১১ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

প্যারিসে হামলার নেতিবাচক প্রভাব এশিয়ার পুঁজিবাজারে

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে সন্ত্রাসী হামলার ধাক্কা লেগেছে এশিয়ার পুঁজিবাজারগুলোতে। তবে এ পতনকে আরও ত্বরান্বিত করেছে জাপানের অর্থনীতিতে মন্দার খবর। আর বিপরীত ছিল শুধু ভারতের সূচক। বিহার নির্বাচনের ফলে গত কয়েকদিন সেনসেক্স বড় পতনের পরে সোমবারে তা কিছুটা ঘুরে দাঁড়িয়েছে দিনটিতে সেনসেক্স বেড়েছে দশমিক ৫৮ শতাংশ। তবে পাকিস্তানের করাচী সূচক দিনটিতে দশমিক ৬১ শতাংশ কমেছে।

মার্কেটওয়াচ ও সিএনবিসিরি খবরে বলা হয়েছে, প্যারিস হামলার পর সোমবার সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে দরপতনের মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে এশিয়ার অধিকাংশ পুঁজিবাজার। চীনের হংকংয়ের হ্যাং সেং সূচক এদিন ১.৮১ শতাংশ পড়ে যায়। দক্ষিণ কোরিয়ার কোসপি সূচক ছিল ১.৫৩ শতাংশ মাইনাসে। জাপানের বাজারে নিক্কেই সূচক ও অস্ট্রেলিয়ার এসএন্ডপি/এএসএক্স সূচক যথাক্রমে ১.০৪ ও .৯৪ শতাংশ দরপতনের মধ্য দিয়ে লেনদেন শেষ হয়। তবে অধিকাংশ পুঁজিবাজার নেতিবাচক ধারার মধ্য দিয়ে চললেও চীনের সাংহাই কম্পোজিং সূচক এদিন বেড়েছে .৭৩ শতাংশ।

এদিকে শুক্রবার প্যারিসে একযোগে সন্ত্রাসী হামলায় আইএসকে দায়ী করে তাদের বিরুদ্ধে বিমান হামলা বাড়িয়েছে ফ্রান্স। এ ঘটনায় বাজারে আরও নেতিবাচক প্রভাব পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছেন অর্থনীতিবিদরা। তমোহিরো ওকায়া নামের জাপানের একজন অর্থনীতিবিদ বলেছেন, এ ধরনের হামলায় বাজারে অনিশ্চয়তা সৃষ্টি ছাড়া আমি কিছু দেখি না।

সোমবার সকালের দিকে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে দেখা যায়, তৃতীয় প্রান্তিকে জাপানের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি .৮ শতাংশ কমছে। এর আগের প্রান্তিকেও এ প্রবৃদ্ধি .৭ শতাংশ কমে যায়। তার মানে দেশটির অর্থনীতিতে যে মন্দার কবলে পড়েছে তা বলা যায়। এ নিয়ে প্রেসিডেন্ট শিনজো আবের অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারের অগ্রগতি নিয়ে সমালোচনা করেছেন অর্থনীতিবিদরা।

ডিএসই ব্রোকার্স এ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের এজিএম অনুষ্ঠিত

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ ডিএসই ব্রোকার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের প্রথম বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে গত শনিবার। এ সভাটি রাজধানীর একটি স্থানীয় হোটেলে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বক্তব্য দেন অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট আহসানুল ইসলাম টিটু। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন অ্যাসোসিয়েশনের অন্যান্য সকল পরিচালক। সভায় সভাপতিত্ব করেন অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট আহসানুল ইসলাম টিটু। বিপুলসংখ্যক সদস্যের উপস্থিতিতে বার্ষিক সাধারণ সভায় ২০১৪-১৫ অর্থবছরের পরিচালনা পর্ষদের প্রতিবেদন গ্রহণ, বিবেচনা ও ৩০ জুন ২০১৫ তারিখে সমাপ্ত অর্থবছরের নিরীক্ষিত হিসাব এবং নিরীক্ষকের প্রতিবেদন গ্রহণ এবং পরবর্তী বছরের নিরীক্ষক নিয়োগ বিবেচনা সর্বসম্মতিভাবে অনুমোদিত হয়।