২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সিরিয়া সীমান্তের কাছে রুশ জঙ্গীবিমান ভূপাতিত করেছে তুরস্ক

সিরিয়া সীমান্তের কাছে রুশ জঙ্গীবিমান ভূপাতিত করেছে তুরস্ক
  • আকাশসীমা লঙ্ঘনের তুর্কী অভিযোগ মস্কোর অস্বীকার

সিরিয়া সীমান্তের কাছে তুরস্কের আকাশসীমায় ঢুকে পড়া একটি রুশ যুদ্ধবিমানকে গুলি করে ভূপাতিত করেছে তুরস্ক। তুরস্ক জানিয়েছে, এসইউ-২৪ যুদ্ধবিমানটিকে পাঁচ মিনিটের মধ্যে অন্তত ১০ বার সতর্কবার্তা দেয়া হয়েছিল, কিন্তু তা অগ্রাহ্য করায় সেটিকে গুলি করে নামানো হয়েছে। খবর বিবিসি, আল-জাজিরা ও ওয়েবসাইটের।

তুরস্কের প্রেসিডেন্টের কয়েকটি সূত্র জানিয়েছে, বিমানটি রাশিয়ার তৈরি এসইউ-২৪ যুদ্ধবিমান। রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ও বলেছে, তাদের একটি এসইউ-২৪ বিমান সিরীয় এলাকায় ভূমি থেকে ছোড়া গুলির আঘাতে বিধ্বস্ত হয়েছে। মঙ্গলবার এ ঘটনা ঘটে। পাইলটের ভাগ্যে কি ঘটেছে তা জানার চেষ্টা চলছে। প্রাথমিক খবরে পাইলট বিমান থেকে বের হয়ে যেতে সক্ষম হন বলে মন্ত্রণালয়ের উদ্ধৃতি দিয়ে জানিয়েছে রাশিয়ার ইন্টারফ্যাক্স বার্তা সংস্থা। মস্কো সিরিয়া সীমান্তে তুরস্কের আকাশসীমা লঙ্ঘনের অভিযোগ অস্বীকার করেছে এবং যুদ্ধবিমানটি যে সিরিয়ার আকাশে ছিল এর প্রমাণও আছে বলে দাবি করেছে। তুরস্কের বেসরকারী হ্যাবেরতুর্ক টিভির সম্প্রচারিত ফুটেজে দেখা গেছে, জলন্ত একটি যুদ্ধবিমান বন এলাকায় পড়ে যাচ্ছে এবং বিমানটির পেছনে ধোঁয়ার দীর্ঘ কু-লী। তুরস্কের আরেকটি বার্তা সংস্থা আনাদলুর ফুটেজে দেখা গেছে, বিমানটি বিধ্বস্ত হওয়ার আগে এর দুই পাইলট প্যারাসুটে করে বের হয়ে গেছেন। একজন পাইলট সিরিয়ার তুর্কমেন বাহিনীর হাতে পড়েছে এবং আরেকজনের খোঁজ চলছে। হ্যাবেরতুর্ক জানায়, তুর্কি সীমান্তের কাছে সিরিয়া সীমান্তের ভেতরে ‘তুর্কেমেন পর্বতমালা’ হিসেবে পরিচিত একটি এলাকায় বিমানটি ভূপাতিত হয়েছে। দ্বিতীয় আরেকটি বিমানও সীমান্তের কাছে এসেছে এবং সেটিকেও সতর্ক করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তুরস্কের কর্মকর্তারা।

১৯৫০-এর দশকের পর এই প্রথম ন্যাটোভুক্ত কোনো দেশের সশস্ত্র বাহিনী রাশিয়ান কিংবা সোভিয়েত সামরিক বিমান ভূপাতিত করল। ক্রেমলিনের মুখপাত্র একে ‘খুবই মারাত্মক ঘটনা’ বলে বর্ণনা করেছেন। তবে এ বিষয়ে এখনই কোনো সিদ্ধান্ত টানার সময় আসেনি বলেও জানান তিনি। সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের পক্ষ হয়ে রাশিয়া সিরিয়ার বিভিন্ন বিদ্রোহী পক্ষের ওপর ব্যাপক বিমান হামলা চালাচ্ছে। এর আগে রাশিয়ার যুদ্ধবিমানের বিরুদ্ধে সীমান্ত লঙ্ঘনের অভিযোগ করে একাধিকবার হুঁশিয়ারি দিয়েছিল তুরস্ক। চলতি সপ্তাহে অনুষ্ঠিত জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে সিরিয়ায় তুর্কমেনদের ওপর হামলা নিয়ে আলোচনার জন্য তুরস্ক আহ্বান জানিয়েছিল, আর তুর্কমেনদের গ্রামে বোমাবর্ষণ করায় গত সপ্তাহে রুশ রাষ্ট্রদূতকে ডেকে পাঠিয়েছিল আঙ্কারা। সিরীয় তুর্কমেনরা তুর্কি বংশোদ্ভূত। সিরিয়ার নাগরিক হলেও এদের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশের ঐতিহ্য আছে তুরস্কের। তুর্কি প্রধানমন্ত্রীর দফতর থেকে দেয়া এক বিবৃতিতে সিরীয় সীমান্তের পরিস্থিতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী আহমেত দাভুতোগলু সামরিক বাহিনীর প্রধান ও পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছেন বলে জানানো হয়েছে। তবে বিবৃতিতে য্দ্ধুবিমান ভূপাতিত করার বিষয়টি উল্লেখ করা হয়নি। দাভুতোগলু সিরীয় সীমান্তের সাম্প্রতিক ঘটনাবলী নিয়ে ন্যাটো, জাতিসংঘ ও এ সম্পর্কিত অন্য দেশেগুলোর সঙ্গে কথা বলার জন্য পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে নির্দেশ দিয়েছেন বলে বিবৃতিতে জানানো হয়।