২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রংপুর ও ঢাকার শুভ সূচনা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের (বিপিএল টি২০) তৃতীয় আসর শুরু হয়ে গেছে। প্রথম দিনে দুটি ম্যাচ হয়েছে। ম্যাচগুলোতে জয় পেয়েছে রংপুর রাইডার্স ও ঢাকা ডায়নামাইটস। উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচে চিটাগং ভাইকিংসকে দুই উইকেটে হারিয়েছে রংপুর রাইডার্স। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সকে ৬ উইকেটে হারিয়ে দিয়েছে ঢাকা ডায়নামাইটস। জয় দিয়ে সাকিব আল হাসানের রংপুর রাইডার্স ও কুমার সাঙ্গাকারার ঢাকা ডায়নামাইটস টুর্নামেন্টে শুভ সূচনা করেছে। তামিম ইকবালের চিটাগং ভাইকিংস ও মাশরাফি বিন মর্তুজার কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স হার দিয়ে শুরু করেছে।

রবিবার মিরপুরে টুর্নামেন্টের শুরুটা জমজমাটই হয়। উত্তেজনাপূর্ণ, প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হয়। রুদ্ধশ্বাস একটি ম্যাচের মধ্য দিয়েই বিপিএলের এবারের আসরের সূচনা হয়। দুপুর দুটোয় শুরু হওয়া ম্যাচে টস জিতে চিটাগং ভাইকিংস আগে ব্যাট করে। তামিম ইকবালের ৫১, জীবন মেন্ডিসের ৩৯, এনামুল হক বিজয়ের ৩৬ ও তিলকারতেœ দিলশানের ২৯ রানে ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৮৭ রান করে চিটাগং ভাইকিংস। সাকলায়েন সজিব ৩ উইকেট নেন। চিটাগং ভাইকিংস বিশাল রানই করে। কিন্তু পাকিস্তানের মিসবাহ উল হক (৬১) ও শ্রীলঙ্কার থিসারা পেরেরার (৪৩) দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে চিটাগং ভাইকিংসকে হারতেই হয়। ২৩ রানেই ৪ উইকেট হারিয়ে খাদের কিনারায় পড়ে যায় রংপুর রাইডার্স। এর মধ্যে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিবও সাজঘরে ফেরেন। যখন দল হারের বিপত্তির মধ্যে পড়ে যায়, এমন সময়ই হাল ধরেন মিসবাহ। তার সঙ্গে আল আমিন (৩৮) নৈপুণ্য দেখান। তবে পেরেরা যখন ব্যাট হাতে নামেন, এরপর দ্রুতই রংপুর রাইডার্সের জয়ের আশা জাগতে থাকে। এ দুইজন মিলে ষষ্ঠ উইকেটে ৮০ রানের জুটি গড়েন। শেষে গিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ড্যারেন সামির (১৮) ঝলকানিতে শেষ বলে জয় পায় রংপুর রাইডার্স। ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৮৮ রান করে জিতে সাকিবের দল। পাকিস্তানের পেসার মোহাম্মদ আমির একাই ৪ উইকেট নেন। টান টান উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচ দিয়েই টুর্নামেন্টের শুরু হয়।

দিনের দ্বিতীয় ম্যাচটি শুরু হয় সন্ধ্যা পৌনে সাতটায়। তবে এ ম্যাচে খুব উত্তেজনা থাকেনি। ঢাকা ডায়নামাইটস ব্যাটসম্যানরা একটু ধীরে খেলাতে ম্যাচ ১৯.২ ওভার পর্যন্ত গেছে। সহজ জয়টি কঠিন করে পেল ঢাকা ডায়নামাইটস। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স আগে ব্যাট করে ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১১০ রান করে। সর্বোচ্চ ২৫ রান করেন মাশরাফি। উপরের সারির ইমরুল কায়েস (০), লিটন কুমার দাস (৩), মারলন স্যামুয়েলস (৮), শুভগত হোম (৪), ড্যারেন স্টিভেন্স (৫) ব্যর্থ হন। তাতে করে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সও বিপাকে পড়ে যায়। ৩৬ রানে ৫ উইকেটের পতন ঘটে। সেখান থেকে মাহমুদুল হাসান (২২), মাশরাফি (২৫) ও ক্রিশমার সানতোকি (২১*) দলকে যতটা পারেন এগিয়ে নিয়ে যান। আবুল হাসান রাজু ৩ ও মোশাররফ হোসেন রুবেল ২ উইকেট নেন। যতদূর গেছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স, তাতে ঢাকা ডায়নামাইটস যে সহজ জয়ই পেতে চলেছে, তা বোঝাই গেছে। নাসির জামশেদ (৪৪ বলে ৪৪ রান), সাঙ্গাকারা (২৯ বলে ২৫ রান), শামসুর রহমান (১৭ বলে ১৯ রান) সেøা খেলাতে ম্যাচ শেষপর্যন্ত গড়িয়েছে। শেষে ৬ বলে জিততে ৪ রান প্রয়োজন পড়ে। দুই বলেই তা এসে যায়। ৪ বল বাকি থাকতে ৪ উইকেট হারিয়ে ১১২ রান করে ম্যাচ জিতে যায় ঢাকা ডায়নামাইটস। আবু হায়দার রনি ২ উইকেট নেন।

প্রতি বিভাগীয় দলই এর আগে বিপিএলে অংশ নিয়েছে। এবার শুধু ফ্র্যাঞ্চাইজি পরিবর্তন হয়েছে। সেই সঙ্গে রংপুর রাইডার্স ছাড়া বাকি দলগুলোর নামও পরিবর্তন হয়েছে। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স প্রথমবারের মতো বিপিএল খেলছে। প্রথম ম্যাচেই হারের স্বাদ পেয়েছে।

আজও দুটি ম্যাচ হবে। ৬ দলের টুর্নামেন্টে বাকি দুই দল মুশফিকুর রহীমের সিলেট সুপার স্টারস ও মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের বরিশাল বুলসের বিপিএল মিশন শুরু হবে আজ। ভিন্ন ভিন্ন ম্যাচে খেলবে এ দুটি দল। মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে দুপুর ২টায় শুরু হওয়া ম্যাচে সিলেট সুপার স্টারসের প্রতিপক্ষ চিটাগং ভাইকিংস। সন্ধ্যা পৌনে ৭টায় রংপুর রাইডার্সের বিপক্ষে খেলবে বরিশাল বুলস। তবে সিলেট সুপার স্টারসে থাকা শহীদ আফ্রিদি এ ম্যাচে, এমনকি প্রথম ৫ ম্যাচেই খেলতে পারবেন না। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টি২০ সিরিজ শেষে ১ ডিসেম্বর বাংলাদেশে আসবেন আফ্রিদি। এরপর সিলেট সুপার স্টারসের হয়ে খেলবেন। একই অবস্থা বরিশাল বুলসেরও। দলটি টি২০ ক্রিকেটে দানবীয় ব্যাটসম্যান খ্যাত ক্রিস গেইলকে নিয়েছে। কিন্তু গেইল ইনজুরির জন্য ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহের আগে বরিশাল বুলসের হয়ে খেলতে পারবেন না। বরিশাল বুলসের হয়ে গেইলও ৫ ম্যাচে খেলতে পারবেন না।

দিলশান, আমির, মিসবাহ, পেরেরা, সাঙ্গাকারা, রায়ান টেন ডয়েসচেটরা বিপিএলে খেলা শুরু করে দিয়েছেন। প্রথম ম্যাচের রুদ্ধশ্বাস লড়াই বিপিএলের উত্তেজনাও বাড়িয়ে দিয়েছে। তবে গেইল, আফ্রিদিরা আসলে বিপিএলের আমেজ আরও বেড়ে যাবে। যেই আমেজ এর মধ্যেই অনেক লেগে গেছে রংপুর রাইডার্স ও ঢাকা ডায়নামাইটস শিবিরে। দুই দলেরই যে বিপিএলের তৃতীয় আসরে শুভ সূচনা হয়েছে।