২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বিটস মিউজিক বন্ধ করে দেবে এ্যাপল

৩০ নবেম্বর থেকে মিউজিক স্ট্রিমিং সেবা ‘বিটস মিউজিক’ বন্ধ করে দেবে মার্কিন টেক জায়ান্ট এ্যাপল। বিটস মিউজিকের সব সাবস্ক্রিপশন বন্ধ হয়ে যাবে ওই দিনই। তবে আগ্রহী সাবস্ক্রাইবারদের নিজস্ব এ্যাপল মিউজিক সেবা ব্যবহারে উৎসাহী করছে এ্যাপল। প্রযুক্তিবিষয়ক সাইট সিনেট এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার প্রকাশিত এক সাপোন্ট ডকুমেন্টে পাওয়া গেছে বিটস বন্ধ হয়ে যাওয়ার এই তথ্য। নতুন এই পদক্ষেপ নিয়ে সংবাদমাধ্যমগুলোর কাছে এখনও কোন আনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়া জানায়নি এ্যাপল।

এ্যাপলের নিজস্ব মিউজিক স্ট্রিমিং সেবা এ্যাপল মিউজিক-এর অভিষেকের ছয় মাসের মাথায় বিটস মিউজিক বন্ধ করে দিচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। বিটস মিউজিকের গানগুলোও পাওয়া যাচ্ছে এ্যাপল মিউজিকে। মূলত বিটসের প্রযুক্তির ওপর কেন্দ্র করেই গড়ে উঠেছে এ্যাপল মিউজিক। ২০১৪ সালে ৩শ’ কোটি মার্কিন ডলারের বিনিময়ে বিটস মিউজিক কিনে নিয়েছিল এ্যাপল। হঠাৎ করেই মিউজিক স্ট্রিমিং সেবায় এ্যাপলের আগমন প্রতিষ্ঠানটির জন্য বড় একটি পদক্ষেপ ছিল বলে জানিয়েছে সিনেট। নিজস্ব গ্রাহকদের ক্ষেত্রে মিউজিক স্ট্রিমিংয়ের ব্যবসায় কৌশল গ্রহণ করা থেকে দীর্ঘদিন দূরে থেকেছে এ্যাপল। জুনে এ্যাপল মিউজিক চালু করার পর থেকে ৬৫ লাখ ব্যবহারকারী অর্থের বিনিময়ে মিউজিক স্ট্রিমিং সেবাটি ব্যবহার করছেন বলে অক্টোবর মাসে জানিয়েছিলেন এ্যাপল সিইও টিম কুক। সেবাটির ৩ মাসের ‘ফ্রি ট্রায়াল পিরিয়ড’-এ গ্রাহকের সংখ্যা ৮৫ লাখ। অভিষেকের পর থেকে মিউজিক স্ট্রিমিং সেবাটির অগ্রগতি যত দ্রুত গতিতে হয়েছে তাতে স্পটিফাইয়ের মতো শীর্ষস্থানীয় মিউজিক স্ট্রিমিং সেবাগুলোর জন্য এ্যাপল মিউজিক খুব শীঘ্রই মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে।