২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

টি২০ দলে উমর আকমল

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ নাটকীয়তার পর টি২০ দলে ফেরানো হয়েছে পাকিস্তানী তারকা উমর আকমলকে। তার বিরুদ্ধে বাজে আচরণের অভিযোগ অনেকদিনের। এ জন্য বিশ্বকাপের পরপরই দল থেকে বাদ পড়েছিলেন। শোনা যায় কোচ ওয়াকার ইউনুসের অভিযোগের প্রেক্ষিতে আহমেদ শেহজাদের সঙ্গে বাদ পড়েছিলেন হার্ডহিটার এই ব্যাটসম্যান। ঘটনার এখানেই শেষ নয়। গত সপ্তাহে ঘরোয়া ক্রিকেটের ম্যাচ খেলা চলাকালে স্থানীয় এক নৈশপার্টিতে গিয়ে ফের আলোচনায় আসেন তিনি। ওই পার্টিতে এক মহিলার সঙ্গে আসদাচরণও করেন আকমল। যদিও তিনি নিজে সেটি অস্বীকার করেন। আরব আমিরাতে ইংল্যান্ডের কাছে চার ওয়ানডের সিরিজ ৩-১এ হেরেছে পাকিস্তান। টি২০ দলকে শক্তিশালী করতে তাই ফেরানো হয়েছে মেজাজী এই ক্রিকেটারকে। শহীদ আফ্রিদির নেতৃত্বে তিন ম্যাচের টি২০ খেলবে দু’দল। দুবাইয়ে প্রথম টি২০ বৃহস্পতিবার। টি২০তে পাওয়ার ব্যাটিংয়ের কথা বিবেচনা করেই মূলত আকমলকে ফেরানো হয়েছে। তবে বাম হাতের আঙ্গুলের হাড়ে চিড় ধরায় তিন ম্যাচের এই সিরিজ থেকে ছিটকে পড়েছেন অলরাউন্ডার ইমাদ ওয়াসিম। গত মাসে ঘরোয়া ক্রিকেট খেলতে গিয়ে ওয়াসিম আঙ্গুলে আঘাত পান। পুরোপুরি সুস্থ হয়ে উঠতে অন্তত দুই সপ্তাহ সময় লাগবে বলে পিসিবি চিকিৎসক সোহেল সেলিম জানিয়েছেন। ওয়াসিমের পরিবর্তে দলে ডাক পেয়েছেন আরেক অলরাউন্ডার বিলাল আসিফ। স্থানীয় কায়েদ-ই আজম ট্রফিতে খেলছেন আকমল। হায়দ্রবাদের একটি বাড়িতে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে অনৈতিক কাজের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে গণমাধ্যমের রিপোর্টের সূত্র ধরে আকমলকে এর আগে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড দল থেকে বাদ দিয়েছিল। এই অনুষ্ঠানে আকমলের সাথে আরও ছিলেন পাকিস্তান অনুর্ধ-১৯ দলের অধিনায়ক আজিম গুম্মান। ক্রিকেটকে বিতর্কিত করার অপরাধে পিসিবি আকমলকে কারণ দর্শানো নোটিস প্রেরণ করেছিল। কিন্তু পরবর্তীতে নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করায় পিসিবি আশ্বস্ত হয়ে আকমলকে আবারো দলভুক্ত করেছে। নির্বাচক বোর্ডের (পিসিবি) প্রধান হারুন রশিদও বিষয়টি নিশ্চিত করে জানিয়েছেন হায়দ্রাবাদ ঘটনার তদন্তের প্রেক্ষিতেই আকমলকে সবুজ সঙ্কেত দেয়া হয়েছে। আকমলকে অন্তর্ভুক্ত করতে গিয়ে নির্বাচকরা টি২০ দল থেকে ইফতিখার আহমেদের নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছে। উমর আকমল আধুনিক পাকিস্তানের অন্যতম প্রতিভাবান এক ক্রিকেটার। কিন্তু মেজাজের কারণে বাইরের ঘটনাই বেশি আলোচিত।