২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

দৃকে ‘হাজার গল্প’ শীর্ষক আলোকচিত্র প্রদর্শনী

দৃকে ‘হাজার গল্প’ শীর্ষক আলোকচিত্র প্রদর্শনী

স্টাফ রিপোর্টার ॥ একটি নির্বাক আলোকচিত্রের মধ্যে নিহিত হাজার গল্প। কোথাও গ্রাম্য শিশু-কিশোরের বৃষ্টিতে ভিজে খেলার ছলে মনের আনন্দ প্রকাশ, বৃদ্ধের মায়াভরা চাহনি, মৃতপ্রায় গাছের ডালে পাখির কুজন, সবুজ ধান ক্ষেত্রের আল ঘেষে গ্রাম্য বধূর গবাদীপশু চারণ, আবার কোথাও ভাই-বোনের ভালবাসার মুহূর্ত, এসব কিছু যেন অনায়াশেই ধরা পড়েছে আলোকচিত্রীর ক্যামেরায়। প্রকৃতির জীবজন্তু ও প্রাণীর মিশেলে ধানম-ির দৃক গ্যালারিতে ‘হাজার গল্প’ শিরোনামের আলোকচিত্র প্রদর্শনীর শনিবার ছিল শেষ দিন। কোন কোন আলোকচিত্রে উঠে এসেছে পড়ন্ত বিকেলে নদীর তীরে বসে থাকা বৃদ্ধ, পানিতে কুমির, মাছের চাষের জায়গায় লেখা আছে ‘পানিতে মাছ ধরা নিষেধ’ সেখানে বসে আছে মাছরাঙা পাখি, মহিষ, এক বৃদ্ধ গ্রাম্য পথে সাইকেলে চড়ে যাচ্ছে, ঐতিহাসিক পুরনো দালানের দরজা, পথশিশুরা পড়ালোখা করছে, গাছের ভাঙ্গা ডালে গিরগিটি, ব্যাঙ, ছুকি নিয়ে এক দালান থেকে অন্য দালানে পার হচ্ছে, গাছে বাচ্চা নিয়ে বসে আছে বানর, কৃষকের দৈনন্দিন জীবন জীবিকা, তাজমহলসহ গ্রাম্য ও শহর জীবনের নানা দৃশ্য। গ্যালারির কোথাও শোভা পাচ্ছে আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন আলোকচিত্রীদের ছবিও। প্রদর্শনীর আয়োজন করে ‘ছবি’। মূলত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক থেকে শুরু হলেও ‘ছবি’ গ্রুপটির ব্যাপ্তি ছড়িয়ে পড়ে সবার মাঝে। নিয়মিত ফটোওয়াক, ওয়ার্কশপ নানাবিধ কার্যক্রমের মাধ্যমে তৌহিদ পারভেজ বিপ্লবের নেতৃত্বে ধীরে ধীরে এই গ্রুপের পরিধি বড় হতে থাকে। প্রতিষ্ঠার পর থেকে বাংলাদেশের ও বিশ্বের অন্যান্য দেশের বরেণ্য শিল্পীদের নিয়ে প্রতিষ্ঠানটি হয়ে উঠে একটি আন্তর্জাতিকক মাধ্যম। দেশ বিদেশের হাজার খানেক আলোকচিত্রীর প্রায় পাঁচ হাজার ছবির মধ্য থেকে ১২০টি আলোকচিত্র প্রদর্শনীর জন্য নির্বাচিত হয়। বিচারকম-লী ছিলেন কুদরত-ই-খোদা, হাসান চন্দন ও আবির আবদুল্লাহ। প্রদর্শনীতে সহযোগিতা করেছে বগুড়া ফটোগ্রাফি ক্লাব, ডিইউপিএস, নর্থবেঙ্গল ফটোগ্রাফিক সোসাইটি বাংলাদেশ এবং মিডিয়া পাটনার্স দৈনিক জনকণ্ঠ, একুশে টেলিভিশন।