২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

অস্থিতিশীলতা সৃষ্টি করতে আইএস গুজব ছড়ানো হচ্ছে ॥ নাসিম

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ আওয়ামী লীগ প্রেসিডিয়াম সদস্য, কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মুখপাত্র এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, দেশকে অস্থিতিশীল করতে আইএসের গুজব ছাড়ানো হচ্ছে। যারা দেশের স্বাধীনতায় বিশ্বাস করে না এবং যারা দেশের উন্নয়ন সহ্য করতে পারছে না; তারাই নতুন এই ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। শনিবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) শহীদ ডাঃ শামসুল আলম খান মিলন দিবসের আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরও বলেন, দেশে আইএসের কোন অস্তিত্ব নেই। দেশের ব্যাপক উন্নয়ন কাজ বাধাগ্রস্ত করতে স্বাধীনতাবিরোধী গোষ্ঠী আইএস উপস্থিতির গুজব ছড়াচ্ছে।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, একাত্তরের ঘাতকদের বিচার কাজ সম্পন্ন করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যখন দেশ এগিয়ে চলছে ঠিক সে সময়ে স্বাধীনতাবিরোধী গোষ্ঠী চক্রান্ত করছে। তারা বিভিন্ন জায়গায় হামলা ও হত্যাযজ্ঞ চালিয়ে আইএসের নাম দিচ্ছে। যুদ্ধাপরাধীদের বিচার প্রসঙ্গে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, পাকিস্তান তাদের চর যুদ্ধাপরাধীদের ফাঁসি হওয়ায় কষ্ট পেয়ে সমালোচনা করতে পারে। কিন্তু জাতিসংঘের মতো একটি প্রতিষ্ঠান ও মানবাধিকার সংস্থা এ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের সমালোচনা করার ঘটনা দুঃখজনক।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, পৌরসভা নির্বাচন এবারই প্রথম দলীয়ভাবে হচ্ছে যা এক সময় সবারই দাবি ছিল। তিনি প্রশ্ন রেখে বলেন, পৌর নির্বাচনে এমপিরা কেন প্রচার চালাতে পারবেন না? সাবেক প্রধানমন্ত্রী-মন্ত্রী-এমপিরা পারলে বর্তমানরা কেন পারবেন না। লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড (সবার জন্য সমান অধিকার) সৃষ্টি করতে এমপিদের প্রচার চালানোর সুযোগ রাখা উচিত ছিল।

সভায় বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন বলেন, দেশে হামলা ও হত্যাযজ্ঞ চালিয়ে স্বাধীনতাবিরোধী গোষ্ঠী আইএস’র অস্তিত্ব খুঁজে বেরায়। আবার মার্কিন ও ব্রিটেনের রাষ্ট্রদূত একইদিনে বিবৃতি দিয়ে আইএসের উপস্থিতি খুঁজে বের করতে সহযোগিতার আশ্বাস দেন। এ থেকে ষড়যন্ত্রের গন্ধ পাওয়া যায়। মেনন বলেন, তাদের সহযোগিতা নিয়ে আইএসকে খুঁজতে গেলে বাংলাদেশে পাকিস্তান, সিরিয়া ও ইরাকের মতো পরিস্থিতি হবে।

বিএসএমএমইউ উপাচার্য অধ্যাপক ডাঃ কামরুল হাসান খানের সভাপতিত্বে সভায় বক্তৃতা করেন ডাঃ মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, অধ্যাপক ডাঃ মাহমুদ হাসান, ডাঃ বদিউজ্জামান ভুইয়া ডাবলু, অধ্যাপক ডাঃ এম ইকবাল আর্সলান, অধ্যাপক ডাঃ এমএ আজিজ, অধ্যাপক ডাঃ শারফুদ্দিন আহমেদ, শহীদ ডাঃ মিলনের মা সেলিনা আকতার প্রমুখ।

অলোক সেনের শয্যাপাশে স্বাস্থ্যমন্ত্রী

দুর্বৃত্তদের হামলায় আহত ফরিদপুরে হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রীস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অলোক সেনকে দেখেতে গেলেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। শনিবার সন্ধ্যায় মন্ত্রী ঢাকা মেডিক্যাল কলেজে তাকে দেখতে যান। এ সময় স্বাস্থ্যমন্ত্রী তার চিকিৎসার খোঁজখবর নেন এবং পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলেন। একই সঙ্গে অলোক সেনের সুস্থতার জন্য দোয়া করেন এবং চিকিৎসার ব্যাপারে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা প্রদানের আশ্বাস দেন। গত ২৫ নবেম্বর রাত সাড়ে ১২টার দিকে দুর্বৃত্তের হামলায় আহত অলোক সেনকে ঢাকা মেডিক্যালে ভর্তি করা হয়। একই দিন বিকেল ৪টার দিকে শহরের চরকমলাপুর এলাকায় নিজ বাড়ির সামনে অলোক সেনের ওপর অতর্কিত হামলা চালায় দুই যুবক। পরে তাকে ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ সময় স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক ডা. ইকবাল আর্সলান, ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডাঃ ইসমাইল খান, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রীস্টান ঐক্য পরিষদের নেতা ড. নিমচন্দ্র ভৌমিক উপস্থিত ছিলেন।