২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সার্ভার সমস্যা ডিএসইতে লেনদেনে বিঘ্ন

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সার্ভার সমস্যার কারণে বৃহস্পতিবার নির্ধারিত সময়ে লেনদেন শুরু করতে পারেনি অনেক ব্রোকারেজ হাউস। ডিএসইর সার্ভারে ডাটা আপলোড না হওয়ার কারণে লেনদেনে বিঘœ ঘটে ব্রোকারেজ হাউসগুলোতে। সাড়ে এগারোটা পর্যন্ত প্রায় ৫০টি হাউসে লেনদেনে সমস্যা হচ্ছে।

বিষয়টি স্বীকার করে ডিএসইর উপমহাব্যবস্থাপক নিজাম উদ্দিন বলেন, ব্রোকারেজ হাউসগুলো দেরিতে ফাইল দিয়েছে। সকাল আটটা থেকে ফাইল আপলোড শুরুর কথা থাকলেও তারা সোয়া দশটার দিকে ফাইল আপলোড করেছে। এ কারণে সার্ভারে ফাইল আপলোড হতে সময় লেগেছে। তিনি আরও বলেন, ফাইল আপলোড না হওয়ার কারণে অনেক ব্রোকারেজ হাউস ২০ থেকে ২৫ বার পর্যন্ত ফাইল আপলোড দিয়েছে। এতে সমস্যা দেখা দিয়েছে। তবে আমরা বিষয়টি দেখছি।

ব্রোকারেজ হাউসের কর্মকর্তারা জানান, প্রতিদিন সকাল সাড়ে দশটায় লেনদেন শুরুর আগে শেয়ার লিমিট এবং ক্যাশ লিমিট ডিএসইর সার্ভারে আপলোড করতে হয়। সাধারণত সকাল দশটার মধ্যেই এ দুটি ফাইল আপলোড করা হয়। কিন্তু আজ (বৃহস্পতিবার) সকালে ফাইল আপলোড করতে সমস্যা হচ্ছিল। ফাইল আপলোড করতে না পারার কারণে সকালে লেনদেন করা যায়নি।

ইাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একটি ব্রোকারেজ হাউসের কর্মকর্তা বলেন, আমরা সকাল সাড়ে দশটার মধ্যে ক্যাশ লিমিট আপলোড করেতে সক্ষম হয়েছি। কিন্তু ক্যাশ লিমিট করতে পারিনি। এ কারণে শেয়ার ক্রয় করা সম্ভব হলেও শেয়ার বিক্রয় করতে পারছে না গ্রাহকরা। শেয়ার বিক্রি করতে না পারার কারণে গ্রাহকরা লোকসানের মুখে পড়ছেন। এর দায় কে নেবে? সকাল সোয়া এগারটা পর্যন্ত ওই হাউস ক্যাশ লিমিট ডিএসইর লেনদেন সার্ভারে আপলোড করতে পারেনি।’

অপর একটি ব্রোকারেজ হাউসের কর্মকতা জানান, সকাল দশটার দিকে শেয়ার লিমিট আপলোড করতে সমর্থ হলেও ক্যাশ লিমিট আপলোড করতে আধ ঘণ্টা দেরি হয়েছে। এ কারণে শেয়ার ক্রয়-বিক্রয়ে বড় ধরনের বিপত্তি তৈরি হয়েছে। তিনি জানান, কমপক্ষে ১০০ ব্রোকারেজ হাউস এ সমস্যার কারণে লেনদেন শুরু করতে পারেনি। কিন্তু সমস্যার সমাধান না করেই ডিএসই কর্তৃপক্ষ সকাল সাড়ে দশটায় লেনদেন শুরু করে দিয়েছে। এতে হাউসের গ্রাহকরা আর্থিকভাবে লোকসানের মুখে পড়েছেন বলেও জানান তিনি।