২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মাদারীপুরে আসামীদের বাঁচাতে নকল বাদী শ্রীঘরে

নিজস্ব সংবাদদাতা, মাদারীপুর ॥ মাদারীপুরে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতে আসামীদের বাঁচাতে নকল বাদী সেজে স্বাক্ষ্য দিতে গিয়ে রাবেয়া বেগম (৩০) নামে এক নারীকে শ্রীঘরে পাঠিয়েছে আদালত। নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতের বিচারক আবু নাসের মোঃ জাহাঙ্গীর আলম বৃহস্পতিবার বিকালে এ আদেশ দেন।এ ঘটনায় আদালতের বেঞ্চ সহকারী জালাল মোল্লা বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন।

আদালত সুত্রে জানা গেছে, মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার দরিচর লক্ষীপুর গ্রামের তানজিলা আক্তারকে যৌতুকের দাবীতে মারপিট করায় তিনি তার স্বামীসহ ৬ জনকে আসামী করে মাদারীপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতে ২০১০ সালের ৫ জানুয়ারী একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলার আসামীদের মামলার দায় থেকে বাঁচাতে রাবেয়া বেগম নিজে তানজিলা আক্তার বাদী সেজে আদালতে স্বাক্ষীর হাজিরা দেয়। আদালতের বিচারক জবানবন্দী গ্রহণকালে বাদীকে ভুয়া বলে সনাক্ত করেন। এ সময় তিনি রাবেয়াকে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়ে তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করার আদেশ দেন। ভূয়া বাদী রাবেয়া বেগম কালকিনি উপজেলার এনায়েতনগর এলাকার জসিম সরদারের স্ত্রী।

মাদারীপুর সদর থানার ভারপ্রপ্ত অফিসার জিয়াউল মোর্শেদ বলেন, “আদালত হতে গ্রেফতারকৃত রাবেয়া নামে এক নারীসহ একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি”।