২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বড় জোট চায় ফ্রান্স, সতর্ক ওবামা

  • সিরীয় গৃহযুদ্ধ বন্ধে পুতিনের আগ্রহ দেখতে চায় মার্কিন প্রশাসন

ফরাসী প্রেসিডেন্ট ফ্রাঁসোয়া ওলাঁদ ইসলামিক স্টেটের (আইএস) বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার জন্য তাদের স্বার্থগত ভেদাভেদ ভুলে যেতে বুধবার বিশ্ব শক্তিগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। মঙ্গলবার ওয়াশিংটনে তিনি প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার কাছে তার বক্তব্য তুলে ধরবেন এবং পরে তিনি একই বার্তা নিয়ে প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিনের সঙ্গে দেখা করতে মস্কো যাবেন।

ওবামা ও পুতিন উভয়েই বলছেন, তারা গত সপ্তাহের প্যারিস হামলার পর ওলাঁদের আহ্বানের গুরুত্ব অনুধাবন করছেন। যুক্তরাষ্ট্রে অনুরূপ হামলার হুমকি এবং তিন সপ্তাহ আগে আইএসের পুঁতে রাখা সন্দেহভাজন বোমার আঘাতে রুশ বিমান ভেঙ্গে পড়ার ঘটনাও ওলাঁদের তাগিদের গুরুত্ব তুলে ধরে।

সাম্প্রতিক দিনগুলোতে রাশিয়া যুক্তরাষ্ট্র সিরিয়ায় জঙ্গীদের ওপর হামলা চালানোর ক্ষেত্রে একে অপরের সঙ্গে প্রায় প্রতিযোগিতায় লিপ্ত হয়েছে বলে মনে হয়। কিন্তু এখনও পর্যন্ত মার্কিন রুশ সহযোগিতা কেবল জঙ্গী বিমানের চলাচল নিয়ে একে অপরকে আগাম নোটিস দেয়ার ক্ষেত্রেই সীমাবদ্ধ রয়েছে। তাদের বিমানগুলো যাতে একই আকাশসীমায় একই সময়ে চলাচল না করে, তা নিশ্চিত করাই এর উদ্দেশ্য।ওবামা প্রশাসন আইএসের বিরুদ্ধে গোয়েন্দা তথ্য বিনিময়ের ব্যবস্থাসহ এক বড় ধরনের সামরিক জোট গঠনের বিষয়ে পুতিনের আগ্রহ নিয়ে সতর্ক রয়েছে। প্রশাসন সিরিয়ায় গৃহযুদ্ধ অবসানের লক্ষ্যে এক রাজনৈতিক মতৈক্য অনুযায়ী কাজ করতে পুতিনের ইচ্ছা পরীক্ষা করে দেখতে চায়। প্রশাসন রাশিয়ার মিত্র প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদকে ক্ষমতাচ্যুত করতে তৎপর মার্কিন সমর্থিত সিরীয় বাহিনীর ওপর বোমাবর্ষণ বন্ধ করতে পুতিনের আগ্রহও প্রথমে পরীক্ষা করে দেখতে চায়। ওবামা বুধবার ফিলিপিন্সে বলেন, যদি আমরা কূটনৈতিক ক্ষেত্রে রাশিয়ার সঙ্গে আরও ভাল বোঝাপড়ায় পৌঁছতে পারি, তাহলে সেটি স্পষ্টত আইএস প্রসঙ্গে সহযোগিতা করার আরও সুযোগ বয়ে আনবে। আর সে জন্য এ দুটি বিষয়কে সম্পূর্ণভাবে পৃথক করা যেতে পারে না। তিনি বলেন, রাশিয়া শেষ পর্যন্ত সিরীয় সরকার বিরোধীদের বাদ দিয়ে আইএসের ওপর হামলা চালানোর দিকে আরও মনোযোগ দেয় কিনা, আমরা সেটি দেখার অপেক্ষায় রয়েছি।

প্রশাসন কর্মকর্তারা বলেন, তারা রাশিয়ার সঙ্গে আরও ঘনিষ্ঠ সহযোগিতা করতে ওলাঁদের চেষ্টাকে স্বাগত জানান। তবে তারা বলেন, যখন ওলাঁদ পুতিনের সঙ্গে দেখা করবেন, তখন তাদের আশা থাকবে। তিনি সিরীয় গৃহযুদ্ধের দ্রুত নিরসনে সহায়তা করতে মস্কোকে রাজি করাবেন, যাতে তারা সবাই জঙ্গীদের দিকে তাদের পূর্ণ মনোযোগ ফেরাতে পারে। যুক্তরাষ্ট্র নিযুক্ত ফরাসী রাষ্ট্রদূত জেরার্ড আরাউদ বলেন, আমরা রুশ ও আমেরিকানদের সঙ্গে কথা বলছি, কারণ আমাদের এক অভিন্ন শত্রু রয়েছে, স্পষ্টত তা হলো ইসলামিক স্টেট। তিনি বুধবার এমএসএনবিএসির সঙ্গে এক সাক্ষাতকার দিচ্ছিলেন। আরাউদ বলেন, কিন্তু আমরা বিমান দিয়ে যুদ্ধ জয় করতে পারি না। আর আমাদের স্থল সৈন্য পেতে হলে আমাদের সিরীয় গৃহযুদ্ধের অবসান ঘটাতে হবে। আরাউদ বলেন, কাজেই আমি মনে করি, আমাদের সামরিক কোয়ালিশনকে এক রাজনৈতিক কোয়ালিশনে পরিণত করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং সেজন্য সিরিয়ায় এক রাজনৈতিক পরিবর্তন ঘটাতে হবে। তিনি বলেন, ওই বিষয়ে আমরা রুশদের সঙ্গে ভিন্ন অবস্থানে এবং আমেরিকান বন্ধুদের সঙ্গে খুবই কাছাকাছি রয়েছি। কিন্তু রুশদের ওপর প্রভাব খাটাতে মার্কিন প্রশাসনের দৃঢ়সঙ্কল্পের সঙ্গে মতৈক্য সত্ত্বেও ইউরোপীয়দের উদ্বেগ দূর হয়নি এবং বড় ধরনের কোনকিছু ও তা অবিলম্বে করা উচিত বলে তারা একই সময়ে বিশ্বাস করেন।

এক ইউরোপীয় কূটনীতিক বলেন, মার্কিন প্রশাসনের বোঝা উচিত যে, তাদের সর্বোত্তম মিত্র ইউরোপীয়দের গুরুত্বপূর্ণ স্বার্থ বিপন্ন। আর আমাদের দ্রুত ব্যবস্থা নিতে হবে। তিনি বলেন, এ সঙ্কট ইউরোপে অস্থিরতা ডেকে আনছে। পরিস্থিতি যেখানে গুরুতর সেখানে বিদেশী যোদ্ধারা রয়েছে এবং অভিবাসী সঙ্কটও রয়েছে। এতে ইউরোপ বিভক্ত হচ্ছে। -ওয়াশিংটন পোস্ট