২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বিপিএলের টিকেট ঢাকা ব্যাংকে

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের (বিপিএল-টি২০) তৃতীয় আসরের টিকেট মিলবে ঢাকা ব্যাংকে। এ নিয়ে টিকেট রাইটস উপলক্ষে ঢাকা ব্যাংকের সঙ্গে ‘মিউজিক সুপার স্টার’ এর এক সমঝোতা চুক্তি হয়েছে। ঢাকা ব্যাংকের পক্ষে খন্দকার আনোয়ার এহতেশাম ও মিউজিক সুপার স্টারের পক্ষে সিইও সাব্বির হোসেন নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে চুক্তি সই করেন। সমঝোতা চুক্তি অনুযায়ী ঢাকা ব্যাংক টিকেট বিক্রির স্বত্ব পেয়েছে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানসহ বিপিএলের সব খেলার টিকেট ঢাকা ব্যাংকের ঢাকায় অবস্থিত মিরপুর, গুলশান, বনানী, উত্তরা, ধানম-ি, মতিঝিল (লোকাল অফিস) শাখায় মিলবে। আর চট্টগ্রামের আগ্রাবাদ, সিডিএ এভিনিউ ও আন্দরকিল্লা শাখায় পাওয়া যাবে। বিপিএলের উদ্বোধন ও ম্যাচের টিকেট অবশ্য অনলাইনে এরই মধ্যে বিক্রি শুরু হয়ে গেছে। শুক্রবার যে বিপিএলের উদ্বোধন অনুষ্ঠান হবে, সেই টিকেট বিক্রি হয়ে গেছে। মিউজিক সুপার স্টার টিকেট বিক্রির স্বত্ব পেয়েছে আগেই। তারা ঢাকা ব্যাংককে সেটি দিয়েছে। টিকেটের সর্বনিম্ন মুল্য হচ্ছে ২০০ টাকা। ২০০, ৫০০, ১ হাজার, ২ হাজার, ৩৫০০, ৫ হাজার, ৮ হাজার ও ১০ হাজার টাকা মূল্যের টিকেট বিক্রি হচ্ছে।

মার্সেল দাবা লিগ শনিবার শুরু

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ শনিবার থেকে শুরু হতে যাচ্ছে ‘মার্সেল প্রথম বিভাগ দাবা লিগ।’ নয় দিনব্যাপী এ প্রতিযোগিতা চলবে ২৯ নবেম্বর পর্যন্ত। বুধবার এ উপলক্ষে এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এতে ওয়ালটন গ্রুপের ফার্স্ট সিনিয়র এডিশনাল ডিরেক্টর এফএম ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন), মার্সেল মার্কেটিং বিভাগের এ্যাসিস্ট্যান্ট ডিরেক্টর রবিউল ইসলাম (সুমন), বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক গাজী সাইফুল তারেক, সহসভাপতি একেএম শহীদুল্লাহ ও মোসাদ্দেক হোসেনসহ আরও অনেকে।

এ দাবা প্রতিযোগিতায় ১০ দল অংশ নেবে। যার মধ্যে ২টি ২০১৫ সালের প্রিমিয়ার ডিভিশন দাবা লিগ হতে রেলিগেশন প্রাপ্ত হয়ে আসা এবং ২টি দল ২০১৪ সালের দ্বিতীয় বিভাগ দাবা লিগ থেকে চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপ হয়ে প্রথম বিভাগে উন্নীত হওয়া দল। এ টুর্নামেন্টে ৪ নিয়মিত ও ২ অতিরিক্ত দাবাড়ু নিয়ে দাবা দল গঠন করতে হবে। লিগের খেলা রাউন্ড-রবিন লিগ পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত হবে। মার্সেল প্রথম বিভাগ দাবা লিগ চ্যাম্পিয়ন এবং রানার্সআপ দল আগামী ২০১৬ সালের প্রিমিয়ার বিভাগ দাবা লিগে অংশগ্রহণের সুযোগ পাবে। আর রেলিগেশনপ্রাপ্ত দুটি দল দ্বিতীয় বিভাগে নেমে যাবে। চ্যাম্পিয়ন, রানার্সআপ ও তৃতীয় স্থান অর্জনকারী দলকে ট্রফি ও মেডেল দেয়া হবে। এছাড়া প্রত্যেক বোর্ডে শতকরা হারে সর্বোচ্চ ফল লাভকারী দাবাড়ুদের বোর্ড পুরস্কার দেয়া হবে।