২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ফরিদপুরে যৌনপল্লীর সর্দারনীর যাবজ্জীবন

নিজস্ব সংবাদদাতা, ফরিদপুর, ২৪ নবেম্বর ॥ ১৪ বছরের এক কিশোরীকে পাচার করে এনে আটকে রেখে জোর করে দেহ ব্যবসা করানোর অভিযোগে মানবপাচার প্রতিরোধ দমন আইনে দোষী সাব্যস্ত করে ফরিদপুর শহরের রখখোলা যৌনপল্লীর সর্দারনী মমতাজ বেগমকে যাবজ্জীবন কারাদ- ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে আদালত।

মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে ফরিদপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের জজ বজলুর রহমান এই আদেশ দেন। একই আদেশে আদালত জরিমানার এ টাকা ক্ষতিগ্রস্ত কিশোরীর পরিবারকে দেয়ার নির্দেশ দিয়েছে। রায় ঘোষণার সময় আসামি মমতাজ বেগম আদালতে উপস্থিত ছিলেন। মানবপাচার আইন হওয়ার পর ফরিদপুরে এটিই প্রথম রায়।

আদালতের পিপি বাবু মোল্লা জানান, কিশোরীর মামার অভিযোগের ভিত্তিতে ২০১২ সালের ২ জানুয়ারি জাতীয় মহিলা আইনজীবী সমিতির সহায়তায় ফরিদপুর শহরের রথখোলা যৌনপল্লী থেকে কিশোরীকে উদ্ধার করা হয়। একই অভিযানে গ্রেফতার করা হয় মমতাজ বেগমকে।

চট্টগ্রামে ভ্রাম্যমাণ আদালতের ওপর হামলা ॥ আহত ২

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ বন্দর নগরীতে ভেজাল ওষুধ বিরোধী ভ্রাম্যমাণ আদালতের ওপর হামলা চালিয়েছে ওষুধ বিক্রেতারা। হামলায় দুই আনসার সদস্য আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে নগরীর ওষুধের সর্ববৃহৎ পাইকারি বাজার হাজারি গলিতে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ এ ঘটনায় চারজনকে আটক করেছে। এদিকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের ওপর হামলা চালিয়েই ক্ষান্ত হয়নি দোকান মালিকরা উল্টো ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার প্রতিবাদ ও আটকদের মুক্তির দাবিতে ওষুধ বিক্রি বন্ধ রেখেছে তারা। জানা গেছে, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রুহুল আমিন হাজারি গলির ফার্মেসিতে ভেজাল ওষুধ বিরোধী অভিযান শুরু করেন। কয়েকটি দোকান থেকে সরকারী, মেয়াদ উত্তীর্ণ ও নকল ওষুধ জব্দ করে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় হঠাৎ করেই দোকান মালিক ও কর্মচারীরা আনসার সদস্যদের লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল ছুড়তে থাকে।

দ্বন্দ্বে মাছ নিধন

নিজস্ব সংবাদদাতা, নারায়ণগঞ্জ, ২৪ নবেম্বর ॥ আড়াইহাজারে দুর্বৃত্তরা মুকবুল হোসেনের পুকুরে বিষ দিয়ে ১০ লাখ টাকার মাছ নিধন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে সকালে উপজেলার খাগকান্দা ইউনিয়নের কাকাইলমোড়া এলাকায়। জানা গেছে, মঙ্গলবার সকালে উপজেলার খাগকান্দা ইউনিয়নের কাকাইলমোড়া এলাকার মুকবুল হোসেনের মালিকাধীন পুকুরে বিষ ঢেলে দেয় দুর্বৃত্তরা। কিছুক্ষণ পরই পুকুরের মাছ মরে ভেসে উঠতে থাকে। দুপুরের মধ্যে পুকুরের সকল মাছ মরে ভেসে উঠে বলে ক্ষতিগ্রস্তরা জানায়।

বাল্য বিয়ের দায়ে বরের জেল

নিজস্ব সংবাদদাতা, মাগুরা, ২৪ নবেম্বর ॥ নড়িহাটি গ্রামে বাল্য বিয়ে করতে গিয়ে সোমবার রাতে বর মনিরুজ্জামানকে (২৪) হাতে নাতে ধরে সাত দিনের কারাদ- দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ কারাদ- প্রদান করেন। জানা গেছে, মাগুরা সদর উপজেলার হাজরাপুর গ্রামের মনিরুজ্জামানের সঙ্গে একই উপজেলার নড়িহাটি গ্রামের সপ্তম শ্রেণী পড়ুয়া রোজিনার (১৩) বিয়ের দিন ঠিক হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ ইয়ারুল ইসলামের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত বিয়ে বাড়িতে হাজির হন। উপস্থিত স্বাক্ষীদের বক্তব্যে বাল্য বিয়ের প্রমাণ পেলে বর মনিরুজ্জামানকে ৭ দিনের কারাদ- এবং বিয়ের আয়োজনকারী পাত্রীর বাবা অকিদুল শেখ ও পাত্রের নানা সরেমান ঢালিকে ১ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়।