২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সিরাজগঞ্জে আটক জেএমবির ৫ নেতার সাক্ষ্য গ্রহণ শুরু

  • সন্ত্রাস দমন আইনে মামলা

স্টাফ রিপোর্টার, সিরাজগঞ্জ ॥ নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গী সংগঠন জামাআতুল মুজাহিদীনের (জেএমবি) প্রধান সমন্বয়ক আব্দুল নুরসহ আটক জেএমবির ৫ নেতার উপস্থিতিতে মঙ্গলবার সিরাজগঞ্জে সন্ত্রাস দমন আইনে দায়ের করা মামলায় সাক্ষ্য গ্রহণ শুরু হয়েছে।

মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টায় গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগার থেকে আসামিদের সিরাজগঞ্জ আদালতে আনা হলে মামলার বাদী ও র‌্যাব-১২ এর অপরাধ দমন বিশেষ শাখার উপ-সহকারী পরিচালক (ডিএডি) রেজাউল করিম, সৈনিক হাসান আলী ও জামিল হোসেন সিরাজগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ১ম আদালতে সাক্ষ্য দেন।

পরে একই আদালতে সন্ত্রাস দমন আইনে দায়ের করা অপর একটি মামলায় জেএমবির এই ৫ নেতার বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করা হয়। সিরাজগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ১ম আদালতে বিচারক ড. ইমান আলী শেখ চার্জ গঠন করেন।

আসামিরা হলেনÑ জেএমবির প্রধান সমন্বয়ক আব্দুল নুর, এহসার সদস্য নুরুজ্জামান আরিফ, গায়েবে এহসার সদস্য আবুল কালাম আজাদ, ফারুক আহম্মেদ ও নুর ইসলাম সাগর।

গাইবান্ধায় পুলিশ সদস্যের স্ত্রী ও মেয়ের রহস্যজনক মৃত্যু

নিজস্ব সংবাদদাতা, গাইবান্ধা, ২৪ নবেম্বর ॥ গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ থানায় কর্মরত কনস্টেবল পরিমল চন্দ্র রায়ের স্ত্রী কৃষ্ণা রায় (২৫) ও তার ২০ মাস বয়সী মেয়ে অর্পিতা রানীর রহস্যজনক মৃত্যু নিয়ে এলাকায় তোলপাড় শুরু হয়েছে। সুন্দরগঞ্জ পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ডের বামনজল এলাকায় নিজ বাসায় মঙ্গলবার ভোরে এ ঘটনা ঘটে। কনস্টেবল পরিমল সুন্দরগঞ্জে যোগদানের পর থেকে ওই এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে সেখানে বসবাস করছিলেন। ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ সকালে কৃষ্ণা রায়ের গলায় ফাঁস দেয়া ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে। কনস্টেবল পরিমল ঠাকুরগাঁও জেলার পীরগঞ্জ উপজেলার আকাশীল গ্রামের মৃত অক্ষয় কুমারের ছেলে। তার স্ত্রী কৃষ্ণা রায় ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার কালিতলাগাও গ্রামের মৃত নলিনী কান্ত রায়ের মেয়ে।

থানা সূত্রে জানা গেছে, কনস্টেবল পরিমল চন্দ্র অন্যান্য দিনের ন্যায় স্ত্রী কৃষ্ণা রায় ও তার শিশু কন্যা অর্পিতা রায়কে নিয়ে রাতে ঘুমিয়ে পড়েন। ভোরে পরিমল ঘুম থেকে জেগে দেখতে পান তার মেয়ে অর্পিতা রায় বিছানায় মৃত অবস্থায় পড়ে রয়েছে। এ সময় তিনি স্ত্রী কৃষ্ণাকে বিছানায় দেখতে না পেয়ে ঘরের বাইরে তাকে খুঁজতে বের হন। তিনি বাইরে এসে রান্নাঘরের ধরনার সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় কৃষ্ণা রায়ের লাশ দেখতে পেয়ে থানায় খবর দেন। এলাকাবাসী জানান, পরিমলের সঙ্গে তার স্ত্রী কৃষ্ণার মাঝেমধ্যেই ঝগড়াঝাটি হতো। পারিবারিক দ্বন্দ্বের কারণেই এ মৃত্যুর ঘটনা ঘটতে পারে বলে তাদের ধারণা। এ ব্যাপারে সুন্দরগঞ্জ থানায় একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে।