২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বিপিএলের বর্ণিল উদ্বোধন আজ

  • অনুষ্ঠানের অন্যতম আকর্ষণ বলিউড তারকা ঋত্মিক রোশন ও জ্যাকলিন ফার্নান্দেজ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ‘উদ্বোধন হিট তো বিপিএল টুর্নামেন্ট হিট!’ -কথাটি বৃহস্পতিবার বলেছেন শেখ সোহেল। বিপিএল গবর্নিং কাউন্সিলের সদস্য তিনি। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) পরিচালকও। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের (বিপিএল-টি২০) উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সফলভাবে আয়োজনের সব দায়িত্ব তার ওপরই। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের জন্য যে কমিটি করা হয়েছে এর প্রধানও তিনি। সেই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি আজ হবে। এ অনুষ্ঠান দিয়েই বিপিএলের তৃতীয় আসরের পর্দাও উঠবে। এ আসরের উদ্বোধন ঘোষণা করবেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

এসব তথ্য কাওরান বাজারের বিজিএমইএ ভবনে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের টাইটেল স্পন্সর ঘোষণার সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন শেখ সোহেল। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের টাইটেল স্পন্সর হয়েছে ডিবিএল গ্রুপ। এ প্রতিষ্ঠানটি বিপিএলে এবার চিটাগাং ভাইকিংস দলটিও কিনে নিয়েছে। তারাই চালাবে চিটাগাংয়ের দলটি।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানকে জমকালো করার সবরকম প্রস্তুতিই শেষ হয়ে গেছে। এ অনুষ্ঠানের দিকে সবার দৃষ্টি রয়েছে। আর তাই অনুষ্ঠানটিকে যতটা সুন্দর ও আকর্ষণীয় করা যায়, সেই চেষ্টাই করা হচ্ছে। বৃহস্পতিবার মঞ্চও তৈরি হয়ে গেছে। যে মঞ্চে বিপিএলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সবচেয়ে বড় আকর্ষণ বলিউড তারকা অভিনেতা ঋত্মিক রোশন পারফর্ম করবেন। সেই সঙ্গে বলিউডে প্রতিষ্ঠা পাওয়া শ্রীলঙ্কান অভিনেত্রী জ্যাকলিন ফার্নান্দেজও মঞ্চ মাতাবেন। ঋত্মিক সবার শেষে মঞ্চে উঠবেন। তখন রাত ৯টা বেজে যাবে। তার আগে বলিউড গানের তালে নাচবেন জ্যাকলিন।

শেখ সোহেল এক এক করে সময় ও পারফর্মারের নামগুলো বলে দেন। জানান, ‘উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শুরু হবে দেশী অভিনেত্রী সাদিয়া ইসলাম মৌকে দিয়ে। শেষ হবে ঋত্মিক রোশনের পারফর্মেন্স দিয়ে। দুপুর ৩ টায় মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের গেট দর্শকদের জন্য খোলা হবে। সাড়ে ৪টা থেকে অনুষ্ঠান শুরু হবে। মৌ শুরুতে পারফর্ম করবেন। দেশী শিল্পী দিয়েই শুরু হচ্ছে অনুষ্ঠান। এরপর ৫টায় দেশের জনপ্রিয় ব্যান্ড চিরকুট, ৬টায় এলআরবি গান পরিবেশন করবে। ৬টা ৩০ মিনিটে মমতাজ সুরে মাতাবে। এর মধ্যদিয়ে শেষ হবে বাংলাদেশী শিল্পীদের পারফর্ম করার পালা। ৭টায় ভারতের কেকে গান গাইবেন। ৮টায় বিসিবি সভাপতি উদ্বোধনী ঘোষণা দেবেন। এরপর জ্যাকলিন ফার্নান্দেজ পারফর্ম করবেন। সবশেষে ঋত্মিক রোশন পারফর্ম করবেন।’

আছে জমকালো আতশবাজি ও ফায়ারওয়ার্কসও। দর্শকদের জন্য মনোমুগ্ধকর লেজার শো’ও থাকছে। এ আয়োজনটি নিয়ে বিস্তারিত বলতে চাইলেন না শেখ সোহেল। শুধু বললেন, ‘এটা নিয়ে একটু আকর্ষণ রেখে দেয়া হচ্ছে। একটু অন্যরকম আয়োজন হবেতো তাই।’ এখন দেখার বিষয়, কেমন আয়োজন শেষ পর্যন্ত হয়। এ আয়োজনে অংশ নিতে আজ সকাল সাড়ে ৯টায় ঋত্মিক আসবেন। কেকে এরই মধ্যে ঢাকায় এসে পড়েছেন। ঋত্মিকের ম্যানেজারও এসে পড়েছেন।

পুরো আয়োজনে খরচ হবে ৩ থেকে সাড়ে ৩ কোটি টাকা। এমনটিই জানিয়েছেন শেখ সোহেল। বলেছেন, ‘এখনও খরচের হিসেব পরিপূর্ণভাবে করা হয়নি। তবে আগে যে খরচ ধরা হয়েছিল (প্রায় ৩ কোটি টাকা), এবার তারচেয়েও বেশি খরচ হবে। সাড়ে ৩ কোটি টাকার মত খরচ হবে।’

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান দেখতে দর্শক ভিড় জমবে। স্টেডিয়াম পরিপূর্ণ থাকবে এমনটিই ধারণা করা হচ্ছে। এজন্য পরিপূর্ণ নিরাপত্তা ব্যবস্থাও থাকা জরুরী। সংবাদ সম্মেলনে বিসিবি পরিচালক লোকমান হোসেন ভুঁইয়া ও ডিবিএল গ্রুপের চেয়ারম্যান আবদুল ওয়াহেদের উপস্থিতিতে শেখ সোহেল জানালেন, ‘প্রতিটি সিরিজে বা টুর্নামেন্টে যে রকম নিরাপত্তা ব্যবস্থা আমাদের থাকে, তেমনই থাকবে। এ নিয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে কথা হয়েছে। পুলিশ, র‌্যাব বিভাগের সঙ্গেও কথা হয়েছে। পর্যাপ্ত নিরাপত্তাই থাকবে।’

নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে অনেক বিষয়ই লুকিয়ে রেখেছেন শেখ সোহেল।

বলতে চাননি। যেমন বলতে চাননি ঋত্মিক, জ্যাকলিনরা যে পারফর্ম করবেন, এর রিহার্সেল হবে কখন। রিহার্সেল যখনই হোক, আজ বেলা ৪টা ৩০ মিনিট থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত চলবে বিপিএলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। বিপিএলের তৃতীয় আসরের পর্দা উঠবে।