১৫ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আশুলিয়ায় জেএসসি পরীক্ষার্থীদের বাসে হামলা, ভাংচুর

নিজস্ব সংবাদদাতা, সাভার, ১৭ নবেম্বর ॥ জেএসসি পরীক্ষার্থী বহনকারী দু’টি বাসে স্থানীয় বখাটেদের হামলায় বিদ্যালয়ের দু’ শিক্ষকসহ পাঁচ শিক্ষার্থী আহত হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে আশুলিয়া থানাধীন ভাদাইলের পবনারটেক এলাকায় আশরাফ আলী ও স্বাক্ষর নামের বখাটে দলবলসহ শিক্ষার্থীদের ওপর এ হামলা চালায়। এসময় পিয়ার আলী ও হাজী ওয়াজ উদ্দিন বিদ্যালয়ের লুৎফর রহমান ও ইউনুস আলী নামের দু’ শিক্ষকসহ পাঁচ শিক্ষার্থী আহত হয়। আহত শিক্ষার্থীরা হচ্ছে জেসমিন, রিমা, তনিমা দাস, সুজন ও মীম।

জানা গেছে, শিক্ষার্থীরা সকাল ১০টায় অনুষ্ঠিতব্য আশুলিয়া থানাধীন ঘোড়াপীর মাজার এলাকাস্থ ‘আলহাজ জাফর ব্যাপারী উচ্চ বিদ্যালয়’-এ তাদের পরীক্ষা কেন্দ্রে বাসযোগে যাচ্ছিল।

সকাল নয়টার দিকে বাসটি ভাদাইল এলাকায় পৌঁছলে স্থানীয় বখাটে আশরাফ আলীর বাড়িতে নেয়া রাস্তার মাঝে ঝুলে থাকা বৈদ্যুতিক সংযোগ তারের সঙ্গে আটকে যায়। পরে তারটি ছিঁড়ে গেলে বখাটে আশরাফ, স্বাক্ষর ও ৮/১০ বখাটে এক লাখ টাকা ক্ষতিপূরণের দাবিতে বাসটি আটকে রাখে। ‘পরীক্ষা শুরু হয়ে যাবে’- শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের এমন অনুরোধ সত্ত্বেও বখাটেরা বাসের হুইপার ভেঙ্গে ফেলে ও শিক্ষকদের কিল-ঘুষি মারা শুরু করে। এ সময় বখাটেরা শিক্ষার্থীদেরও এলোপাতাড়ি চড়-থাপ্পড় মারে ও বাসের গ্লাস ভেঙ্গে ফেলে। এতে ভাঙ্গা কাঁচের আঘাতে ও মারপিটে পাঁচ শিক্ষার্থী আহত হয়। স্থানীয় লোকজন সেখানে ছুটে এলে বখাটেরা সেখান থেকে চলে যায়। আহত শিক্ষক ইউনুস আলী ও লুৎফর রহমান জানান, এ ঘটনার কারণে শিক্ষার্থীরা পরীক্ষা শুরু হওয়ার ৩০ মিনিট পর কেন্দ্রে পৌঁছে।

এতে প্রায় সকল শিক্ষার্থীর পরীক্ষা খারাপ হয়েছে। পরীক্ষা শেষে শিক্ষার্থীরা বখাটে আশরাফ ও স্বাক্ষরসহ অন্যদের শাস্তির দাবিতে থানা এলাকায় অবস্থান নেয়। এ সময় পুলিশের উর্ধতন কর্মকর্তার আশ্বাসে তারা ফিরে যায়।