২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ব্রাসেলসে পুলিশের সাঁড়াশি অভিযান॥ গ্রেপ্তার ১৬

ব্রাসেলসে পুলিশের সাঁড়াশি অভিযান॥ গ্রেপ্তার ১৬

অনলাইন ডেস্ক ॥ বেলজিয়ামে বড় ধরনের হামলার আশঙ্কায় সতর্কতা জারির পর রাতভর অভিযান চালিয়ে দেশটির পুলিশ ১৬ জনকে আটক করলেও প্যারিস হামলার অন্যতম সন্দেহভাজন সালাহ আবদেস্লাম এখনও লাপাত্তা।

বেলজিয়ামের প্রসিকিউটরের বরাত দিয়ে বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, সন্দেহভাজন সন্ত্রাসীদের ধরতে রোববার ব্রাসেলস ও শার্লেরুইজুড়ে ২২টি স্থানে অভিযান চালিয়েছে পুলিশ।

এর মধ্যে মোলেনবিকে একটি গাড়ি লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে পুলিশ, যাতে এক সন্দেহভাজন আহত হন। পরে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

অভিযানে সব মিলিয়ে মোট ১৬ জনকে গ্রেপ্তার করা হলেও পুলিশ কোনো ধরনের অস্ত্র বা বিস্ফোরক উদ্ধার করতে পারেনি ।

প্যারিসের মতো হামলার আশঙ্কায় রাজধানী ব্রাসেলসে সর্বোচ্চ সতর্কতা জারির পর গত তিন দিন ধরে সেখানে স্কুল বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ, মেট্রো রেলও চলছে না।

সেইসঙ্গে জাদুঘর, সিনেমা হলসহ বিনোদন কেন্দ্রগুলো বন্ধ থাকায় নিরাপত্তার চাদরে কার্যত অচল হয়ে পড়েছে বেলজিয়ামের রাজধানী।

১২ লাখ মানুষের এই শহরে এখন পথে পথে সৈন্যরা টহল দিচ্ছে। ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও ন্যাটোর সদর দপ্তর রয়েছে ব্রাসেলসে।

প্রধানমন্ত্রী চার্লস মিশেল সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে নাগরিকদের সতর্ক করে বলেন, “আমরা আশঙ্কা করছি, প্যারিসে যেভাবে হয়েছিল, তেমনভাবে এখানেও হামলা হতে পারে। কয়েকজন একযোগে কয়েকটি স্থানে হামলা চালাতে পারে।”

বেলজিয়ামের পাশের দেশ ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে এক সপ্তাহ আগে একসঙ্গে ছয়টি স্থানে একযোগে ওই সন্ত্রাসী হামলায় অন্তত ১৩০ জন নিহত হন। পরে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক উগ্রপন্থি দল আইএস তার দায় স্বীকার করে।

প্যারিসে হামলার মূল পরিকল্পনাকারী হিসেবে যাকে চিহ্নিত করা হয়, সেই আবদেলহামিদ আবাউদ ছিলেন বেলজিয়ামের নাগরিক। হামলার কয়েকদিনের মধ্যে প্যারিসের উপকণ্ঠে একটি বাড়িতে পুলিশি অভিযানে তিনি নিহত হন। আইএসের আরও সক্রিয় সদস্য বেলজিয়ামে অবস্থান করছেন বলে ধারণা করা হয়।