১৯ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

জাপানী নাগরিক মৃত্যুর ঘটনায় আটক ৫

জাপানী নাগরিক মৃত্যুর ঘটনায় আটক ৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশে অবৈধভাবে বসবাসরত জাপানী নাগরিক হিরোই মিয়াতার (৬১) রহস্যজনক মৃত্যুর ঘটনায় ঢাকার উত্তরা এলাকা থেকে ৫ জনকে আটক করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশ। এই পাঁচজন হলেন মারুফুল ইসলাম, রাশেদুল হক বাপ্পী, ফকরুল ইসলাম, ডা. মিলন চন্দ্র শীল ও জাহাঙ্গীর আলম। এদের সকলে বয়স ৪০ থেকে ৫০ এর মধ্যে।

বিভিন্ন সূত্র থেকে জানা যায় জাপানী নাগরিক হিরোই মিয়াতার দীর্ঘদিন যাবত বাংলাদেশে বসবাস করে আসছেন। ২০০৬ সাল থেকে তিনি অবৈধভাবে বাংলাদেশে অবস্থান করে আসছিলেন। কিছুদিন যাবত হিরোই মিয়াতা জাপানে তার মায়ের সঙ্গে যোগাযোগ করছিলেনা। এই প্রেক্ষিতে তার মা বাংলাদেশে জাপানী দূতাবাসের কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। জাপানী দূতাবাস তার হদিস না পেয়ে ১৯ নবেম্বর ২০১৫ উত্তরার পূর্ব থায়ায় একটি সাধারন ডায়রি করে। এই প্রেক্ষিতে পুলিশ তদন্ত শুরু করে। তদন্ত শেষে পুলিশ উক্ত ৫জনকে আটক করে।

আটত কৃতরা জানায় এই জাপানী নাগরিক ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু বরণ করে। সেই নারী যেহেতু অবৈধভাবে বাংলাদেশে অবস্থান করছিলেন তাই বিষয়টি কোন হাসপাতাল বা পুলিশের কাছে অবহতি করেনি তারা। মৃত্যুর পর অবৈধ নাগরিকের লাশ নিজ দেশে পাঠানো সম্ভব নয় জেনেই সেই নারী মুসলিম ধর্মের হওয়ার কারণে তাকে উত্তরার খানপাড় কবরস্থানে দফন করে। এই ঘটনায় লাশ গুমের অভিযোগ রয়েছে তাই পুলিশ গতকাল সোবমার ২৩ নবেম্বর সংশ্লিষ্ট থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। সোমবার লাশ উত্তলন করে পুলিশ ময়লা তদন্তের অনুমতি চেয়ে ঢাকার সি এম এম আদালতে আবেদন করে। আদালত আগামী ২৬ নবেম্বর শুনানির দিন নির্ধারন করে। এই ৫জনকে ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হচ্ছে।

মঙ্গলবার সকাল ১১ টায় ডি এম পির মিডিয়া সেন্টারে এ বিষয়ে সাংবাদিকদের বিস্তারিত জানাতে চেয়েও পরবর্তিতে তা বাতিল করে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে জাপানী দূতাবাসের অনুরোধে তা স্থাগিত করা হয়েছে।