২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

চাঁপাইয়ে নির্বাচনী মাঠে সম্ভাব্য প্রার্থীরা

স্টাফ রিপোর্টার, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ॥ পৌরসভা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে পুরো উদ্যম নিয়ে মাঠে নেমে পড়েছে সম্ভাব্য প্রার্থীরা। দলীয় প্রার্থীরা লবিং গ্রুপিংয়ের মধ্যে থাকলেও এই রিপোর্ট লো পর্যন্ত কেন্দ্র থেকে কোন ধরনের সিগন্যাল না পেলেও তারা প্রচারে দারুণভাবে মাঠে রয়েছে। এবারের মেয়র নির্বাচন হবে দলীয় ব্যানারে। তাই আওয়ামী ীগ চাচ্ছে এবার তারা দীর্ঘদিনের ধরে রাখা বিএনপি-জামায়াতকে হটিয়ে পৌরসভার মেয়র পদ দখলে নেয়ার। কিন্তু সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে আওয়ামী লীগের অভ্যন্তরীণ কোন্দল। এখানে সদর আসনের সংসদ উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আব্দুল ওদুদ বিশ্বাসের সিদ্ধান্তই হবে চূড়ান্ত প্রার্থী মনোনয়নে। পাশাপাশি জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা মঈনুদ্দিন ম-ল এখনও প্রকাশ্যে খোলাসা করেনি তিনি কার সমর্থক। ইতোমধ্যেই এক সময়ের সোনামসজিদ স্থলবন্দরের সিএন্ডএফ নেতা অঢেল অর্থের মালিক ব্যবসায়ী ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা সামিউল হক লিটন মাঠ দাপিয়ে প্রচার দিয়ে চলেছেন তিনিই আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী। পাশাপাশি চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক উদীয়মান তরুণ আইনজীবী মিজানুর রহমানের সরব উপস্থিতি ও পোস্টার প্ল্যাকার্ড ও বিলবোর্ডের মাধ্যমে জানান দেবার চেষ্টা করছেন পৌর আওয়ামী লীগ নেতা হিসেবে তার অধিকার বেশি মনোনয়ন পাবার। এছাড়াও রয়েছে পৌর আওয়ামী লীগ সভাপতি অধ্যাপক শরীফ। জেলা যুবলীগ নেতা সাংবাদিক শহীদুল হুদা অলক প্রার্থী হবার খায়েশ নিয়ে মাঠে রয়েছেন। এছাড়াও প্রার্থী তালিকায় জেলার সর্বশ্রেষ্ঠ ধনাঢ্য ব্যক্তি, আওয়ামী লীগ নেতা বিশিষ্ট শিল্পপতি চৌধুরী এরফানের নামও এসেছে। সবাই বলেছেন, কেন্দ্রীয়ভাবে আওয়ামী লীগ যাকে মনোনয়ন দিবে তার জন্যই তারা কাজ করবেন। এদিকে ১৪ দলের শরিক জাসদের মনিরুজ্জামান মনির নাগরিক কমিটির ব্যানারে মেয়র পদে ভোট করতে চাচ্ছেন। ইতোমধ্যেই একাধিক শো-ডাউন করেছেন। পাশাপাশি জাপা এরশাদ থেকে জেলা সম্পাদক মোঃ শাহজাহান আলী মেয়র পদে প্রার্থী হতে চাচ্ছেন। সব চেয়ে বেকায়দায় রয়েছে বিএনপি, তারা জামায়াত থেকে বহিষ্কৃত সাবেক পৌর মেয়র আতাউর রহমানকে দলে ভিড়িয়েছেন মেয়র পদে প্রার্থী করার জন্য। এছাড়াও বর্তমান কাউন্সিলার বিএনপির তরুণ নেতা শাহনেওয়াজ খান নিজেকে দলীয় প্রার্থী ঘোষণা দিয়ে মাঠ দাপিয়ে বেড়াচ্ছে।

সিলেটের গোলাপগঞ্জে অর্ধশতাধিক প্রার্থী

সালাম মশরুর, সিলেট অফিস ॥ সিলেটের গোলাপগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনকে ঘিরে সর্বত্র চলছে আলোচনা। পৌরসভা নির্বাচন সামনে রেখে মেয়র ও কাউন্সিলর পদে অর্ধশতাধিক প্রার্থী মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। মেয়রপদে যারা মাঠে প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন তাদের মধ্যে আছেনÑ উপজেলা পৌরসভার সাবেক প্রশাসক ও উপজেলার আওয়ামী লীগের যুগ্মসম্পাদক সিরাজুল জব্বার চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ও বর্তমান মেয়র জাকারিয়া আহমদ পাপলু, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য ও গোলাপগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মিছবাহ উদ্দিন, যুক্তরাজ্য যুবলীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম রাবেল, পৌর বিএনপির সাবেক সভাপতি গোলাম কিবরিয়া চৌধুরী শাহিন, বর্তমান সভাপতি মশিকুর রহমান মহি, ব্যবসায়ী ও সমাজসেবক আমিনুল ইসলাম লিপন, উপজেলা খেলাফত মজলিশের সহসভাপতি আমিনুল ইসলাম আমিন, পৌর বিএনপির সাবেক সভাপতি ছালিক আহমদ চৌধুরী, পৌর বিএনপির যুগ্মসম্পাদক মিনহাজ আহমদ চৌধুরী, ব্যবসায়ী জমির উদ্দিন আহমদ। আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থীরা দলীয় প্রতীক পেতে জোর তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছেন। বিএনপি সমর্থিত প্রার্থীদের মধ্যে পৌর বিএনপির সাবেক সভাপতি গোলাম কিবরিয়া চৌধুরী শাহিন দলীয় প্রতীক নিয়ে এককভাবে নির্বাচন করতে জোর তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছেন।