২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নেত্রকোনায় প্রার্থীরা ধূম্রজালে

  • সিদ্ধান্তহীনতায় দল

সঞ্জয় সরকার, নেত্রকোনা ॥ পৌরসভা নির্বাচন ঘিরে নেত্রকোনায় সম্ভাব্য প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারণা জমে ওঠেছে। রাজনৈতিক দলগুলো প্রার্থী মনোনয়নের প্রক্রিয়া চূড়ান্ত না করায় মেয়র প্রার্থীরা পড়ে গেছেন ধূম্রজালে।

জানা গেছে, ১২৮ বছরের পুরনো নেত্রকোনা পৌরসভার মেয়রপদে কখনও বিএনপির প্রার্থী জয়ী হননি। গত নির্বাচনে বিএনপি কোন প্রার্থীই দিতে পারেনি। এ কারণে আওয়ামী লীগ থেকেও সুনির্দিষ্টভাবে সমর্থন দেয়া হয়নি কাউকে। এবারের চিত্রও অনেকটা সে রকম। প্রথম শ্রেণীভুক্ত নেত্রকোনা পৌরসভার বর্তমান মেয়র জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রশান্ত কুমার রায়। গত নির্বাচনে জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও তিনবার নির্বাচিত সাবেক পৌর চেয়ারম্যান মতিয়র রহমান খান এবং সাবেক মেয়র আলহাজ নজরুল ইসলাম খানকে পরাজিত করে তিনি প্রথমবারের মতো মেয়র নির্বাচিত হন। পুরনো এই প্রার্থীদের মধ্যে বর্তমান মেয়র প্রশান্ত কুমার রায় এবং সাবেক মেয়র জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্মসম্পাদক নজরুল ইসলাম খান এবারও মেয়র প্রার্থী। তাদের পাশাপাশি মাঠে রয়েছেন আরও বেশকিছু নতুন মুখ। এদের মধ্যে রয়েছেনÑ পৌর আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান খান রতন, সাবেক এমপি এ্যাডভোকেট ফজলুর রহমান খানের মেয়ে জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের যুগ্মআহ্বায়ক হাবিবা রহমান খান শেফালী, নেত্রকোনা সরকারী কলেজের সাবেক ভিপি ও জেলা রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির সেক্রেটারি গাজী মোজাম্মেল হোসেন টুকু, জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও জেলা পরিষদের প্রশাসক মতিয়র রহমান খানের মেয়ে যুব মহিলা লীগের কেন্দ্রীয় সদস্য অর্পিতা খানম সুমি, যুব ও ক্রীড়া উপমন্ত্রী আরিফ খান জয়ের ছোট ভাই জেলা যুবলীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক মাসুদ খান জনি এবং নেত্রকোনা উন্নয়নে নাগরিক আন্দোলনের আহ্বায়ক খানে আলম খান। এছাড়াও কয়েক দিন ধরে হঠাৎ করে শোনা যাচ্ছে নেত্রকোনা সরকারী কলেজের সাবেক ভিপি ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা উজ্জ্বল সাহার নাম।