২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

চীন-বাংলাদেশ ফটোগ্রাফি প্রতিযোগিতায় সেরা শরীফুল

ছবি কথা বলে। ফ্রেমে বাঁধা পড়া ছবি কখনও কখনও চারপাশকে জানান দেয় তার বেঁচে থাকার কথা। দক্ষ চিত্রশিল্পীরা জানেন ছবির গল্প। এমনই একটি ছবি তুলে সম্প্রতি পুরস্কার জিতেছেন বাংলাদেশের আলোকচিত্র শিল্পী শরীফুল ইসলাম। ‘ইমেজ অব ফ্রেন্ডশিপ বিটুইন চায়না এ্যান্ড বাংলাদেশ’ শীর্ষক ফটোগ্রাফি প্রতিযোগিতায় শরীফুল বেস্ট ফটোগ্রাফারের পুরস্কার পান।

শরীফুল ইসলাম জানিয়েছেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বারান্দা দিয়ে হাঁটতে হাঁটতেই আমার ফটোগ্রাফি জীবনের শুরু। এর পর কখন হঠাৎ ক্যামেরার প্রেমে পড়ে যাই তাও ঠিক মনে নেই। ছবির মাধ্যমেও শিল্পচর্চা সম্ভব। এই শিল্পচর্চায় এক ধরনের চ্যালেঞ্জ থাকে। চ্যালেঞ্জ জয়ের আনন্দও থাকে। এভাবেই নির্বাক ছবিকে গল্পে রূপান্তরের লোভ এক সময় আমাকে ভালভাবে পেয়ে বসল। ফটোগ্রাফির প্রতি ভালবাসা থেকেই কর্মজীবন শুরু করি পত্রিকায় ফটো সাংবাদিক হিসেবে। ইত্তেফাক, ইনকিলাব, নয়া দিগন্ত পত্রিকায় পেশাদার ফটোগ্রাফির দায়িত্ব পালন শেষে বর্তমানে চায়নার রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা সিনহুয়াতে স্টাফ ফটোজার্নালিস্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করছি।

চীন বাংলাদেশ মৈত্রী সম্পর্কের ৪০ বছর পূর্তি ফটোগ্রাফি প্রতিযোগিতায় আমি সেরা পুরস্কারটি পেয়েছি। এটি আমার জীবনের অন্যতম একটি অর্জন। জাতীয় জাদুঘরের নীলানিকান্ত ফট্রাশালি অডিটোরিয়ামে আমার ছবি প্রদর্শিত হয়েছে। এছাড়া চীনেও প্রদর্শিত হবে আমার ছবি।

সিরাজগঞ্জের ছেলে শরিফুল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে একাডেমিক পড়াশোনা শেষ করে বাংলাদেশ প্রেস ইন্সটিটিউট থেকে পেশাদার সাংবাদিকতার ওপর তিনি পোস্টগ্রাজুয়েট ডিপ্লোমা করেন। এ ছাড়া সাউথ এশিয়ান ইনস্টিটিউট অব ফটোগ্রাফি-পাঠশালা থেকে ফটোজার্নালিসমের ওপর ডিপ্লোমা করেছেন। প্রায় দুই দশক ধরে ফটোগ্রাফি নিয়ে কাজ করছেন শরিফুল। এর আগেও ফটোগ্রাফির ওপর বেশকিছু মর্যাদাশীল পুরস্কার অর্জন করেছেন। তার মধ্যে ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব মাস কমিউনিকেশন (নিমকো), ঢাকা ইউনিভার্সিটি ফটোগ্রাফিক সোসাইটি (ডিইউপিএস) আয়োজিত ফটো কনটেস্টের সেরা ফটোগ্রাফারের পুরস্কার উল্লেখযোগ্য।

ইমেজ অব ফ্রেন্ডশিপ বিটুইন চায়না এ্যান্ড বাংলাদেশ শীর্ষক ফটোগ্রাফি প্রতিযোগিতার বেস্ট ফটোগ্রাফারের পুরস্কার ছাড়াও ২টি বিশেষ ক্যাটাগরির সেরা পুরস্কার পেয়েছেন বাংলাদেশ ফটোজার্নালিস্ট এ্যাসোসিয়েশনের সদস্য শরীফুল ইসলাম। বাংলাদেশ ও চীনের কূটনৈতিক সম্পর্কের ৪০ বছর পূর্তি উপলক্ষে এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করছে যৌথভাবে রেডিও চায়না, চায়না দূতাবাস ও বাংলাদেশের জাতীয় জাদুঘর। ল্যান্ডস্কেপ, পোট্রেট ও মানবিক আবেদন- এই তিনটি ক্যাটাগরিতে ২টি বিশেষ পুরস্কারসহ মোট ২০টি পুরস্কার দেয়া হয়।

ডিপ্রজন্ম ডেস্ক