২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

শীতে পায়ের গোড়ালির যত্ন

শীতে আর্দ্রতা কম থাকায় ত্বকের শুষ্কতা বেড়ে যায়। সব থেকে বেশি শুষ্ক হয় আমাদের পা। যার দরুন পায়ের গোড়ালির চামড়া মরে উঠে যায় এবং মাঝে মাঝে গোড়ালি ফেটে, চামড়া উঠে পা থেকে রক্ত বের হয়। তাই শীতের শুরু থেকেই উচিত পায়ের পর্যাপ্ত পরিচর্যার। অবহেলা করলে এই সমস্যা আরও প্রকট হয়ে দেখা দিতে পারে।

পায়ের যতেœর প্রথম শর্ত খালি পায়ে হাঁটা যাবে না। বাসায় নরম সোলের স্যান্ডাল পরুন।

বাইরে থেকে এসে যত দ্রুত সম্ভব পায়ের ধুলাবালি এবং ময়লা পরিষ্কার করুন।

গোসলের সময় নিয়ম করে পা এবং পায়ের গোড়ালি স্ক্রাব করুন। চালের গুঁড়ো, মধু এবং লেবুর রস বা ওটমিল এবং নারিকেল তেল মিশিয়ে স্ক্রাব বানিয়ে পা এবং গোড়ালি স্ক্রাব করুন এবং ৫ মিনিট স্ক্রাব করে ধুয়ে ফেলুন।

গোসলের পর পায়ের তালুতে এবং গোড়ালিতে ময়েশ্চারাইজার লাগানোর অভ্যাস করে ফেলুন। প্রতিদিন গোসলের পর গ্লিসারিন এবং গোলাপ জল মিশিয়ে পায়ের তালুতে ভাল করে লাগিয়ে নিন।

সারাদিন আমাদের দু’পায়ে ভর করেই করতে হয় সব কাজকর্ম। তাই যতই পায়ের পরিচর্যা করা হোক না কেন তা ভাল ফল দেবে না। তাই প্রতিরাতে ঘুমের আগে পা পরিষ্কার করে নিন। বডি লোশন লাগিয়ে পায়ের তালুতে ভাল করে ভ্যাসিলিন লাগিয়ে নিন। তারপর সুতির নরম মোজা পরে ঘুমাতে যান। ভাল ফলাফলের জন্য মাঝে মাঝে ভ্যাসিলিনের বদলে ক্যাস্টর অয়েল লাগাতে পারেন।

ঘরে বসে ঝটপট পেডিকিউর করার অভ্যাস করুন। সপ্তাহে অন্তত দু’বার করে ঘরে বসে পেডিকিউর করুন। একটি পাত্রে হাল্কা গরম পানি নিয়ে তাতে শ্যাম্পু মিশিয়ে ১০ থেকে ১৫ মিনিট পা দুটি ভিজিয়ে রাখতে হবে। প্রয়োজন হলে নেইল কাটার দিয়ে নেইল ফাইল করে নিন এবং ব্রাশ দিয়ে নখের ভিতরের ময়লা পরিষ্কার করে নিন। এরপর ঝামা ইট বা পিউমিস স্টোন দিয়ে পায়ের তলা ভাল করে করে ঘষে ঘষে পরিষ্কার করুন। তারপর কোন স্ক্রাব দিয়ে ভাল করে পা এবং পায়ের তালু স্ক্রাব করুন। এরপর পা কুসুম গরম পানিতে ভাল করে ধুয়ে পায়ে ময়েশ্চারাইজার লাগান এবং পায়ের তলায় ভ্যাসিলিন এবং যে কোন তেল যেমনÑ আলমন্ড অয়েল/অলিভ অয়েল বা নারিকেল তেল মিশিয়ে লাগান।

পায়ের জন্য যে কোন ভাল মানের ফুট ক্রিম ব্যবহার করতে পারেন।

মাঝে মাঝে নারিকেল তেল গরম করে পায়ের তালুতে ম্যাসাজ করে লাগালেও উপকার পাওয়া যায়।

অফিসে বসে পায়ের গোড়ালিতে ভ্যাসিলিন বা ময়েশ্চারাইজার লাগানো সম্ভব নয়। তাই ব্যাগে ফুটক্রিম বা কম দামের চ্যাপস্টিক রাখুন। মাঝে মাঝে গোড়ালির ফাটা অংশে চ্যাপস্টিক দিয়ে কয়েকবার ঘষে নিন। এতে কোন ক্রিম বা ভ্যাসিলিন হাত দিয়ে লাগানোর ঝামেলা থাকে না। মাঝে মাঝে পাকা কলার পেস্ট তৈরি করে ফাটা জায়গায় লাগিয়ে ২০ মিনিট রেখে ধুয়ে ময়েশ্চারাইজার লাগান।

শান্তনা রহমান

স্কিন এ্যান্ড হেয়ার এক্সপার্ট, স্বত্বাধিকারী

গ্লোরিয়াস বিউটি কেয়ার এ্যান্ড স্পা