২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

খালেদা জিয়া আজ ফিরছেন, স্বাগত জানানোর প্রস্তুতি

স্টাফ রিপোর্টার ॥ দুই মাস পাঁচ দিন লন্ডনে অবস্থানের পর আজ শনিবার দেশে ফিরছেন বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া। বিকেল ৫টায় এমিরেটস এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে ঢাকা ফিরছেন তিনি। এদিকে খালেদা জিয়ার দেশে ফেরার একদিন আগে শুক্রবার বিকেলে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে বিএনপির মুখপাত্র ও আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. আসাদুজ্জামান রিপন খালেদা জিয়ার নিরাপত্তা জোরদারে পদক্ষেপ নিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, দেশের আইনশৃঙ্খলা

পরিস্থিতি অবনতি হওয়ায় সাবেক প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা নিয়ে আমাদের দল উদ্বিগ্ন। তাই খালেদা জিয়ার নিরাপত্তা ব্যবস্থা অপ্রতুল হওয়ায় তার নিরাপত্তা ব্যবস্থা আরও জোরদারে উপযুক্ত পদক্ষেপ গ্রহণের আহ্বান জানাচ্ছি।

বিবৃতিতে খালেদা জিয়াকে স্বাগত জানাতে আজ বিকেলে বিমানবন্দরে হাজির থাকতে বিএনপি নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন আসাদুজ্জামান রিপন। জানা যায়, এ আহ্বানে সাড়া দিয়ে বিএনপির বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মী বিমানবন্দরে উপস্থিত থেকে তাদের দলের চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে স্বাগত জানানোর প্রস্তুতি নিয়েছেন।

১৫ সেপ্টেম্বর লন্ডনের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করেন খালেদা জিয়া। দুই মাসেরও বেশি সময় সেখানে অবস্থান করে চোখ ও পায়ের চিকিৎসা ছাড়াও পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে সময় কাটান তিনি। এর মধ্যে খালেদা জিয়া লন্ডন বিএনপি আয়োজিত কয়েকটি অনুষ্ঠানে যোগ দেন। সেখানে প্রথমে কয়েক দিন হোটেলে অবস্থান করলেও পরে বড় ছেলে তারেক রহমানের বাসায় ওঠেন তিনি। ছেলে তারেক রহমান ছাড়াও ছেলের বউ ডাঃ জোবাইদা রহমান, নাতনি জায়মা রহমান, প্রয়াত ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোর স্ত্রী শর্মিলা রহমান সিথি এবং তার দুই মেয়ে জাফিয়া রহমান ও জাহিয়া রহমানের সঙ্গে একান্তে বেশ কিছুদিন সময় কাটান খালেদা জিয়া। বৃহস্পতিবার বিএনপি চেয়ারপার্সনের গুলশান কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে দলের মুখপাত্র ড. আসাদুজ্জামান রিপন বলেন, দেশের রাজনৈতিক সঙ্কট ও ক্রান্তিকাল বিবেচনা করে চিকিৎসা শেষ না করেই লন্ডন থেকে দেশে ফিরছেন খালেদা জিয়া।

মামলা দিয়ে বিএনপিকে দমানো যাবে না -গয়েশ্বর ॥ মামলা দিয়ে সরকার বিএনপিকে দমানোর চেষ্টা করছেÑ এমন অভিযোগ করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, এভাবে জনমুখী এ রাজনৈতিক দলকে দমানো যাবে না। বিএনপি ন্যায়বিচার থেকে বঞ্চিত অভিযোগ করে তিনি বলেন, বর্তমানে রাজনৈতিক বিবেচনায় বিচারপ্রক্রিয়া চলছে। শুক্রবার সকালে নয়াপল্টন বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচে দলের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ৫১তম জন্মদিন উপলক্ষে বিনামূল্যে চিকিৎসা ক্যাম্পের উদ্বোধন শেষে তিনি এ কথা বলেন। চিকিৎসা ক্যাম্পের আয়োজন করে ডক্টরস এ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ড্যাব)।

গয়েশ্বর বলেন, দেশের মানুষের জানমালের নিরাপত্তা নেই। মানুষের স্বাভাবিক মৃত্যুর গ্যারান্টি নেই। বিদেশী নাগরিকরাও হত্যার শিকার হচ্ছেন, গুম হয়ে যাচ্ছেন। কোন বিচার হচ্ছে না। এর ফলে অপরাধীরা আরও উৎসাহ পাচ্ছে। তিনি বলেন, বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে দেশে-বিদেশে ষড়যন্ত্র চলছে। সকল ষড়যন্ত্র উপেক্ষা করে তিনি দেশে ফিরে আসবেন এবং তারেক রহমানের নেতৃত্বে দেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনা হবে।

গয়েশ্বর বলেন, ‘দেশে আইনের শাসন অনুপস্থিত। কোন ঘটনা ঘটার পর বিচারের আগেই সরকারের মন্ত্রী-এমপিরা বলেন, কার ফাঁসি হবে, কার জেল হবে। তাহলে বিচারক কি সরকার? বিচার কি বিচারপতিরা করেন, না সরকার নির্ধারণ করেন?’ তিনি বলেন, ন্যায়বিচার হলে আমরা বিচার পেতাম। বিএনপিসহ বিরোধীমতের মানুষের ওপর হামলা-মামলা চলছে। এভাবে চলতে পারে না। আমরা তো এখন কাঁদতে পারি, ভবিষ্যতে এ সরকারের লোকেরা কাঁদতে পারবে কিনা, তা জনগণই নির্ধারণ করবে। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেনÑ বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ও ড্যাবের মহাসচিব ডাঃ এজেডএম জাহিদ হোসেন, সিনিয়র যুগ্মমহাসচিব ডাঃ রফিকুল ইসলাম বাচ্চু, ডাঃ সাইফুল ইসলাম সেলিম প্রমুখ।

দুই নেতার গ্রেফতারে বিএনপির নিন্দা ॥ রংপুর মহানগর বিএনপির সভাপতি মোজাফফর হোসেন এবং মাগুরা জেলার সদর উপজেলা বিএনপির যুগ্মআহ্বায়ক ও ১নং হাজীপুর ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কাশেমকে গ্রেফতারের ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছেন দলের মুখপাত্র ড. আসাদুজ্জামান রিপন। শুক্রবার গণমাধ্যমে পাঠান এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, সারাদেশে বিএনপি এবং অঙ্গ-সংগঠনের নেতাকর্মীদের গ্রেফতারের ধারাবাহিকতায় তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে। তিনি অবিলম্বে তাদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহার করে তাদের মুক্তির দাবি জানান।