২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রাজধানীতে তিন নারীর মৃত্যু, ২ তরুণীর আত্মহত্যা

  • আশুলিয়ায় স্বামীর দেয়া এ্যাসিডে দগ্ধ গৃহবধূর মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীতে পৃথক স্থানে তিন নারীর মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে মিরপুর ও কাফরুল এলাকায় দুই তরুণী আত্মহত্যা করেছে। আশুলিয়া এলাকায় স্বামীর এ্যাসিড নিক্ষেপে মারা গেছে এক গৃহবধূ। ধানম-িতে যাত্রীবাহী বাসের ধাক্কায় বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্র নিহত হয়েছে। পুরান ঢাকার কদমদলীতে বিদ্যুতস্পৃষ্ট হয়ে এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। আরেক শ্রমিক আহত হয়েছে। এছাড়া যাত্রাবাড়ীতে একটি চায়ের দোকানে কেরোসিনের চুলা থেকে আগুন লেগে দগ্ধ হয়েছে দুই শিশু। রবিবার পুলিশ ও মেডিক্যাল সূত্রে জানা গেছে, মিরপুরে সামাজিক পুনরুদ্ধার ও সংশোধন সমিতির একটি কক্ষ থেকে খাদিজা খাতুন সীমা (১৫) নামে এক কিশোরীর লাশ উদ্ধার হয়েছে। মিরপুর থানার উপ-পরিদর্শক মতিউর রহমান জানান, ভোর চারটার দিকে উত্তর-পূর্ব দারুস সালাম রোডের ২/বি নম্বর সামাজিক পুনরুদ্ধার ও সংশোধন সমিতির পাঁচতলা ভবনের দুই নম্বর কক্ষ থেকে ফ্যানের সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় ওই কিশোরীর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, ওই কিশোরী আত্মহত্যা করতে পারে। ওই সমিতির কর্মকর্তা শহীন জানান, ওই কক্ষে একসঙ্গে ১২ জন থাকত।

এদিকে, কাফরুল থানার পূর্ব শেওড়াপাড়ার একটি বাসায় কামরুন নাহার (৩৮) নামে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছে। শনিবার মধ্যরাতে পুলিশ ওই বাড়ির কক্ষের দরজা ভেঙ্গে কামরুন নাহারের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। নিহতের স্বামী হারুন অর রশিদ পুলিশকে জানান, শনিবার রাতে স্ত্রী কামরুন নাহার ঘরে একা ছিল। রাত একটার দিকে বাসায় এসে দেখি ঘরের দরজা ভেতর থেকে বন্ধ। পরে অনেক ডাকাডাকি করে সাড়াশব্দ না পেয়ে থানা পুলিশকে জানানো হয়। পুলিশ পরে ঘটনাস্থলে গিয়ে দরজা ভেঙ্গে কামরুনের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে।

স্বামীর এ্যাসিডে গৃহবধূর মৃত্যু ॥ আশুলিয়ায় পারিবারিক কলহের জের ধরে স্বামীর দেয়া এ্যাসিডে দগ্ধ মাজেদা বেগম (২৫) ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রবিবার সকালে মারা গেছেন। নিহতের স্বামীর নাম সোহাগ মিয়া। বাবার নাম জলিল বিশ্বাস। বাড়ি মাগুরার শালিখা থানার আড়পাড়া গ্রামে।

বাসের ধাক্কায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রের মৃত্যু ॥ ধানম-ির বাংলাদেশ মেডিক্যালের সামনে যাত্রীবাহী বিপণন পরিবহনের একটি বাসের ধাক্কায় ইমাম হোসেন (২৫) নামে এক মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু হয়েছে। তিনি ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের বিবিএর ছাত্র ছিলেন। ইমামের বাবার নাম মোঃ সফিউল্লাহ। বাড়ি চাঁদপুর জেলার শাহরাস্তি থানার কৃষ্ণপুর গ্রামে। তিনি ধানম-ির ১ নম্বর রোডের ১০ নম্বর বাসায় থাকতেন।

বিদ্যুতস্পৃষ্ট শ্রমিকের মৃত্যু ॥ পুরান ঢাকার কদমতলীর দক্ষিণ ধনিয়া পাটেরবাগ এলাকায় একটি নির্মাণাধীন ভবনে গ্রিলের কাজ করার সময় বিদ্যুতস্পৃষ্ট হয়ে আল-আমিন (২৫) নামে এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় মুন্না (১৮) নামে অপর শ্রমিক আহত হয়েছেন। নিহত আল-আমিনের বাবার নাম হাফিজুর রহমান। ওই নির্মাণাধীন বাড়ির মালিক আরিফ হোসেন জানান, রবিবার বেলা এগারোটার দিকে আল-আমিন ও মুন্না গ্রিলের কাজ করছিলেন। এ সময় বিদ্যুতস্পৃষ্টে তারা আহত হন। পরে তাদের উদ্ধার করে দুপুরে ঢামেক হাসপাতালের জরুরী বিভাগে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আল-আমিনকে মৃত ঘোষণা করেন।

চুলার আগুনে দগ্ধ দুই শিশু ॥ যাত্রাবাড়ীর মাতুয়াইল দক্ষিণপাড়া এলাকার একটি চায়ের দোকানে কেরোসিনের চুলা থেকে আগুন লেগে লামিয়া আক্তার (৫) ও তানিয়া আক্তার (৪) নামে দুই শিশু দগ্ধ হয়েছে। পরে তাদের দগ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। বার্ন ইউনিটের আবাসিক চিকিৎসক ডাঃ পার্থ শঙ্কর পাল জানান, লামিয়ার শরীরের ৩০ শতাংশ ও তানিয়ার ২০ শতাংশ পুড়ে গেছে। তাদের অবস্থা গুরুতর। দগ্ধ তানিয়ার বাবা নূর ইসলাম জানান, দক্ষিণপাড়ার পুরাতন মসজিদসংলগ্ন একটি ভাড়া বাসায় থাকেন তারা। রবিবার বিকেল তানিয়াকে সঙ্গে নিয়ে ওই এলাকার একটি দোকানে চা পান করছিলেন।