১৭ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

শিক্ষার্থীদের ইন্টারনেট ব্যবহার নিয়ে সচেতন হতে হবে অভিভাবকদের

শিশু-কিশোরদের ইন্টারনেট ব্যবহারের বিষয়ে আরও খোলামেলা এবং সচেতন হতে হবে অভিভাবকদের। গ্রামীণফোন পরিচালিত এক গবেষণায় দেখা গেছে, ৭০ শতাংশ শিক্ষার্থী মনে করে ইন্টারনেটে কোন সমস্যায় পড়লে তাদের সাহায্য বা দিকনির্দেশনা দেয়ার কেউ নেই। কারণ বিদ্যালয়, শিক্ষক বা অভিভাবকগণ এ বিষয়ে যথেষ্ট সক্ষম নন। বাংলাদেশের তরুণ প্রজন্মের মধ্যে ইন্টারনেট ব্যবহার ও এর ধারণা বুঝে ওঠার জন্য একটি গবেষণা চালায় গ্রামীণফোন। ইন্টারনেট ব্যবহারের সুযোগ থাকা ১১-১৮ বছর বয়সী গ্রাম ও শহর অঞ্চলের এক হাজার পাঁচ শ’ শিক্ষার্থীর মধ্যে গবেষণাটি পরিচালিত হয়। এ গবেষণা গ্রামীণফোনকে তরুণ প্রজন্মের মধ্যে ইন্টারনেট ব্যবহার নিরাপদ করতে সহায়তা করবে।

গ্রামীণফোনের চীফ কর্পোরেট এ্যাফেয়ার্স অফিসার মাহমুদ হোসেন বলেন, একটি দায়িত্বশীল সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে গ্রামীণফোন বাংলাদেশের তরুণ প্রজন্মকে ইন্টারনেট ব্যবহারের মাধ্যমে নিজেদের জীবন উন্নত করতে এবং একই সঙ্গে সেখানে নিরাপদে থাকতে সহায়তা করতে উৎসাহী। ইন্টারনেটের অপব্যবহার শিক্ষার্থীদের খুবই অস্বস্তিকর অবস্থায় ফেলে দেয়। শিক্ষার্থীরা এ বিষয়ে তাদের বাবা-মা ও শিক্ষকদের সঙ্গে আলোচনা করার চেয়ে বেশিরভাগ সময়ই বন্ধুদের সঙ্গে আলোচনা করতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে।

গ্রামীণফোনের হেড অব কর্পোরেট রেসপনসিবিলিটি দেবাশীষ রায় বলেন, বাংলাদেশের প্রায় সাড়ে ৫ কোটি ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর ৮৫ শতাংশই তরুণ। কিন্তু উদ্বেগজনক হলোÑ এদের বেশিরভাগই সাইবার অপরাধ বিষয়ে সঠিকভাবে অবগত নয়। গ্রামীণফোনের ‘সবার জন্য ইন্টারনেট’ প্রয়াসের অধীনে তরুণ প্রজন্মের মধ্যে নিরাপদ ইন্টারনেট নিয়ে প্রচার চালাচ্ছে। প্রতিষ্ঠানটি অভিভাবকদের জন্য নিরাপদ ইন্টারনেট গাইড বই প্রকাশ করেছে। এছাড়াও দেশজুড়ে ৫০০ বিদ্যালয়ে ব্র্যাকের সহযোগিতায় নিরাপদ ইন্টারনেট কর্মশালা করা হচ্ছে। -বিজ্ঞপ্তি

স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর বাবরকে ফের কারাগারে

নিজস্ব সংবাদদাতা, গাজীপুর, ২৮ নবেম্বর ॥ কাশিমপুর কারাগারে বন্দী ১০ ট্রাক অস্ত্র মামলায় ফাঁসির দ-প্রাপ্ত বিএনপি নেতা সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবরকে আবারো ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্বাস্থ্য পরীক্ষা ও চিকিৎসা শেষে শনিবার কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

কাশিমপুরের ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার-১ এর ভারপ্রাপ্ত সিনিয়র জেল সুপার মিজানুর রহমান জানান, শনিবার সকাল ৮টার দিকে কারাগার থেকে কড়া নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে তাকে ঢামেক হাসপাতালে পাঠানো হয়। স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে বেলা ১টার দিকে তাকে ফের কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-১-এ আনা হয়েছে। ২১ নবেম্বর স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য লুৎফুজ্জামান বাবরকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

নির্বাচিত সংবাদ