১০ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ফেয়ার এ্যান্ড লাভলী ৩৭৫ নারীকে উচ্চশিক্ষায় অনুদান দিল

স্টাফ রিপোর্র্টার ॥ ৩৭৫ নারীকে উচ্চশিক্ষার জন্যে স্কলারশিপ, কারিগরি ট্রেনিং-এর অনুদান ও ব্যবসা শুরু করার মূলধন প্রদান করেছে ফেয়ার এ্যান্ড লাভলী ফাউন্ডেশন। শুক্রবার রাতে রাজধানীর বসুন্ধরা ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটিতে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে বিজয়ী নারীদের হাতে সার্টিফিকেট তুলে দেয়া হয়। নারীর অগ্রযাত্রায় পাশে থাকতে ইউনিলিভার বাংলাদেশ লিমিটেডের সামাজিক উন্নয়নমূলক এ ফাউন্ডেশন ২০০৩ সাল থেকে কাজ করছে।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, সত্যিকার অর্থে নারী কখনোই অসহায় নয়। কেউ না কেউ তাদের পাশে দাঁড়ায়। নারীর স্বপ্নকে বাস্তবতায় রূপান্তরিত করতে প্রয়োজন পড়ে বিশ্বস্ত একটি হাতের। প্রয়োজন একটু সহযোগিতা। ফেয়ার এ্যান্ড লাভলী ফাউন্ডেশন সে পথে হাত বাড়িয়ে দিয়েছে। আশা করি ভবিষ্যতেও তারা এ ধারা অব্যাহত রাখবে।

বিজয়ীদের হাতে সার্টিফিকেট তুলে দিয়ে সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা গীতিয়ারা সাফিয়া চৌধুরী বলেন, নানা বাধা-বিপত্তি পেরিয়ে নারীরা এগিয়ে যাচ্ছে। এ অগ্রযাত্রা অব্যাহত থাকবে। এসময় তিনি নারীদের পাশে থাকার জন্য ফাউন্ডেশনকে ধন্যবাদ জানান। মোহাম্মদী গ্রুপের ম্যানেজিং ডিরেক্টর রুবানা হক বলেন, বিভিন্ন পর্বে বাছাই করতে গিয়ে মনে হয়েছে একেকটি নারীর জীবনের গল্প যেন এক একটি উপন্যাস। প্রতিবন্ধকতা সত্ত্বেও আজ তাদের স্বপ্ন সত্যি হতে চলছে।

সাহিত্যিক ও গবেষক সেলিনা হোসেন বলেন, এ উদ্যোগের মাধ্যমে সামাজিক পরিবর্তনে পিছিয়ে পড়া নারীদের যুক্ত করা হয়েছে। ফলে পিছিয়ে পড়া এ নারীদের স্বপ্ন আজ বাস্তবেই সত্যি হলো।

অনুষ্ঠানের শুরুতেই ভারতের প্রখ্যাত স্যান্ড আর্টিস্ট রাহুল আলিয়া এক অনবদ্য চিত্রকর্মের মাধ্যমে দেশের ইতিহাস-ঐতিহ্য ও নারীর অগ্রযাত্রা তুলে ধরেন। এ সময় দর্শক সারিতে উপস্থিত প্রায় সবাই মুগ্ধ নয়নে তার চিত্রকর্ম উপলব্ধি করেন। সুরেলা কণ্ঠে অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন ফারহানা নিশো।

উচ্চশিক্ষা, কারিগরি শিক্ষা ও ব্যবসা ক্ষেত্রে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেয়ার লক্ষ্যে ফেয়ার এ্যান্ড লাভলী ফাউন্ডেশন ‘তোমার স্বপ্ন করো সত্যি’ ক্যাম্পেনের আয়োজন করে। কার্যক্রম অনুসারে আগ্রহী নারীদের কাছ থেকে আবেদনপত্র গ্রহণ করা হয়। সারাদেশ থেকে আবেদনকারী নারীদের মধ্য থেকে চূড়ান্তভাবে নির্বাচিতদের হাতে বর্ণিল এই অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সার্টিফিকেট তুলে দেয়া হয়।

অনুষ্ঠানে সেন্টার ফর ডেভেলপমেন্ট রিসার্চের (সিডিআরবি) চেয়ারম্যান ড. মিজানুর রহমান শেলী, মোহাম্মদী গ্রুপের ম্যানেজিং ডিরেক্টর রুবানা হক, প্রখ্যাত নারী সাহিত্যিক ও গবেষক সেলিনা হোসেনসহ ইউনিলিভার বাংলাদেশের উর্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।