১৯ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

গাইবান্ধার চৌধুরী শপিং কমপ্লেক্স মার্কেটে হামলা ॥ সংবাদ সম্মেলন

গাইবান্ধার চৌধুরী শপিং কমপ্লেক্স মার্কেটে হামলা ॥ সংবাদ সম্মেলন

নিজস্ব সংবাদদাতা, গাইবান্ধা ॥ গাইবান্ধা জেলা শহরের চৌধুরী শপিং কমপ্লেক্স মার্কেটে আকস্মিক হামলা, মারপিট ও উল্টো হয়রানীমূলক মিথ্যা মামলা দায়ের করে মার্কেটের মালিকদের হয়রানী করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় গাইবান্ধা সদর থানায় জেলা শহরের পলাশপাড়ার মৃত নুরুন্নবী খন্দকারের পুত্র এসএম ফিরোজ আলম লিমন ও আশরাফুল ইসলাম লিটনসহ তার ৫ জন অজ্ঞাত পরিচয়ে সহযোগী সন্ত্রাসীকে আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এরপরেও উক্ত আসামি ও তাদের সন্ত্রাসীরা মার্কেটের তিনটি দোকানের পজেশন দাবিতে মার্কেটের মালিকদের নানাভাবে হুমকি দিয়ে আসছে। এব্যাপারে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে জরুরী ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানানো হয়েছে।

সোমবার গাইবান্ধা প্রেসক্লাবে চৌধুরী শপিং কমপ্লেক্স মার্কেটের মালিকদের পক্ষ থেকে পরিচালক ও বিশিষ্ট সাংবাদিক আব্দুল মান্নান চৌধুরীর স্ত্রী কোহিনুর বেগম সংবাদ সম্মেলনে তার লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করেন, উক্ত আসামিদের সাথে দীর্ঘদিন জমিজমা সংক্রান্ত মামলা চলে আসছিল। আদালতে দায়েরকৃত মামলার রায় মালিক পক্ষে এলে আসামিরা ক্ষিপ্ত হয়ে সন্ত্রাসী ও নানা অপতৎপরতা শুরু করে। এর জের ধরে গত ১০ নভেম্বর মঙ্গলবার রাতে উক্ত লিমন ও লিটন তাদের সন্ত্রাসী সহযোগীসহ লাঠিসোটা, রড, ছোড়াসহ মারাত্মক অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে ওই মার্কেটে অনধিকার প্রবেশ করে এবং জোরপূর্বক তিনটি দোকানের পজেশন দাবি করে। এ নিয়ে বাকবিতন্ডার একপর্যায়ে লিটন ও লিমন মার্কেটের পরিচালক আব্দুল মান্নান চৌধুরীর উপর আকস্মিক হামলা চালায় এবং তাকে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যার চেষ্টা করে। এসময় তার পকেট থেকে টাকা ছিনতাই করে নেয় এবং মার্কেটের দোকানে হামলা ও ভাংচুর চালিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত করে। পরে মার্কেটের অন্যান্য দোকান মালিক ও ব্যবসায়িরা এগিয়ে এলে আসামিরা পালিয়ে যায়।