির ছয়টি ডাইনিংয়ের প্রধান ডিশগুলো পরিবেশন করা হয়।

আনলক ডেস্টিনেশন ॥ ফার্স্ট নাইটের পাশাপাশি লা মেরিডিয়ান ঢাকা আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম কর্মীদের থ্রিসি ডিসকভারি ট্যুর (কো-অরর্ডিনেটস,কালচার,কুইজিন) এর জন্য আমন্ত্রণ জানায়। অথিতিরা ঢাকা ইউনিভার্সিটির ইনস্টিটিউট অব ফাইন আর্টস, বেঙ্গল আর্ট লাউঞ্জ ও হোটেলের আনলক আর্ট পার্টনার, যা বাংলাদেশের সমসাময়িক শিল্পগুলো সংগ্রহ করে, এর মত স্থাপত্য নিদর্শনগুলো পরিদর্শন করে। পরে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম কর্মীরা তারকা শেফ টনি খানের সাথে চমৎকার খাবার উপভোগ করেন।