১৭ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

অনেক চাপের মধ্যে ছিলাম ॥ ফেদেরার

অনেক চাপের মধ্যে ছিলাম ॥ ফেদেরার

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ জয় দিয়েই শুরু করেছেন এটিপি ওয়ার্ল্ড ট্যুর। লন্ডনে শুরু হওয়া এ আসরে সরাসরি সেটে গ্রুপ পর্বে স্ট্যান স্মিথ গ্রুপের প্রথম ম্যাচে তিনি হারিয়েছেন টমাস বার্ডিচকে। শুরুতেই একটি ব্রেক পয়েন্ট জিতে অবশ্য ফেদেরারকে বিপদে ফেলেছিলেন বার্ডিচ। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ১ ঘণ্টা ৯ মিনিটের লড়াইয়ে জিতে যান সুইস তারকা। জয় পান ৬-৪, ৬-২ সেটে। ম্যাচ শেষেও নিজের ওপর অনেক বড় চাপ ছিল সেটা স্বীকার করেছেন ফেদেরার। বিশ্বের এক নম্বর সার্বিয়ার নোভাক জোকোভিচও দারুণ জয়ে শুরু করেছেন। তিনি জাপানের কেই নিশিকোরিকে হারিয়ে দেন ৬-১, ৬-১ সেটে।

ম্যাচ শুরুর পরই পিছিয়ে পড়েন ফেদেরার। ব্রেক পয়েন্ট জিতে তাকে চাপে ফেলেন বার্ডিচ। তবে সেই বিপদ কাটিয়ে উঠে টানা দুই সেট জিতে যান তিনি। এজন্য নিজের ওপর অনেক বেশি চাপ প্রয়োগ করতে হয়েছে ফেদেরারকে। কিন্তু বার্ডিচের বিরুদ্ধে নিজের নৈপুণ্যটা আরও ভাল হবে আশা করেছিলেন তিনি। এ বিষয়ে ৩৪ বছর বয়সী ফেদেরার বলেন, ‘এটা প্রথম রাউন্ডের মতো। সুতরাং খুব বেশি নিজের থেকে আশা করা ঠিকও না। হয়তো হতে পারে আমি শেষ পর্যন্ত জিতে গেছি। কিন্তু আমার মনে হয় অনুশীলনে আমি এরচেয়েও ভাল খেলেছিলাম। আমার খুব ভাল একটা বছর গেছে। আমার মনে হয়েছিল আরেকটু স্বস্তিবোধ প্রয়োজন ছিল। কিন্তু আমি সেটা পারিনি। আমি নিজেকে অপ্রয়োজনীয় কিছু বাড়তি চাপের মধ্যে রেখেছিলাম শুরুতে। সেকেন্ড সার্ভের সময় নিজেকে এগিয়ে রাখতে প্রচুর সচেষ্ট ছিলাম। আমার মনে হয়েছে নিজের সঠিক ছন্দটা ভালভাবে দেখাতে পারিনি আমি। আর এগুলোই আমার ভুল ছিল এবং সে সবই আমাকে চাপের মধ্যে ফেলেছে। ভাল ব্যাপার যে আমি খুব দ্রুতই এ বিষয়টি বুঝে সেভাবে প্রতিক্রিয়া জানাতে পেরেছি।’ পরের ম্যাচে ফেদেরার মুখোমুখি হবেন বিশ্বসেরা সার্বিয়ান তারকা জোকোভিচের। সেটা আরও চাপের ম্যাচ হবে বলে মনে করছেন ফেদেরার।

জোকোভিচ উড়ন্ত সূচনা করেছেন প্রথম ম্যাচেই। নিশিকোরি কোন পাত্তাই পাননি তার কাছে। এবার আরেকটি চাপের ম্যাচ অপেক্ষা করছে ফেদেরারের জন্য। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘এটা আসলে কন্ডিশনের কোন ব্যাপার নয়। বরং প্রত্যাশা এবং চাপের বিষয়। গ্রুপের প্রথম ম্যাচ জেতার একটা প্রত্যাশার চাপ এটা। আর গ্রুপে নোভাক থাকার কারণে তা আরেকটু বেশিই হওয়ার কথা। কেউ যদি তাকে হারাতে পারে সেটা সত্যিই অনেক বড় বিস্ময়কর ব্যাপার হবে। আর যদি সেটা না হয় সেক্ষেত্রে বলা যেতে পারে প্রত্যাশা মাফিক ফলাফলই হয়েছে। কিন্তু বার্ডিচের বিরুদ্ধে ম্যাচটায় আমার বিশেষ মনোযোগ ছিল। আমি খুশি যে ম্যাচটা শেষ হয়েছে এবং আমি জিতেছি। এখন আমি প্রস্তুত পরবর্তী ম্যাচে নোভাকের মুখোমুখি হওয়ার জন্য।’