২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

লেনদেন কমলেও গ্রাহক পৌছলো তিন কোটিতে

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় দ্রুত টাকা পাঠানো, বিভিন্ন ধরনের বিল পরিশোধসহ নানা কারণে ব্যবহার বাড়ছে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের। লেনদেন কিছুটা কমলেও এরই ধারাবাহিকতায় মোবাইল ব্যাংকিং এ গ্রাহক সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৩ কোটির ঘর। বাংলাদেশ ব্যাংকের এক হালনাগাদ প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, অক্টোবর শেষে মোবাইল ব্যাংকিং লেনদেনে গ্রাহক সংখ্যা দাড়িয়েছে ৩ কোটি ২ লাখ ৩৮ হাজার। যেখানে ১ মাসের ব্যবধানে অর্থাত সেপ্টেম্বর মাসের তুলনায় ৩ দশমিক ৫১ শতাংশ গ্রাহক বৃদ্ধি পেয়েছে। সেপ্টেম্বর শেষে গ্রাহক ছিল ২ কোটি ৯২ লাখ ১২ হাজার।

গ্রাহক সংখ্যা বাড়লেও সেপ্টেম্বরের তুলনায় অক্টোবরে কমেছে দৈনিক গড় লেনদেন। প্রতিদিন গড়ে লেনদেন হয়েছে ৪৩৪ কোটি টাকার কিছু বেশি। যা আগের মাসে ছিল ৫০০ কোটি টাকার ওপরে। এখানে ১৩ দশমিক ৪৪ শতাংশ কম লেনদেন হয়েছ আগের মাসের তুলনায়। আবার গ্রাহকের পাশাপাশি বেড়েছে মোবাইল ব্যাংকিং প্রতিনিধি বা এজেন্ট। সেপ্টেম্বরের চেয়ে অক্টোবরে এজেন্টের সংখ্যা বেড়ে দাড়িয়েছে ৫ লাখ ৪৭ হাজার ৮১৩ জনে।

হালনাগাদ প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, গ্রাহক বৃদ্ধির সঙ্গে বেড়েছে অ্যাকটিভ (সক্রিয়) একাউন্টের সংখ্যা। অক্টোবরে অ্যাকটিভ একাউন্টের সংখ্যা ছিল ১ কোটি ২০ লাখের কিছু বেশি। যা সেপ্টম্বরে ছিল ১ কোটি ১৭ লাখে।

উল্লেখ্য, যেসব হিসাবে একটানা তিন মাসের বেশি লেনদেন হয় না, সেসব হিসাবকে নিষ্ক্রিয় হিসাব বলে ধরা হয়। আর অন্ততপক্ষে তিন মাসের মধ্যে একবার লেনদেন করেছে এমন হিসাবকে সক্রিয় বলে ধরা হয়।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্যমতে, গত অক্টোবর মাসে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে প্রায় ১৩ হাজার ৪১ কোটি ২২ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছ। যা সেপ্টেস্বরে ছিল ১৫ হাজার ৬৫ কোটি ৭৫ লাখ টাকা। সে হিসাবে মাসিক লেনদেন কমেছে ১৩ দশমিক ৪৪ শতাংশ।