২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সর্বোচ্চ নিরাপত্তা পাচ্ছে অস্ট্রেলিয়ান ফুটবল দল

অনলাইন রিপোর্টার ॥ ফিফা বিশ্বকাপের বাছাই পর্বে দ্বিতীয় লেগের ম্যাচ খেলতে সোমবার রাতে বাংলাদেশ সফরে আসছে অস্ট্রেলিয়ান জাতীয় ফুটবল দল। আর সফরকারী দলটির বাংলাদেশে অবতরণের পরই সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দেয়া হবে বলে জানালেন, ফিফা ও এএফসির তালিকাভুক্ত নিরাপত্তা কর্মী ডিআইজি শেখ মোহাম্মদ মারুফ হাসান।

সোমবার বিকেলে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন ভবনে অস্ট্রেলিয়ার নিরাপত্তা নিয়ে মারুফ হাসান সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘ফিফার নিয়মানুযায়ী যে নিরাপত্তা একটি ফিফা ভুক্ত দলকে দেয়া হয়, অস্ট্রেলিয়ার ক্ষেত্রেও নিরাপত্তা ব্যবস্থা একই থাকছে। ২০১১ সালের সেপ্টেম্বরে বাংলাদেশে প্রীতি ম্যাচ খেলতে আসা আর্জেন্টিনা ও নাইজেরিয়াকে যে নিরাপত্তা দেওয়া হয়েছিল, সেটির সঙ্গে সফরকারী অস্ট্রেলিয়ার নিরাপত্তাকে তুলনা করতে পারেন।’

দলটির নিরাপত্তা প্রসঙ্গে তিনি গণমাধ্যমকে জানান, ‘অস্ট্রেলিয়ার জন্য হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরে দুই স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। প্রথম স্তরের আওতায় বিমান বন্দরের ভেতরে থাকবে এপিবিএন আর বাইরে থাকবে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের নিরাপত্তা কর্মীরা। বিমানবন্দর থেকে টিম হোটেলে দলটিকে চার স্তরের নিরাপত্তা কর্মীরা নিয়ে যাবে। এর আওতায় টিম বাসের সামনে ও পেছনে দুটি করে নিরাপত্তা গাড়ি থাকবে। আর টিম হোটেল পর্যন্ত পথে বিভিন্ন মোড়ে থাকবে সাদা পোশাকের নিরাপত্তা দল। একই নিরাপত্তা বজায় থাকবে টিম হোটেল থেকে ভেন্যু ও ভেন্যু থেকে দেশ ছাড়ার সময় বিমানবন্দরে যাওয়া পর্যন্ত। পাশাপাশি তাদের চলাচলের জন্য থাকবে বিশেষ ট্রাফিক ব্যবস্থা।’

আর মাঠে খেলা চলাকালীন সময়ে পুরো স্টেডিয়ামই মুড়ে দেয়া হবে নিরাপত্তার চাদরে। এই ধারাবাহিকায় স্টেডিয়োমে থাকবে চার স্তরের নিরাপত্তা; মাঠের ভেতরের নিরাপত্তা, গ্যালারির নিরাপত্তা, স্টেডিয়ামের ভেতরের গেইট ও বাইরের গেইট, যেখানে থাকবে পর্যাপ্ত আইন শৃঙ্খলা বাহিনী। শুধু তাই না, মাঠের আশে পাশে বড় বড় ভবন গুলোতেও সতর্ক অবস্থান নেবে সাদা পোশাকের আইন শৃঙ্খলা বাহিনী।

নিরাপত্তার চাদর থেকে বাদ পড়বে না দর্শকরাও-বললেন ডিআইজি মারুফ। তিনি বলেন, ‘ম্যাচ শুরুর তিন ঘণ্টা আগে দুপুর আড়াইটায় গেইট খোলা হবে। মাঠে সবাইকে অবশ্যই টিকিট ও বৈধ পাশ নিয়ে আসতে হবে। মাঠে প্রবেশের সময় নিরাপত্তা কর্মীরা বেশ সতর্কতা নিয়ে নিরাপত্তা তল্লাশি চালাবেন। দর্শকরা মাঠে শুধুমাত্র মোবাইল নিয়ে প্রবেশ করতে পারবেন। কোনো ব্যাগ, পানির বোতল, ছুঁড়ি কিংবা ক্যামেরা নিয়ে মাঠে প্রবেশ করা যাবে না।’

সোমবার রাত ৮টায় সিঙ্গাপুর থেকে একটি বিশেষ চাটার্ড ফ্লাইটে অস্ট্রেলিয়ান ফুটবল দল ঢাকা হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরে অবতরণ করবে বলে জানান বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ। এর আগে দলটির একই দিন সন্ধ্যা ৬টায় আসার কথা থাকলেও পরে তা বাতিল হয়। ২৪ ঘন্টার সংক্ষিপ্ত এই সফরে এসে সকারুরা ১৭ নভেম্বর বিকেল সাড়ে ৫টায় বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে বাংলাদেশের বিপক্ষে ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইয়ের দ্বিতীয় লেগে মুখেমুখি হবে। প্রথম লেগে পার্থে অস্ট্রেলিয়ার কাছে ৫-০ গোলে হেরেছিল বাংলাদেশ।