১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নারীর ক্ষমতায়নে লিঙ্গ বৈষম্য ও জঙ্গীবাদই মূল বাধা ॥ তথ্যমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার ॥ তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে লিঙ্গ বৈষম্য দূর করতে হবে। লিঙ্গ বৈষম্য দূরের কোন বিকল্প নেই। সংবিধানে নারী-পুরুষের সমতার কথা উল্লেখ থাকলেও জীবনের খাতায় তার বাস্তবায়ন ঘটেনি। তবে লিঙ্গ বৈষম্য দূরীকরণে শেখ হাসিনার সরকারের রাজনৈতিক সদিচ্ছা রয়েছে। তা বাস্তবায়ন করতে আইনী ঘাটতি দূর করতে হবে। একই সঙ্গে নারীদের মনাসিক খাঁচা থেকে বের হয়ে আসার অহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, নিজেদের খাঁচায় বন্দী করে রাখলে চলবে না। নারীদের মানসিক খাঁচা থেকে বের হয়ে আসতে হবে।

মঙ্গলবার সকালে জাতীয় স্থানীয় সরকার ইনস্টিটিউট সম্মেলন কক্ষে ‘অপরাজিতা : নারীর রাজনৈতিক ক্ষমতায়ন, ইউনিয়ন পরিষদ স্ট্যান্ডিং কমিটির অন্তরায় ও সম্ভাবনা’ শীর্ষক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় তথ্যমন্ত্রী ইউনিয়ন পরিষদের স্ট্যান্ডিং কমিটির কার্যক্রমে সংসদ সদস্যদের অবৈধ হস্তক্ষেপের কড়া সমালোচনা করে বলেন, স্থানীয় সরকার কার্যক্রমে সংসদ সদস্য ও প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কোনভাবেই কাম্য নয়। সংসদ সদস্যদের বাধ্যতামূলক পরামর্শ-এটা অগণতান্ত্রিক। একই সঙ্গে তিনি স্থানীয় সরকারকে শক্তিশালী করতে ২৫(২) ধারা বাতিলেরও আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠানে গবেষণাপত্র উপস্থাপন করেন স্থানীয় সরকার ও প্রশিক্ষণ বিশেষজ্ঞ শেফালী বেগম। এতে বলা হয়, নারী সদস্যদের স্বল্প পরিসরে স্ট্যান্ডিং কমিটির অপেক্ষাকৃত কম গুরুত্বপূর্ণ কমিটিগুলোতে অন্তর্ভুক্ত করা হয়, যা নারীর রাজনৈতিক ক্ষমতায়নের অন্তরায়। ইউনিয়ন পরিষদ সদস্যদের মাত্র ২২ শতাংশ মনে করেন স্ট্যান্ডিং কমিটিগুলো সঠিকভাবে কাজ করছে।

প্রিপ ট্রাস্টের নির্বাহী পরিচালক আরমা দত্তের সঞ্চালনা ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার ঝিলিম ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচিত নারী প্রতিনিধি শিরীন আখতার মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন।