১৪ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আওয়ামী লীগ পৌর নির্বাচনে একক প্রার্থী দেবে কেন্দ্রীয়ভাবে

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ কেন্দ্রীয়ভাবে পৌর নির্বাচনে একক প্রার্থী দেবে আওয়ামী লীগ। নির্বাচনী প্রচারে মন্ত্রী-এমপিদের অংশ নেয়ার সুযোগ চেয়ে নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ে আবেদন করবে দলটি। আগামী রবিবার আওয়ামী লীগের একটি প্রতিনিধি দল নির্বাচন কমিশনে এ আবেদন নিয়ে যাবে। বৃহস্পতিবার রাতে গণভবনে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদ, আওয়ামী লীগ সংসদীয় বোর্ড এবং নির্বাচন পরিচালক কমিটির সদস্যদের সঙ্গে ত্রিপক্ষীয় জরুরী বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়।

বৈঠকে পৌর নির্বাচনে একক প্রার্থী চূড়ান্ত করতে সংশ্লিষ্ট জেলা-উপজেলা ও পৌরসভার সভাপতি-সম্পাদক এবং স্থানীয় দলীয় এমপি একত্রিত হয়ে একক প্রার্থী চূড়ান্ত করে আগামী ৩০ নবেম্বরের মধ্যে দলীয় সভানেত্রীর কার্যালয়ে জমা দিতে নির্দেশনা দেয়া হয়। স্থানীয় নির্বাচনে দলের প্রার্থী মনোনয়নে দলের গঠনতন্ত্রে সুনির্দিষ্ট নির্দেশনা না থাকায় সংসদীয় বোর্ডের আদলে ‘মনোনয়ন সিলেকশন বোর্ড’ গঠন করা হয়েছে। এ ছাড়াও বৈঠকে ১০টি জেলা কমিটি অনুমোদন করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন তোফায়েল আহমেদ, সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত, মোহাম্মদ নাসিম, ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, মতিয়া চৌধুরী, সৈয়দ আশরাফ, আবুল হাসনাত আবদুল্লাহ, মাহবুব উল আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, ক্যাপ্টেন (অব) এবি তাজুল ইসলাম, আহমদ হোসেন, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, বিএম মোজাম্মেল হক ও আবদুর রহমান। বৈঠক সূত্র জানায়, বৈঠকে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত বলেন, দলীয়ভাবে এবং দলীয় প্রতীকেই স্থানীয় সরকার নির্বাচন হচ্ছে। তাহলে কেন এমপি-মন্ত্রীরা অংশ নিতে পারবে না? তার এমন বক্তব্য সমর্থন করে একাধিক নেতা বক্তব্য দেন। তারা বলেন, দলীয় নির্বাচনে এমপিরা প্রচারে অংশ নেবেন এটাই স্বাভাবিক। এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, আগে আপনারা বিধিমালা দেখেননি? এমপিরা কমিশনে গিয়ে বিধিমালা পরিবর্তনের দাবি জানালে এতে দলীয় সভানেত্রী সম্বিত হয়েছেন বলে একাধিক নেতা জানিয়েছেন। আগামী রবিবার ৮ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল নির্বাচন কমিশনে বিধিমালা সংশোধনীর জন্য আবেদন করবেন বলে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। এ ছাড়াও সিদ্ধান্ত নেয়া হয়, সংসদীয় বোর্ডের আদলে গঠন করা হয়েছে সেন্ট্রাল কমিটি সিলেকশন কমিটি। এ কমিটিতে আওয়ামী লীগের সংসদীয় বোর্ডের ১১ সদস্য এবং দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনা নতুন ৫ জনের নাম অন্তর্ভুক্ত করবেন। আগামী ৩০ তারিখের মধ্যে স্ব স্ব পৌরসভায় প্রার্থী চূড়ান্ত করে পাঠাবে। যেখানে সমাঝোতা হবে নাÑ সেখানে যারা যারা প্রার্থী হতে চান তাদের সকলের নাম পাঠাবে দলীয় সভানেত্রীর ধানম-ির রাজনৈতিক কার্যালয়ে। সেখানে বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও তিন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক স্কুটিং করে দলীয় সিলেকশন বোর্ডের কাছে প্রেরণ করবেন। সিলেকশন কমিটি প্রার্থী চূড়ান্ত করে দলীয় সভানেত্রীর কাছে জমা দেবেন। দলীয় সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফ স্বাক্ষরিত পত্রের মাধ্যমে চূড়ান্ত প্রার্থীরা দলীয় প্রতীক পাবে। অন্য প্রার্থীরা তা পাবে না।

এ ছাড়াও সভায় নাটোর, রাজশাহী মহানগর, রাজশাহী জেলা, নড়াইল, বরগুনা, মাগুরা জেলা কমিটি অনুমোদন করা হবে।