১৬ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

হামলার মূল হোতা চিহ্নিত, আইএসকে ধ্বংস করব ॥ পার্লামেন্টে ওলাঁদ

হামলার মূল হোতা চিহ্নিত, আইএসকে ধ্বংস করব ॥ পার্লামেন্টে ওলাঁদ
  • নিহতদের স্মরণে ইউরোপজুড়ে নীরবতা

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ প্যারিসে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলায় নিহতদের স্মরণে সোমবার ইউরোপজুড়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়েছে। শুক্রবারের এই হামলার পেছনে আবদেল হামিদ আবাউদ নামে একজনের নাম জানা গেছে। তিনি মরক্কান বংশোদ্ভূত বেলজিয়ামের নাগরিক। বর্তমানে সিরিয়ায় অবস্থান করছেন তিনি। তাকে শুক্রবারের প্যারিস হামলাসহ ইউরোপের আরও কয়েকটি সন্ত্রাসী হামলার মূল হোতা বলে সন্দেহ করা হচ্ছে। সোমবার এক ফরাসী গোয়েন্দা সংস্থা এ খবর প্রকাশ করে। হামলায় অংশ নেয়া সালেহ আবদেসালাম নামে এক বেলজীয় নাগরিককে হন্যে হয়ে খুঁজছে পুলিশ। এদিকে জঙ্গীরা ফ্রান্সে আরও হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে সতর্ক করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ম্যানুয়েল ভালস। খবর বিবিসি, এএফপি ও আলজাজিরা অনলাইনের।

ভালস বলেন, এ বছর ফরাসী গোয়েন্দারা অন্তত ৫বার জঙ্গী হামলা ঠেকাতে পেরেছে। আরও হামলা ঠেকাতে ফ্রান্সজুড়ে জঙ্গীদের খোঁজে বাড়ি বাড়ি তল্লাশি চালিয়ে ২৩ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ সময় গৃহবন্দী করা হয়েছে অন্তত ১০৪ জনকে। অভিযানে কালাশনিকভ রাইফেল এবং রকেট লঞ্চারসহ বহু অস্ত্রও উদ্ধার করা হয়েছে বলে ফরাসী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বানার্ড কাজেনভ জানিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী ভালস বলেন, প্যারিসের হামলায় জড়িত ৭ জনের নাম ও ছবি প্রকাশ করা হয়েছে। এরা হলেন সালেহ আবদেসালাম, বয়স ২৬ বছর। মোহাম্মদ আবদেসালাম। ইব্রাহিম আবদেসালাম, বয়স ৩১ বছর। ওমর ইসমাইল মোস্তফাই, বয়স ২৯ বছর। বিলাল হাদফি বয়স ২০ বছর। আহমেদ আলমোহাম্মদ, বয়স ২৫ বছর এবং সামি আমিমুর বয়স ২৮ বছর।

ফরাসী প্রেসিডেন্ট ফ্রাঁসোয়া ওলাঁদ তার মন্ত্রিসভার সদস্যদের নিয়ে সরবোন বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের নীরবতা পালন কর্মসূচীতে অংশ নেন। এ সময় শত শত লোক দাঁড়িয়ে নিহতদের স্মরণ করে। তবে সবচেয়ে বেশি লোক জড়ো হয় বাতাক্লাঁ কনসার্ট হলে। নীরবতা পালন কর্মসূচীতে অংশ নেন বিশ্ব নেতারাও। জি-২০ সম্মেলন উপলক্ষে তুরস্কে অবস্থানরত ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন, জার্মান চ্যান্সেলর এ্যাঙ্গেলা মেরকেল, ইতালির প্রধানমন্ত্রী মাত্তেউ রেনজি ছাড়া অন্যান্য বিশ্বনেতা এক মিনিট নীরবতা পালন করেন। পাশাপাশি ইংল্যান্ড ফুটবল দলের সদন্যরাও এই কর্মসূচীতে অংশ নেয়। মাদ্রিদ, বার্লিন, আমস্টারডাম, রোম, কোপেনহেগেনসহ অন্যান্য শহরে নীরবতা কর্মসূচী পালিত হয়। প্যারিসে সন্ত্রাসী হামলায় নিহতদের প্রতি সম্মান জানাতে বৃহস্পতিবার সূর্যাস্ত পর্যন্ত হোয়াইট হাউস ও যুক্তরাষ্ট্রের অন্য সরকারী ভবনগুলোতে দেশটির জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা হবে। রবিবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা এ নির্দেশ দিয়েছেন। বিদেশের সব মার্কিন দূতাবাস ও মিশনেও মার্কিন পতাকা অর্ধনমিত থাকবে।

ফরাসী কর্মকর্তারা বলছেন, ছয় হামলাকারী আত্মঘাতী বোমায় নিহত হয় এবং সপ্তম ব্যক্তি পুলিশের সঙ্গে গুলিবিনিময়ে মারা যায়। অন্যদের খোঁজে তদন্তকারীরা বেলজিয়ামের দিকে দৃষ্টি দিয়েছেন। সেখানকার কর্তৃপক্ষ ব্রাসেলসের এক দরিদ্র এলাকা মোলেনবিক থেকে কয়েকজনকে গ্রেফতার করেছে।

আইএস ধ্বংস করব- ওলাঁদ ॥ ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ফ্রাঁসোয়া ওলাঁদ বলেছেন, আইএসকে ধ্বংস করব। শুক্রবারের হামলার পর তথাকথিত ইসলামিক স্টেট গ্রুপকে নির্মূল করতে ফ্রান্স বদ্ধপরিকর। তিনি বলেন, জরুরী অবস্থার মেয়াদ তিন মাস বৃদ্ধি এবং সংবিধানে প্রয়োজনীয় সংশোধনী আনতে একটি বিল উত্থাপন করা হবে। একই সঙ্গে ইরাক ও সিরিয়ায় ফ্রান্সের সামরিক বাহিনী অভিযান আরও জোরদার করা হবে। ফরাসী পার্লামেন্টের উভয়কক্ষের যৌথ অধিবেশনে সোমবার ভাষণদানকালে ওলাঁদ বলেন, সংবিধানে এমন সংশোধনী আনা প্রয়োজন যাতে জরুরী অবস্থা জারি না করেই সমস্যা মোকাবেলা করা যায়।

তিনি বলেন, এছাড়া আগামী দুই বছরের মধ্যে অতিরিক্ত পাঁচ হাজার পুলিশ নিয়োগ করা হবে এবং প্রতিরক্ষা বাজেটে নতুন করে কোন কাটছাঁট করা হবে না। ফ্রান্সের কোন নাগরিক সন্ত্রাসের জন্য অভিযুক্ত হলে তার দ্বৈত নাগরিকত্ব বাতিল করা হবে। দেশের নিরাপত্তার জন্য হুমকি হতে পারে এমন বিদেশীদের ফ্রান্স থেকে দ্রুত বহিষ্কার করা হবে।