২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পণ্য পরিবহনে প্রতিটনে ১৯২ টাকা মাসুল দেবে ভারত

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশের ভেতর দিয়ে পণ্য পরিবহনে প্রতিটনে ১৯২ টাকা মাসুল দেবে ভারত। নয়াদিল্লীতে দু’দেশের নৌ সচিব পর্যায়ের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়েছে। ট্রানজিটের আওতায় পণ্য পরিবহনের মাসুল আদায়ের ফলে দুই দেশই লাভবান হবে, বলছেন বিশ্লেষকরা।

চলতি বছরের জুনে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঢাকা সফরের সময়েই দু’দেশের মধ্যে ট্রানজিটের মাধ্যমে পণ্য পরিবহনের সিদ্ধান্ত হয়। সোমবার নয়াদিল্লীতে শুরু হওয়া সচিব পর্যাযের বৈঠকে এ নিয়ে বিস্তারিত আলোচনার পর চূড়ান্ত হলো মাসুল।

ট্রানজিটের আওতায় ভারতের কলকাতা বন্দর থেকে পণ্য মংলার রায়মঙ্গল দিয়ে ঢুকবে বাংলাদেশে। সেখান থেকে নৌপথে যাবে আশুগঞ্জ বন্দরে। এরপর সে পণ্য সড়কপথে আখাউড়া স্থলবন্দর হয়ে ৫১ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে যাবে ভারতের আগরতলায়। ১৯২ টাকা মাসুলের মধ্যে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চার্জ ১৩০ টাকা। নৌপরিহন কর্তৃপক্ষের তদারকি চার্জ থাকবে ১০ টাকা। আর সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ পাবে ৫২ টাকা। এর বাইরে পণ্য পরিবহনে নিরাপত্তা দেয়া হলে প্রতিটনে অতিরিক্ত ৫০ টাকা চার্জ পরিশোধ করতে হবে ভারতকে।

সাবেক অর্থ উপদেষ্টা এ বি মির্জা আজিজুল ইসলাম জানান, ট্রানজিট সংক্রান্ত জাতীয় কোর কমিটির আহবায়ক জানান, দূরত্ব বিবেচনায় তারা একটি ফি সরকারের কাছে দিয়েছিল। নির্ধারিত ফি তাদের দেয়া হিসাবের তুলনায় কম হয়ে গেছে।

ট্রানজিট সংক্রান্ত জাতীয় কোর কমিটির আহবায়ক মজিবুর রহমান ও বিআইডিএস সিনিয়র রিসার্চ ফেলো মোহাম্মদ ইউনুস বলেন, নৌ, সড়ক ও রেলে ট্রানজিটের ক্ষেত্রে আলাদা আলাদা চুক্তি হলেও সমন্বয়ের জন্য একটি সংস্থাকেই দায়িত্ব দিতে হবে।