২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

‘সিরিয়ায় মার্কিন স্থল অভিযানে বৈশ্বিক সমর্থন নেই’

অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী ম্যালকম টার্নবুল বলেছেন, সিরিয়ায় ইসলামিক স্টেট (আইএস) জঙ্গীদের ধ্বংস করতে মার্কিন নেতৃত্বাধীন স্থল অভিযানের প্রতি বিশ্বের সমর্থন নেই। জিহাদীদের পরাজিত করতে সংকল্প কখনই জোরদার ছিল না বলেও তিনি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন। আইএস ও অন্যান্য জঙ্গী সংগঠনের হুমকি মোকাবিলায় সিরিয়ায় স্থল অভিযান জোরদারের জন্য ক্যানবেরায় আহ্বান জোরালো হচ্ছে। তবে সম্প্রতি কয়েকটি বৈশ্বিক সম্মেলনে যোগদানের পর টার্নবুল মঙ্গলবার পার্লামেন্টে জাতীয় নিরাপত্তা বিষয়ক ভাষণে বলেন, স্থল অভিযান চালানোর কোন ইচ্ছে নেই।

তিনি বলেন, ‘আমি হাউজকে জানাতে চাই, জি-২০, এ্যাপেক ও পূর্ব এশিয়া সম্মেলনে অংশ নেয়া নেতৃবৃন্দ ঐকমত্যের ভিত্তিতে এখনই আইএস নিয়ন্ত্রিত এলাকাগুলো মুক্ত করতে মার্কিন নেতৃত্বাধীন পশ্চিমা সেনাবাহিনীর অভিযানের দরকার নেই বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে।’ এর আগে তুরস্কে জি-২০ সম্মেলনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাও একই সুরে কথা বলেছিলেন। তিনি বলেছিলেন, বিশ্বের কোথাও আইএস নেতৃবৃন্দের নিরাপদ আশ্রয় হতে দেয়া যাবে না। তিনি সিরিয়ায় মার্কিন স্থল বাহিনী না পাঠিয়ে আইএসের বিরুদ্ধে বিরামহীন অভিযান চালানোর অঙ্গীকার করেন। অস্ট্রেলিয়া গত কয়েক মাস ধরে ইরাকে সক্রিয় রয়েছে এবং সম্প্রতি সিরিয়ায় বিমান হামলা শুরু করেছে। টার্নবুল বলেন, ‘বিশ্বে ও আমাদের নিজস্ব অঞ্চলে নিরাপত্তা অস্ট্রেলিয়ার কাছে অগ্রাধিকার বিষয় এবং ইরাকে ও সিরিয়ায় অস্ট্রেলিয়ার সামরিক অঙ্গীকারের প্রকৃতি বা পর্যায়ের উল্লেখযোগ্য পরিবর্তনের পরিকল্পনা নেই।’ তিনি বলেন, সিরিয়া বা ইরাকে একতরফাভাবে অস্ট্রেলিয়ার সেনা মোতায়েন যুক্তিযুক্ত বা বাস্তবসম্মত হবে না। -এএফপি

মার্কিন বিমান হামলায় ২৩৮ লরি ধ্বংস

সিরিয়ার উত্তরপূর্বাঞ্চলে জঙ্গীগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) নিয়ন্ত্রণে থাকা ২৩৮টি জ্বালানিবাহী লরি যুক্তরাষ্ট্রের বিমান হামলায় ধ্বংস হয়েছে। সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনীর দেয়া এক বিবৃতিতে এ কথা বলা হয়েছে।

ধারণা করা হচ্ছে, লরিগুলোকে এক সঙ্গে পার্ক করা অবস্থায় দেখতে পায় যুক্তরাষ্ট্রের পাইলটরা। আল হাসাকাহ্ ও দায়ির আজ জাওরের কাছে একটি তেল শোধনাগারে জ্বালানি ভরার অপেক্ষায় ছিল সেগুলো। লরিগুলো ধ্বংসের আগে সেগুলোর বেসামরিক চালকদের সরে যেতে সতর্কতামূলক গুলিবর্ষণ করা হয়েছিল বলে বিবৃতিতে জানানো হয়েছে। গেল সপ্তাহান্তে চালানো এ হামলার ভিডিও প্রকাশ করা হবে বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় (পেন্টাগন)।

একই ধরনের অপর একটি হামলায় গেল সপ্তাহে ১১৬টি তেলবাহী লরি ধ্বংস করা হয়েছিল।

পেন্টাগনের মুখপাত্র ক্যাপ্টেন জেফ ড্যাভিস বলেন, এ হামলাটি অনেকটা আমাদের শেষ হামলাটির মতো। সতর্কতামূলক গুলিবর্ষণের পাশাপাশি লরি ছেড়ে চলে যাওয়ার জন্য চালকদের উদ্দেশে লিফলেটও ছাড়া হয়। সিরিয়া ও ইরাকে দখল করা তেলক্ষেত্রগুলোর তেল বিক্রি থেকে আইএস প্রচুর আয় করে থাকে। -বিবিসি