২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

তবে কি এখনও টি২০তে অন্ধকারে বাংলাদেশ!

তবে কি এখনও টি২০তে অন্ধকারে বাংলাদেশ!

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ওয়ানডে ক্রিকেটে বিশ্ব ক্রিকেটে ক্রমেই পরাশক্তিতে রূপান্তরিত হয়েছে বাংলাদেশ। যে কোন দলই এখন টাইগারদের সমঝে মোকাবেলা করে। কিন্তু টি২০ ক্রিকেটের ধাঁচটা এখনও বুঝে উঠতেই পারেনি ওয়ানডে ক্রিকেটের অন্যতম শক্তিধর হয়ে ওঠা দলটি। সফরকারী জিম্বাবুইয়ের বিরুদ্ধে দুই ম্যাচের টি২০ সিরিজে ওই স্বরূপটাই বেরিয়ে এসেছে। দুই ম্যাচেই টি২০ ক্রিকেটের যে উত্তেজনা, টি২০ ক্রিকেটে যে ধরনের খেলা সেটা উপহার দিতে ব্যর্থ হয়েছে মাশরাফি বিন মর্তুজার দল। আর সে কারণেই দ্বিতীয় টি২০ ম্যাচে জিম্বাবুইয়ের কাছে হারতে হয়েছে। আগামী বছরের শুরুর দিকেই আছে দুটি বড় আন্তর্জাতিক টি২০ আসর। ১১ মার্চ ভারতে শুরু হবে টি২০ বিশ্বকাপ। এর ঠিক আগেই বাংলাদেশ আয়োজন করবে প্রথমবারের মতো টি২০ ফরমেটের এশিয়া কাপ। এর আগেই টি২০ ক্রিকেটের সঙ্গে নিজেদের মানিয়ে ওঠা এবং ক্ষুদ্রতর ফরমেটের এ ক্রিকেটকে বুঝে ওঠার শেষ সুযোগ বলা যেতে পারে আসন্ন বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ (বিপিএল) টি২০।

গত বছর টি২০ বিশ্বকাপ বাংলাদেশ আয়োজন করেছিল। মূল পর্বে অন্য টেস্ট খেলুড়ে দেশগুলোর সঙ্গে খেলার জন্য প্রাথমিক রাউন্ডে সহযোগী সদস্য দেশগুলোর বিরুদ্ধে খেলতে হয়েছে। আর সেখানে হংকংয়ের মতো দলের কাছেও হেরে গেছে বাংলাদেশ দল। বর্তমানে ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ে ৭ নম্বরে উঠে আসলেও টি২০ ক্রিকেটে অবস্থান ১১ নম্বরে। টেস্ট খেলুড়ে দেশ হয়েও বাংলাদেশ পিছিয়ে আছে আইসিসির দুই সহযোগী সদস্য দেশ আফগানিস্তান (৯) ও হংকংয়ের (১০) চেয়ে। আর জিম্বাবুইয়ে আছে ১৪ নম্বরে। জিম্বাবুইয়ে এবার বাংলাদেশ সফরে আসার আগেই ঘরের মাটিতে টি২০ সিরিজে আফগানিস্তানের কাছে ২-০ ব্যবধানে হোয়াইটওয়াশ হয়েছে। সেই জিম্বাবুইয়ের বিরুদ্ধে প্রথম টি২০ ম্যাচে বাংলাদেশ দল যে নৈপুণ্য দেখিয়েছে সেটা রীতিমতো বাজে রকমের। অহেতুক শট খেলতে গিয়ে উইকেট ছুঁড়ে দিয়ে এসেছেন ব্যাটসম্যানরা। ১৩২ রানের মামুলি লক্ষ্য তাড়া করতে গিয়েই প্রায় হারতে বসেছিল বাংলাদেশ।

দ্বিতীয় ম্যাচেও ব্যাটিংয়ের বাজে প্রদর্শনী। এবার আর ভাগ্য সহায়ক হয়নি। ব্যাটে-বলে বাংলাদেশের চেয়ে ভাল খেলেই জয় তুলে নিয়েছে জিম্বাবুইয়ে। আর এ পরাজয়ের মাধ্যমেই বাংলাদেশ দলের টি২০ ক্রিকেটে অবস্থানটা নিশ্চিত হয়ে গেছে। টেস্ট খেলুড়ে দেশ হয়েও বাংলাদেশ দলকে টি২০ বিশ্বকাপের অন্য টেস্ট মর্যাদাসম্পন্নদের সঙ্গে মূলপর্বে খেলার আগে প্রাথমিক রাউন্ডে অবতীর্ণ হতে হয়। এর কারণ ধারাবাহিকভাবে টি২০ ক্রিকেটে বাংলাদেশ দলের ব্যর্থতা। এবারও আসন্ন বিশ্বকাপে এই দলগুলোর সঙ্গে বাংলাদেশকে লড়তে হবে। সেখানে আছে আফগানিস্তান, হংকং, হল্যান্ড, স্কটল্যান্ড ও আয়ারল্যান্ডের মতো দল। এর আগেই নিজেদের গুছিয়ে নিতে হবে। তবে বিশ্বকাপের আগেই বাংলাদেশ দলের আসল পরীক্ষা হবে এশিয়া কাপ টি২০ আসরে। সেখানে ভারত, পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে খেলতে হবে। আর এখানে বাংলাদেশের নৈপুণ্যই প্রমাণ করবে দলের যোগ্যতা ও সামর্থ্য। টি২০ ক্রিকেট ভিন্ন মেজাজের ও স্বাদের খেলা সেটা বুঝে ওঠার জন্য বিপিএলে ভাল অনুশীলন করার সুযোগ আছে দেশের ক্রিকেটারদের। এখন পর্যন্ত ৪৬ টি২০ খেলে মাত্র ১৩ ম্যাচ জিততে পেরেছে বাংলাদেশ, পরিবর্তে হেরেছে ৩২ ম্যাচ, একটি পরিত্যক্ত হয়েছে।