২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আজ আসছে অস্ট্রেলিয়া কাল ম্যাচ

আজ আসছে অস্ট্রেলিয়া কাল ম্যাচ
  • নজিরবিহীন নিরাপত্তা, যা বাংলাদেশে অন্য যে কোন আন্তর্জাতিক ফুটবল ম্যাচে দেখা যায়নি

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইয়ের দ্বিতীয় লেগের ম্যাচ খেলতে আজ সন্ধ্যায় বাংলাদেশ সফরে আসছে অস্ট্রেলিয়ান ফুটবল দল। সিঙ্গাপুর থেকে একটি বিশেষ চার্টার্ড ফ্লাইটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করার কথা জানিয়েছেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ। মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৫টায় ফিরতি লেগের ম্যাচে বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে স্বাগতিক বাংলাদেশের মুখোমুখি হবে সকারুরা।

গত বৃহস্পতিবার বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ম্যাচে অস্ট্রেলিয়া কিরগিজস্তানের মুখোমুখি হয়েছিল। ক্যানবেরার সেই ম্যাচে স্বাগতিকরা ৩-০ গোলে কিরগিজস্তানকে হারায়। এরপরই বাংলাদেশ সফরের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়ে সিঙ্গাপুরে চলে আসে সকারুরা। মূলত এশিয়ার আবহাওয়ার সঙ্গে নিজেদের মানিয়ে নেয়ার লক্ষ্যেই সিঙ্গাপুরে আসে অস্ট্রেলিয়ান ফুটবল দল। সেখানে কয়েকদিন অনুশীলন করে আজই ঢাকার উদ্দেশ্যে বিমানে উঠবে সকারুরা।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাছাইপর্বের এই ম্যাচকে ঘিরে নিরাপত্তার মহাপরিকল্পনা করেছে বাংলাদেশ। যা এর আগে কোন আন্তর্জাতিক ম্যাচ কিংবা টুর্নামেন্টের জন্য নেয়া হয়নি। এ বিষয়ে ঢাকা মহানগরের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার শেখ মারুফ হাসান বলেন, ‘এই ম্যাচের জন্য নজিরবিহীন পরিকল্পনা করা হয়েছে... যা এ যাবতকালের ইতিহাসে বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত অন্য যে কোন আন্তর্জাতিক ম্যাচের চেয়েও বেশি।’ এ সময় তিনি আরও বলেন, ‘নিরাপত্তার জন্য বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম সংলগ্ন সকল দোকানপাট দুইদিন বন্ধ থাকবে। স্টেডিয়াম সংলগ্ন রাস্তায় গাড়ি চলাচলও স্থগিত রাখা হবে। আমাদের ডগ স্কোয়াড এবং বোমা অপসারণের ইউনিট ম্যাচের পূর্বে মাঠ প্রদক্ষিণ করবে।’

জানিয়ে রাখা ভাল গত শনিবারই বাংলাদেশে আসার কথা ছিল অস্ট্রেলিয়ান ফুটবল দলের। কিন্তু তারা সেই সূচী পরিবর্তন করে ম্যাচের আগেই আসছে বাংলাদেশে। প্রথম দফায় শনিবার রাত ১০টা ৪০ মিনিটে সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সযোগে দলটির বাংলাদেশে আসার কথা থাকলেও তা হঠাৎ করেই বাতিল হয়ে যায়। আর সেই সূচী পরিবর্তনের কারণ সম্পর্কে ফুটবল ফেডারেশন অব অস্ট্রেলিয়া তাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে জানায়, ১২ নবেম্বর নিজেদের মাটিতে কিরগিজস্তানের বিপক্ষে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ম্যাচটি খেলে দলটির অনেক খেলোয়াড়ই ভীষণ ক্লান্ত, তাই ম্যাচ শেষের সঙ্গে সঙ্গেই বাংলাদেশে এত লম্বা ভ্রমণ দলটির পক্ষে সম্ভব হবে না। কেননা দলের অনেকেই ইউরোপিয়ান লীগেও খেলছিলেন যারা বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ম্যাচ খেলতে ইউরোপের বিভিন্ন দেশ থেকে জাতীয় দলে যোগ দেয় এবং এখনও তারা ম্যাচের আগের ভ্রমণ ক্লান্তি এবং কিরগিজদের বিপক্ষে কঠিন ম্যাচটির চাপ কাটিয়ে উঠতে পারেনি। যদিও সকারুরা ম্যাচটি কিরগিজদের বিপক্ষে ৩-০ ব্যবধানে সহজেই জয় পায়। আর বাংলাদেশে ভ্রমণ নিয়ে ফুটবল ফেডারেশন অব অস্ট্রেলিয়ার ওয়েবসাইটে বলা হয়, শনিবার সকারুরা অস্ট্র্রেলিয়া থেকে যাত্রা করে রবিবার সিঙ্গাপুর পৌঁছে। সেখানে অনুশীলন করে সোমবার অর্থাৎ খেলার আগেরদিন বাংলাদেশে পৌঁছাবে। মঙ্গলবার ম্যাচ খেলে সেদিনই গভীর রাতে ঢাকা ছাড়বে।’ ম্যাচের আগেরদিন সন্ধ্যায় এসে কীভাবে ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলন করবে অস্টেলিয়া! কোথায়ই বা করবে সেই সম্মেলন? এমন প্রশ্নের জবাবে আবু নাইম সোহাগ জানান, ‘অস্ট্রেলিয়ান দলের পক্ষ থেকে ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলন টিম হোটেলেই করার প্রস্তাব দেয়া হয়েছে।

২০১৮ সালে রাশিয়া বিশ্বকাপ বাছাইয়ে ‘বি’ গ্রুপের প্রথম লেগের ম্যাচ খেলতে গত সেপ্টেম্বরে অস্ট্রেলিয়া সফর করে বাংলাদেশ। পার্থে অনুষ্ঠিত সেই ম্যাচে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়ার কাছে ৫-০ গোলের বড় ব্যবধানে হার মানে লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। এই গ্রুপে ৫ ম্যাচে ১৩ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে অবস্থান করছে জর্ডান। আর সমানসংখ্যক ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে অস্ট্রেলিয়া। আর ছয় ম্যাচ খেলে তার পাঁচটিতেই হেরে মাত্র ১ পয়েন্ট নিয়ে ‘বি’ গ্রুপের তলানিতে অবস্থান করছে বাংলাদেশ। নিজেদের মাটিতে মঙ্গলবার অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে কি পারবে কোন পয়েন্ট যোগ করতে? বাংলাদেশের ভক্ত-অনুরাগীদের সেটাই এখন দেখার অপেক্ষা।