২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

প্রেমে সাড়া না পেয়ে স্কুলছাত্রীকে তুলে নিয়ে নির্যাতন

  • বখাটে গ্রেফতার

নিজস্ব সংবাদদাতা, কেরানীগঞ্জ, ১৮ নবেম্বর ॥ প্রেম প্রত্যাখ্যান করায় নবম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে স্কুল থেকে ফেরার পথে তুলে নিয়ে ৪ ঘণ্টা আটকে রেখে নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ সময় ওই ছাত্রীর হাতসহ বিভিন্ন স্থানে চাকু দিয়ে রক্তাক্ত জখম করা হয়। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় কেরানীগঞ্জের আগানগর ইস্পাহানী আবাসিক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ অভিযুক্ত বখাটে মাহবুবকে (২৩) গ্রেফতার করেছে।

জানা গেছে, ইস্পাহানী আবাসিক এলাকায় ওই ছাত্রীকে নিয়ে তার মা বসবাস করেন। মেয়েটির বাবা স্কুল শিক্ষক আঃ খালেক কয়েক বছর আগে মারা যান। নির্যাতিত ছাত্রী জানায়, পার্শ্ববর্তী বাড়িওয়ালা আনোয়ার হোসেন বাবুর বখাটে ছেলে মাহবুব তাকে প্রেম নিবেদন করে নানাভাবে উত্ত্যক্ত করত। এতে সে সাড়া না দেয়ায় মঙ্গলবার দুপুর ২টার দিকে স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে মাহবুব জোরপূর্বক তাকে টেনেহিঁচড়ে ওদের বাড়িতে নিয়ে আটকে রাখে।

এ সময় মাহবুব তার ওপর নানা কায়দায় নির্যাতন চালায়। মেয়েটি চিৎকার করায় তার মুখে কাপড় গুঁজে দিয়ে চাকু দিয়ে হাতসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে রক্তাক্ত জখম করে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মাহবুরের বাবা আনোয়ার হোসেন বাবুকে আটক করে।

পরে ছেলেকে পুলিশের হাতে তুলে দিলে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়। এদিকে ইস্পাহানী আবাসিক এলাকা বাড়ি মালিক সমিতির সভাপতিসহ প্রভাবশালী একটি মহল ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে জোর চেষ্টা করেন বলে অভিযোগ উঠে।

সাক্ষাতকারের সময়সূচীর পরিবর্তন

চবি ডি ইউনিট ভর্তি

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ডি-ইউনিটের (সমাজবিজ্ঞান অনুষদ) ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের ১ম বর্ষ বিএসএস (সম্মান) শ্রেণীর লিখিত ভর্তি পরীক্ষায় মেধা তালিকায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের ভর্তির সাক্ষাতকার পেছানো হয়েছে। ১৯ নবেম্বরের পরিবর্তে আগামী ২১ নবেম্বর শনিবার সকাল ৯টায় অনুসারে ডিন, সমাজবিজ্ঞান অনুষদ কার্যালয়ে এই সাক্ষাতকার অনুষ্ঠিত হবে। ভর্তি প্রার্থীদের ভর্তি পরীক্ষার প্রবেশপত্র, এসএসসি ও এইচএসসি বা সমমানের মূল রেজিস্ট্রেশন কার্ড, মূল মার্কশীট, মূল সনদ এবং অন্যান্য সনদের মূলকপিসহ ডিন, সমাজবিজ্ঞান অনুষদ অফিস কক্ষে সাক্ষাতকারে উপস্থিত হওয়ার জন্য বলা হয়েছে। যারা নির্দিষ্ট তারিখে ও সময়ে সাক্ষাতকারে উপস্থিত থাকবে না পরবর্তীতে তাদের সাক্ষাতকার গ্রহণ করা হবে না এবং তাদের প্রার্থিতা বাতিল বলে গণ্য হবে। উল্লেখ্য, আসন শূন্য হওয়া সাপেক্ষে পরবর্তীতে অপেক্ষমাণ তালিকা থেকে মেধাক্রমানুসারে সাক্ষাতকারের মাধ্যমে ছাত্রছাত্রী ভর্তি করা হবে। অপেক্ষমাণ তালিকার প্রার্থীদের নিজ দায়িত্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট থেকে (িি.িপঁ.ধপ.নফ) কিংবা ইউনিট কার্যালয়ের সঙ্গে যোগাযোগ রেখে ভর্তি সংক্রান্ত সর্বশেষ তথ্য সংগ্রহের জন্য বলা হয়েছে।