১০ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পুঁজিবাজারে ৮ মাসের সর্বনিম্ন লেনদেন

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ একদিনের সূচকের বড় উত্থানের পরে পুঁজিবাজারে আবারও দরপতন ঘটেছে। বেশিরভাগ কোম্পানির দরপতনের পাশাপাশি দিনটিতে লেনদেনের পরিমাণও কমছে। রবিবার চলতি সপ্তাহের প্রথম লেনদেন দিবসে দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন হয়েছে ২২১ কোটি ৮৫ লাখ টাকা। গত আট মাসের মধ্যে এটিই ডিএসইর সর্বনিম্ন লেনদেন। এর আগে চলতি বছরের ১৯ মার্চ সেখানে সর্বনিম্ন ১৬৬ কোটি টাকা লেনদেন হয়েছিল।

বাজার পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে চাইলে ডিএসইর সাবেক প্রেসিডেন্ট ও বর্তমান পরিচালক শাকিল রিজভী বলেন, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের নিষ্ক্রিয়তার কারণে লেনদেনের পরিমাণ কমছে। এছাড়া ধারাবাহিক দর পতনের কারণে বিনিয়োগের আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছেন সাধারণ বিনিয়োগকারীরাও। বিনিয়োগকারীদের অংশগ্রহণ কমে যাওয়ার কারণে লেনদেনে নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে বলে জানান তিনি।

এদিকে এক দিনের ব্যবধানে ফের পতন হয়েছে বাজারে। রবিবার সপ্তাহের প্রথম দিন দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক ডিএসইএক্সের পতন হয়েছে ৯.৩৬ পয়েন্ট। দিনশেষে সূচক গিয়ে দাঁড়িয়েছে ৪৪২৪.২০ পয়েন্টে। বৃহস্পতিবার সূচক বেড়েছিল ৬২.০৩ পয়েন্ট। এর আগে টানা ৬ দিনের দরপতনে ডিএসই সূচক কমেছিল ১৮০ পয়েন্ট।

লেনদেনে অংশ নেয়া ৩০৮টি ইস্যুর মধ্যে দিনশেষে দর বেড়েছে ১০৮টির, কমেছে ১৫৮টির ও অপরিবর্তিত রয়েছে ৪২টির দর। লেনদেনের শীর্ষে রয়েছে তিতাস গ্যাস। দিনশেষে কোম্পানিটির ১৪ কোটি ৯৫ লাখ ৪৭ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা বিএসআরএম লিমিটেডের লেনদেন হয়েছে ৮ কোটি ৯৩ লাখ ৪ হাজার টাকা। ৮ কোটি ১২ লাখ ৭৯ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে কাশেম ড্রাইসেল।