২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রাজবাড়ী এখন সরগরম

নিজস্ব সংবাদদাতা, রাজবাড়ী, ২৫ নবেম্বর ॥ আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে রাজবাড়ী শহর এখন সরগরম। আওয়ামী লীগের দুই প্রার্থীর ব্যানার, পোস্টার আর ফেস্টুনে ছেয়ে গেছে শহরের প্রতিটি অলিগলি। প্রার্থীদের একজন রাজবাড়ীÑ১ আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য কাজী কেরামত আলীর ছোট ভাই জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি কাজী ইরাদত আলী। অপরজন সংসদ সদস্য কামরুন্নাহার চৌধুরী লাভলীর স্বামী পৌর আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও সাবেক মেয়র মহম্মদ আলী চৌধুরী। এরই মধ্যে মাঠে নেমে পড়েছেন আওয়ামী লীগের এই দুই প্রার্থী। নির্বাচন ঘনিয়ে এলেও এখন পর্যন্ত নীরব ভূমিকায় রয়েছে বিএনপি। সম্ভাব্য প্রার্থী যারা ছিলেন তাদের কারও তৎপরতা ইদানীং খুব একটা লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। তবে দলীয় মনোনয়ন পেতে তারাও লবিংয়ে ব্যস্ত বলে জানা গেছে। রাজবাড়ী পৌরসভা আওয়ামী লীগের দুর্গ হিসেবে পরিচিত হলেও নিকট অতীতে মাত্র একবারই মেয়রপদটি দখলে রাখতে পেরেছিল। ২০০৪ সালের ওই নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে পৌর আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি মহম্মদ আলী চৌধুরী বিএনপির প্রার্থী মঞ্জুরুল আলম দুলালকে পরাজিত করেছিলেন। ওই নির্বাচনে দলীয় শক্তি অটুট রেখে এককভাবে প্রার্থী দিতে পেরেছিল বলেই আওয়ামী লীগের জয়টা হয়েছিল খুবই সহজ।

বর্তমানে মহম্মদ আলী চৌধুরী এবং কাজী ইরাদত আলী চালাচ্ছেন গণসংযোগ। এদিকে আওয়ামী লীগ যতটা সরব, বিএনপি ততটাই নীরব। বিএনপির সাম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে যাদের নাম শোনা যাচ্ছে তারা হচ্ছেন বর্তমান মেয়র তোফাজ্জল হোসেন, পৌর বিএনপির সভাপতি অধ্যক্ষ মঞ্জুরুল আলম দুলাল, সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী আহসানুল কবির হিটু, জেলা বিএনপির যুগ্মসম্পাদক গাজী আহসান হাবীব, সাংগঠনিক সম্পাদক আফসার আলী, জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক সাংসদ আলী নেওয়াজ মাহমুদ খৈয়মের পুত্র অর্ণব নেওয়াজ মাহমুদ এবং জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক খায়রুল আনাম বকুল।