২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

চিটাগাংয়ের বিরুদ্ধে আজ জিততে চায় কুমিল্লা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ আগের সব আসরেই যেসব বিভাগীয় দল খেলেছে সেইসব দল থেকেই এবার ৫টি দল আছে। শুধু নতুন দল হিসেবে আছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। এ দলটি প্রথম ম্যাচেই অসহায় আত্মসমর্পণ করেছে। ম্যাচ যদিও শেষ ওভারে গড়িয়েছিল, তবে ঢাকা ডায়নামাইটসের কাছে ৬ উইকেটে হেরেছে। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের (বিপিএল-টি২০) তৃতীয় আসরের শুরুটা বাজেভাবেই হয়েছে মাশরাফি বিন মর্তুজার দল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের। আজ দলটির দ্বিতীয় ম্যাচ। প্রতিপক্ষ চিটাগাং ভাইকিংস। ম্যাচটিতে প্রথম জয় পাওয়ার জন্যই নামবে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।

আজ আরও একটি ম্যাচ রয়েছে। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ও চিটাগাং ভাইকিংসের মধ্যকার ম্যাচটি দুপুর ২টায় শুরু হবে। দিনের আরেকটি ম্যাচ শুরু হবে সন্ধ্যা পৌনে ৭টায়। এ ম্যাচে সিলেট সুপার স্টারস ও বরিশাল বুলস মুখোমুখি হবে।

প্রথমবারের মত বিপিএলে খেলতে নেমে প্রথম ম্যাচেই হার হলেও দ্বিতীয় ম্যাচ থেকেই জয়ের দেখা পেতে চায় কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের কোচ মোহাম্মদ সালাউদ্দিন। তিনি বলেছেন, ‘আমাদের শেষ ম্যাচে যে ভুলগুলো হয়েছে সেগুলো শুধরে নেয়ার চেস্টা করছি। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সেই জায়গাগুলো ঠিক করে নেয়ার চেস্টা করব। কথা বলছি কিন্তু কথা বললেই হবে না। মাঠে এগুলো প্রয়োগ করতে হবে। একজন বিদেশী খেলোয়াড়কে সকালে এসে মাঠে নামিয়ে দেয়াটা কঠিন। সে সময়ে টিম স্পিরিট ও কম্বিনেশন কোচের পক্ষে বের করা কঠিন। তারপরও আমরা চেষ্টা করছি।’

প্রথম ম্যাচে ৩৬ রান করতেই ৫ উইকেট হারিয়ে ফেলেছিল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। সেখানেই মূলত ম্যাচ হেরে যায় দলটি। সেই ভুলগুলো নিয়েই কাজ করতে হচ্ছে। যেন আর না হয়। সালাউদ্দিন যেমন বললেন, ‘প্রথম ছয় ওভারে আমরা সবচেয়ে বেশি ভুল করে ফেলেছি। ওখান থেকে ম্যাচে ফিরে আসাটা খুব কষ্টসাধ্য ছিল। চার উইকেট পড়ে যাওয়া, এরপর রানও বেশি হয়নি; আমার মনে হয় ওখানেই আমরা ম্যাচে হেরে গেছি। তবে আমাদের কিছু ইতিবাচক দিকও আছে। ১১০ করার পরও আমরা শেষ ওভারে ম্যাচ নিতে পেরেছি। এটা আমাদের জন্যে ইতিবাচক। নতুন কিছু ছেলে আছে যারা ভাল বল করেছে। প্রথম ছয় ওভারে আমরা যে ভুলগুলো করেছি সেগুলো যেন আর না করি সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।’

ঢাকা ডায়নামাইটসে পেসারের ছড়াছড়ি ছিল। শুরুতে পেসাররাই কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বারোটা বাজিয়ে দিয়েছিল। আবুল হাসান রাজু, ফরহাদ রেজা ও মুস্তাফিজুর রহমান ছিলেন। এবার চিটাগাং ভাইকিংসের বিপক্ষে খেলা। এ দলটিতেও তুখোড় পেসার আছে। মোহাম্মদ আমের, তাসকিন আহমেদের সঙ্গে শফিউল ইসলামও আছেন। সালাউদ্দিন প্রথম ম্যাচের স্মৃতি টেনে জানান, ‘আমরা স্ট্রাগল করিনি। আমরা উইকেট উপহার দিয়ে এসেছি। আমাদের টপঅর্ডাররা খুব বাজে ব্যাটিং করেছে। মুস্তাফিজের জন্যে একটা পরিকল্পনা ছিল; কিন্তু সে শুধু প্রথমে স্যামুয়েলসের উইকেটটিই পেয়েছে। বাকিগুলো অন্যরা পেয়েছে। বাকি বোলারদের ওপর চাপ প্রয়োগ করতে গিয়ে আমরা উইকেট হারিয়েছি। এটাই আমাদের ভুল হয়েছে।’

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সে সেই রকমভাবে কোন অলরাউন্ডার নেই। এ নিয়ে আক্ষেপ আছে দলটির কোচের, ‘আমরা একজন অলরাউন্ডারের অভাব অনুভব করছি প্রথম থেকেই। যেহেতেু আন্দ্রে রাসেল আসেনি, এই অভাবটা আমাদের ভুগাচ্ছে। ওর মতো যদি একটা খেলোয়াড় পাওয়া যায় তাহলে আমাদের জন্যে ভাল হবে।’