১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

তিতাসের শেয়ার নিয়ে কারসাজি

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ তিতাস গ্যাসের মূল্য সংবেদনশীল তথ্য নিয়ে এক ধরনের বিশেষ কারসাজি হয়েছে। ইতোমধ্যে অভিযোগ তদন্তে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের দুই সদস্যের সমন্বয়ে কমিটি গঠন করেছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এ্যান্ড এক্সচেঞ্জে কমিশন (বিএসইসি)। গঠিত এ কমিটিকে কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

জানা গেছে, ভোক্তাপর্যায়ে গ্যাসের মূল্য বাড়লেও বিতরণকারী রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের চার্জ কমেছে। প্রতিষ্ঠানটির আয়ের প্রধান উৎস বিতরণ চার্জ গড়ে প্রায় ৫৮ শতাংশ কমিয়েছে জ্বালানি খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি)। এ ধরনের খবর মূল্য সংবেদনশীল তথ্য। পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানির ক্ষেত্রে এ ধরনের কোন খবর থাকলে তা নিয়ন্ত্রক সংস্থাকে জানানোর কথা। কিন্তু তিতাস গ্যাস কোম্পানি কর্তৃপক্ষ তা জানায়নি। কিন্তু অভিযোগ উঠেছে, কোম্পানির খবর নিয়ন্ত্রক সংস্থাকে না জানালেও এক শ্রেণীর বিনিয়োগকারী আগেই তথ্য পেয়েছে। ফলে গত তিন-চার দিনে তিতাস গ্যাসের অস্বাভাবিক লেনদেন হওয়ার পাশাপাশি শেয়ারের মূল্যও কমে যায়। এমন ঘটনায় বিস্মিত সাধারণ শেয়ারহোল্ডারের পাশাপাশি স্টক এক্সচেঞ্জের পরিচালনা পর্ষদ। এ বিষয়ে সকালে স্টক এক্সচেঞ্জের বেশ কয়েকজন সিনিয়র শেয়ারহোল্ডার বিএসইসির অনুমতি নিয়ে তিতাসের লেনদেন স্থগিত রাখার অনুরোধ করলেও তা করেননি ডিএসইর ব্যবস্থাপনা পরিচালক। অন্যদিকে বিএসইসির পক্ষ থেকে এ কোম্পানির শেয়ারের অস্বাভাবিক লেনদেনের বিষয়টি খতিয়ে দেখার নির্দেশ দেয়।

জানা গেছে, সাধারণ তিতাস গ্যাসের ৩ থেকে ৪ লাখ শেয়ার লেনদেন হলেও ৯ নবেম্বর হঠাৎ করে ৫৩ লাখ শেয়ার লেনদেন হয়। ১০ নবেম্বরও অস্বাভাবিক ৩৯ লাখ শেয়ার লেনদেন হয়। ডিএসইর শেয়ারহোল্ডারদের মধ্যে এ নিয়ে সংশয় তৈরি হয়। এ বিষয়ে সিজিএফআরসি বিভাগের কাছে তারা বিষয়টি জানতেও চান কিন্তু সেখান থেকে বলা হয় অস্বাভাবিক কোন কিছু পাওয়া যায়নি।

এ বিষয়ে ডিএসইর একজন সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট বলেন, ১৫ শতাংশ লভ্যাংশ দেয়ার পর শেয়ারের মূল্য কমতে পারে, এটি স্বাভাবিক। যেহেতু কোম্পানিটি প্রতিবছর ৩০ শতাংশের বেশি লভ্যাংশ দেয়। কিন্তু গত ৭ নবেম্বর থেকে অস্বাভাবিক লেনদেন হলেও বিএসইসি এবং স্টক এক্সচেঞ্জ নীরব দর্শকের ভূমিকা পালন করেছে। ৭ তারিখ থেকেই তিতাসের শেয়ারের দর কমেছিল।