১৯ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

টেলিটকের অভ্যন্তরীণ অনিয়ম তদন্তে কমিটি হবে’

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ রাষ্ট্রায়ত্ত মোবাইল অপারেটর টেলিটকের অভ্যন্তরীণ অনিয়ম-দুর্নীতি এবং অবৈধ ভিওআইপি কারবারি তদন্ত করতে একটি উচ্চ পর্যায়ের তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে বলে জানিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম।

উচ্চ পর্যায়ের এই কমিটি টেলিটকের স্থবিরতার কারণও উদঘাটন করবে বলে জানান প্রতিমন্ত্রী।

বুধবার গুলশানে টেলিটকের করপোরেট অফিসে অপারেটরটির কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের একথা জানান তিনি।

তারানা হালিম বলেন, উচ্চ পর্যায়ের তদন্ত কমিটি টেলিটকের অভ্যন্তরীণ তদন্ত করবে। অবৈধ ভিওআইপির অভিযোগ কেন টেলিটকের বিরুদ্ধে হচ্ছে তাও দেখা হবে। কোন দুর্নীতি হচ্ছে কিনা- তার তদন্ত করে প্রতিবেদন তৈরি করে জমা দেবে কমিটি।

কমিটির প্রতিবেদন পাওয়ার পর সম্পূর্ণ সংস্কার করা হবে বলে জানান প্রতিমন্ত্রী।

রাষ্ট্রায়ত্ত এই অপারেটরটির বিরুদ্ধে সেবার নিম্নমান ছাড়াও কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে।

তারানা হালিম বলেন, আমি কারও কাছে এই বার্তা দিতে চাই না যে টেলিটকের প্রতি বিমাতাসুলভ আচরণ করছি। টেলিটকের যেন স্থবিরতা না থাকে, অবৈধ ভিওআইপি না থাকে সে সব বিষয়ে তদন্ত কমিটি স্বচ্ছভাবে কাজ করবে। কমিটিতে বিটিআরসি, টেলিটক বা অন্য কোন অপারেটরের লোকজনও থাকবে না।

এ প্রসঙ্গে তারানা হালিম বলেন, এমন কোনো ব্যক্তিকে রাখতে চাই না যার কোন রকম কনফ্লিট অব ইনটারেস্ট থাকে, যারা টেলিটককে প্রতিযোগিতায় হারিয়ে দিতে আগ্রহী। স্বচ্ছভাবে এই কমিটি গঠিত হবে।

আগামী ৩/৪ দিনের মধ্যে এই তদন্ত কমিটি গঠন হবে জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, কমিটিতে গবেষক, শিক্ষক, তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ এবং টেকনিক্যাল লোকজন রাখা হবে।

এর আগে ফেসবুকের মাধ্যমে নেওয়া টেলিটকের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ ও পরামর্শ নিয়ে কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনা করেন প্রতিমন্ত্রী। তিনি বলেন, এই অভিযোগের কোনটিই প্রমাণিত না হতে পারে, এটি একেবারে নিছক বা অমূলকও হতে পারে, আবার প্রমাণিতও হতে পারে। টেলিটকের এমডি’র কাছে অভিযোগগুলোর লিখিত জবাব চান প্রতিমন্ত্রী।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব ফয়জুর রহমান চৌধুরী ছাড়া টেলিটকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) গিয়াস উদ্দিন এবং কর্মকর্তারা এসময় উপস্থিত ছিলেন।