২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রাজনৈতিক বিবেচনায় সাকার সাজা- মুখ খুলেছে বিএনপি

  • খালেদা কাল আসছেন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ অবশেষে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ফাঁসির দণ্ড প্রাপ্ত যুদ্ধাপরাধী সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর (সাকা) বিষয়ে মুখ খুলেছে বিএনপি। বৃহস্পতিবার বিকেলে বিএনপি চেয়ারপার্সনের গুলশান কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে দলের মুখপাত্র ও আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. আসাদুজ্জামান রিপন এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী অপরাধী নয়, রাজনৈতিক বিবেচনায় তাকে সাজা দেয়া হয়েছে। যুদ্ধাপরাধের দায়ে ফাঁসির দণ্ড প্রাপ্ত বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর রিভিউ আবেদন বুধবার খারিজ হওয়ার এক দিন পর দলের পক্ষ থেকে এই প্রথম আনুষ্ঠানিক বক্তব্য দেয়া হলো।

রিপন বলেন, লন্ডন থেকে কাল শনিবার দেশে ফিরছেন বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া। তিনি বলেন, সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী ন্যায় বিচার পাননি। তাঁর অপরাধের চেয়ে রাজনৈতিক পরিচয়কেই বেশি গুরুত্ব দেয়া হয়েছে। দেশের নাগরিক হিসেবে নিজেকে নির্দোষ প্রমাণের যথেষ্ট সুযোগ সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী পাননি। নির্দোষ প্রমাণের জন্য দলিলাদি উপস্থাপন করলেও তা বিবেচনায় নেয়া হয়নি। তার মৌলিক অধিকার ও মানবাধিকার রক্ষা হয়নি। তার দলিলাদি আমলে নেয়া হলে তিনি ন্যায় বিচার পেতেন। সাকার রায়ের প্রতিবাদে বিএনপি কর্মসূচী দেবে কি না জানতে চাওয়া হলে রিপন বলেন, কর্মসূচী দেয়া হলে তা পরবর্তীতে জানানো হবে।

আসাদুজ্জামান রিপন বলেন, বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া শনিবার বিকেল ৫টায় এমিরেটস এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে ঢাকা ফিরছেন। দেশের রাজনৈতিক সঙ্কট ও ক্রান্তিকাল বিবেচনা করে চিকিৎসা শেষ না করেই লন্ডন থেকে দেশে ফিরছেন খালেদা জিয়া।

১৫ সেপ্টেম্বর লন্ডনের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করেন খালেদা জিয়া। ২ মাসেরও বেশি সময় সেখানে অবস্থান করে চোখ ও পায়ের চিকিৎসা ছাড়াও পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে সময় কাটান তিনি। এর মধ্যে খালেদা জিয়া লন্ডন বিএনপি আয়োজিত ক’টি অনুষ্ঠানে যোগ দেন। সেখানে প্রথমে ক’দিন হোটেলে অবস্থান করলেও পরে বড় ছেলে তারেক রহমানের বাসায় ওঠেন তিনি। ছেলে তারেক রহমান ছাড়াও ছেলে বউ ডা. জোবাইদা রহমান, নাতনি জায়মা রহমান, প্রয়াত ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী শর্মিলা রহমান সিথি এবং তার ২ মেয়ে জাফিয়া রহমান ও জাহিয়া রহমানের সঙ্গে একান্তে বেশ কিছুদিন সময় কাটান খালেদা জিয়া। এদিকে খালেদা জিয়ার দেশে ফেরার খবর শুনে বৃহস্পতিবার গুলশান কার্যালয়ে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নের কাজ করা হয়েছে। এ ছাড়া কার্যালয়ের নিরাপত্তা বেষ্টনীতেও লাগানো হয়েছে রং।

রিপন বলেন, প্রতিবছর দলের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের জন্মদিন কেক কেটে উদযাপন করা হলেও এবছর দিনটিতে কেক কেটে উদযাপন না করার জন্য বারণ করেছেন তিনি। কারণ, দলের অনেক নেতাকর্মী কারাগারে আটক আছেন। তবে শুক্রবার তারেক রহমানের জন্মদিন কেক কেটে উদযাপনের পরিবর্তে নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ভাইস চেয়ারম্যান সেলিমা রহমান, বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ড. ওসমান ফারুক, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, গোলাম আকবর খন্দকার, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, সহ-আইন বিষয়ক সম্পাদক এ্যাডভোকেট নিতাই রায়, সহ-দফতর সম্পাদক আবদুল লতিফ জনি, শামীমুর রহমান শামীম প্রমুখ।

এদিকে তারেক রহমানের ৫১তম জন্মদিন উপলক্ষে বিকেলে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে বিএনপির মুখপাত্র আসাদুজ্জামান রিপন বলেন, এখনও দুঃশাসনের হুমকি প্রতিদিনই তারেক রহমানের ওপর বর্ষিত হচ্ছে। ক্ষমতা জবরদখলকারীরা অবিরাম কটূক্তি ও কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য দিয়ে গেলেও তারেক রহমানকে তার বিশ্বাস ও আদর্শ থেকে বিন্দুমাত্র টলানো যায়নি। তিনি বলেন, তৃণমূল পর্যায়ে তরুণ সমাজকে জাতীয়তাবাদী রাজনীতিতে উদ্বুদ্ধ করে উন্নয়ন ও উৎপাদনের মধ্যে যুক্ত করতে পারলে দেশের কল্যাণ সাধিত হবে। এ চিন্তার ধারক-বাহক হিসেবে তারেক রহমান গ্রাম থেকে গ্রামান্তরে ছুটে বেরিয়েছেন। তার এ প্রচেষ্টা সমাজে পিছিয়ে পড়া মানুষের মধ্যে জাতীয় উন্নয়ন কর্মকা-ে নিজেকে অংশীদারভাবার বোধ জাগ্রত হয়।